Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ৩০ বৈশাখ ১৪২৮, ৩০ রমজান ১৪৪২ হিজরী

চকরিয়ায় গাছে বেঁধে নারী নির্যাতন, মুল হোতা গ্রেপ্তার হয়নি এখনো, পুলিশ সুপারের ঘটনাস্থল পরিদর্শন

কক্সবাজার ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৯ মার্চ, ২০২১, ২:৩৮ পিএম

চকরিয়া উপজেলার বরইতলী ইউনিয়নে সুদের দুই হাজার টাকার জন্য নুর আয়েশা (২৭) নামে এক গৃহবধূকে গাছের সাথে বেঁধে শারীরিক নির্যাতনের ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে।

নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ নুর আয়েশা বাদী হয়ে বুধবার রাতে চকরিয়া থানায় ৬ জনের বিরুদ্ধে এ মামলাটি দায়ের করেন। ওই মামলার দুই নম্বর আসামী জহির আহমদকে পুলিশ গ্রেপ্তার করলেও ঘটনার মূলহোতাসহ অন্য আসামীরা ধরা-ছোঁয়ার বাইরে রয়েছে এখনো।

এদিকে নারী নির্যাতনের ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম পরবর্তী গণমাধ্যমে প্রচারিত হবার পর ঘটনাস্থলে পরির্দশন করেছেন কক্সবাজারের পুলিশ সুপার (এসপি) মো. হাসানুজ্জামান। তিনি এসময় ভিকটিম ওই নারী এবং তার পরিবারের সদস্য ও স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলেন।

পরিদর্শন শেষে তিনি ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তারপূর্বক শাস্তির আওতায় আনতে চকরিয়া থানা পুলিশকে নির্দেশ দেন।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে পুলিশ সুপারের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (চকরিয়া সার্কেল) মো. তফিকুল আলম ও চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের, বরইতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জালাল আহমদ সিকদার, প্যানেল চেয়ারম্যান নিয়াজুল ইসলাম বাদল ছাড়াও এলাকাবাসি।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, গৃহবধূর উপর শাররীক নির্যাতনের ঘটনার মুলহোতা মামলার ১ নম্বর আসামী শওকত ওসমান পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পরিদর্শন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ