Inqilab Logo

রোববার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ভারতে পবিত্র কোরআনের আয়াত পরিবর্তনে রিট ইসলামের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র

চট্টগ্রামে কড়া পাহারা বাধার মধ্যেও বিক্ষোভ

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৯ মার্চ, ২০২১, ৩:৪৪ পিএম | আপডেট : ৪:১৪ পিএম, ১৯ মার্চ, ২০২১

নগরীতে বাদ জুমা পুলিশের কড়া পাহারা আর বাধার মধ্যেও বিক্ষোভ করেছেন মুসল্লিরা। জমিয়াতুল ফালাহ মসজিদ থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল রেব করে ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ চট্টগ্রাম মহানগরী। মিছিল থেকে ভারত বিরোধী স্লোগান দেন মুসল্লিরা।

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নেজাম উদ্দিন ইনকিলাবকে বলেন, ভারতে পবিত্র কোরআনের কয়েকটি আয়াতের বিরুদ্ধে আদালতে রিট করার প্রতিবাদে এ বিক্ষোভ মিছিল বের করে ইসলামিক ফ্রন্ট। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মিছিল থেকে ভারত ও ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে নানা ¯েøাগান দেওয়া হয়।
এদিকে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরের প্রতিবাদে নগরীর বিভিন্ন মসজিদ থেকে ইসলামি দল ও মুসল্লিদের বিক্ষোভ ঠেকাতে ব্যাপক পুলিশ মোতায়েন করা হয়। নামাজ শুরুর আগেই আন্দরকিল্লা শাহী জামে মসজিদ, চক বাজার অলি খা জামে মসজিদ, মুরাদপুর মসজিদে বেলাল, বহদ্দারহাট জামে সমসজিদসহ বেশির ভাগ মসজিদমুখি সড়ক ও মসজিদের ফটকগুলোতে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন ছিলো। তবে পুলিশের কড়া নিরাপত্তার মধ্যেও কোন কোন এলাকায় মুসল্লিদের উদ্যোগে বিক্ষোভ প্রদর্শনের খবর পাওয়া গেছে। কোথাও কোথাও পুলিশের বাধায় রাস্তায় দাঁড়াতে পারেননি মুসল্লিরা।

যদিও নগর পুলিশের বিশেষ শাখার উপ-কমিশনার মনজুর মোরশেদ জানান, জমিয়াতুল ফালাহ ছাড়া অন্য কোন এলাকায় কোন বিক্ষোভের খবর তারা পাননি। এদিকে হেজাজতে ইসলামের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদি বলেন, পুলিশ তাদের মিছিলের কোন অনুমতি দেয়নি।
অপরদিকে ইসলামিক ফ্রন্টের সমাবেশ থেকে ভারতে পবিত্র কোরআনের আয়াত পরিবর্তনে রিট ইসলামের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র উল্লেখ করে এর বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহŸান জানানো হয়েছে। শুক্রবার বাদ জুমা বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে এ আহŸান জানানো হয়।

সমাবেশে ইসলামিক ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি এইচ এম মুজিবুল হক শুক্কুর বলেন-স¤প্রতি ভারতে পবিত্র কোরআনের আয়াত পরিবর্তনে রিট ও শ্রীলংকায় নারীর পর্দা নিষিদ্ধকরণের ঘোষনা বিচ্ছিন্ন কিছু নয় বরং উভয়টি একই সূত্রে গাঁথা। যা বিশ্ব্যাপী ইসলাম বিরোধী এক গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ। অনস্বীকার্য বাস্তবতা হলো, সভ্যতার ঊষালগ্ন থেকে এ ঐশীগ্রন্থ পবিত্র কোরআনুল করিম সম্পর্কে আঙ্গুল তুলতে অনেক বিজ্ঞানী, গবেষক কতই না অপচেষ্টা করেছে। অথচ এক্ষেত্রে সফল হওয়া তো দুরের কথা বরং সকলেই ব্যর্থ হয়ে মহাগ্রন্থের বশ্যতা স্বীকারে বাধ্য হয়েছেন। কেননা এ পবিত্র ঐশিগ্রন্থ কস্মিনকালেও পরিবর্তনযোগ্য নয়।

অতএব জনৈক একজন ভারতীয় নাগরিক কর্তৃক এ পবিত্র গ্রন্থের ২৬ টি আয়াত পরিবর্তনে উচ্চ আদালতে রিট এর বিষয়টি এক চরম ধৃষ্টতা বৈ আর কিছুই নয়। যা ঐ ভারতীয়ের ইসলাম ও মুসলিম বিদ্বেষী মনোবৃত্তির বহিঃপ্রকাশ। এধরনের ঘৃন্য কর্মকাÐ নিঃসন্দেহে উপমহাদেশে উত্তাপ ছড়াবে। সা¤প্রদায়িক হানাহানি ছড়িয়ে পড়বে সর্বত্র। বিনষ্ট হবে আঞ্চলিক তথা প্রতিবেশী সুলভ সম্পর্ক ও স্থিতিশীলতা। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে তিনি বাংলাদেশ সরকারকে কৌশলী ভূমিকায় কুটনৈতিক তৎপরতার মাধ্যমে এ গর্হিত কাজ থেকে বিরত থাকতে ভারত সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করার আহবান জানান।

জমিয়তুল ফালাহ্ মসজিদ থেকে ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ ও ইসলামী ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম মহানগর আয়োজিত ভারতে পবিত্র কোরআনের আয়াত পরিবর্তনে উচ্চ আদালতে রিট, শ্রীলংকায় নারীদের পর্দা করার উপর নিষেধাজ্ঞা প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল পুর্ব সমাবেশে সভাপতির বক্তব্য রাখেন তিনি ।
সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন-মাওলানা আব্দুর রহিম তৈয়বী, এম, আলম রাজু, এম মহিউল আলম চৌধুরী, মাওলানা এম, মাইনুদ্দীন চৌধুরী হালিম, ডাক্তার মাওলানা হাশমত আলী তাহেরী, শাহ্জাদা মাইনুদ্দীন হাসান সন্জরী, রফিকুল ইসলাম, মুহাম্মদ আলাউদ্দিন আজাদ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিক্ষোভ মিছিল


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ