Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ০৪ জৈষ্ঠ্য ১৪২৮, ০৫ শাওয়াল ১৪৪২ হিজরী

মুরাদনগরে টাকা ধার না পেয়ে হামলা, ভাংচুর লুটপাট, আহত ৩ : গ্রেফতার ১

দেবিদ্বার (কুমিল্লা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৯ মার্চ, ২০২১, ৭:৫৪ পিএম

কুমিল্লার মুরাদনগরে ধার চেয়ে টাকা না পেয়ে বাড়ি ঘরে হামলা, ভাংচুর, লুটপাট ও কুপিয়ে জখমসহ মহিলাদের শ্লীলতাহানির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় জড়িত ১০ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা হলে গতকাল শুক্রবার একজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটক আরিফ (২৫) ইউসুফ নগর গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে।

ঘটনার শিকার উপজেলার সদর ইউনিয়নের ইউসুফনগর গ্রামের হাজী আব্দুস সাত্তারের ছেলে ব্যবসায়ী আবুল কালাম বাদী হয়ে ১০ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন। অভিযুক্তরা হলেন, একই গ্রামের মৃত আব্দুল মজিদের ছেলে আবুল কালাম আজাদ, মৃত শহিদুল ইসলামের ছেলে শফিকুল ইসলাম বাবু, আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে শাহাবুল, মৃত আব্দুল হালিমের ছেলে ফেরদৌস কবির, আব্দুস সালামের ছেলে আরিফ, আব্দুল মজিদের ছেলে আব্দুল আজিজ, মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে রুবেল মিয়া, রূপ মিয়ার ছেলে বাবু, মৃত শহিদ মিয়ার ছেলে রহমত উল্লাহ ও বাবুল মিয়ার ছেলে নিজাম।

মামলার বাদী ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বেশ কিছুদিন যাবত ব্যবসায়ী আবুল কালামের কাছে এক লক্ষ টাকা ধার চেয়ে আসছে আবুল কালাম আজাদ। টাকা দিতে অপরাগতা প্রকাশ করায় ক্ষীপ্ত হয়ে দেখে নেওয়ার হুমকি দেয় সে। তারই জের ধরে আবুল কালাম আজাদের অনুসারী শরিফুল ইসলাম বাবুর নেতৃতে দেশীয় অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে গত বৃহস্পতিবার দুপুরে ব্যবসায়ী আবুল কালামের বাড়িঘরে অতর্কিত হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করে তারা। এ সময় বাড়ির লোকজন তাদেরকে নিবৃত করার চেষ্টা করলে তারা আরো ক্ষীপ্ত হয়ে আবুল কালামের বৃদ্ধ বাবা হাজী আব্দুস সাত্তারকে কুপিয়ে জখম করে এবং তার মা ও ছোট ভাই মাহবুবের স্ত্রীকে শ্লীলতাহানি করে। আচমকা এ ঘটনায় এলাকা জুড়ে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। তাদের হাতে দেশীয় অস্ত্র থাকায় প্রতিবেশী কেউ ভয়ে এগিয়ে আসেনি। নিরূপায় হয়ে কালামের পরিবার ৯৯৯-এ ফোন দেয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে হামলার মূল নায়ক শরিফুল ইসলাম বাবু দলবল নিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। হামলাকারিরা বাড়িঘর ভাংচুর চালিয়ে ৫০ হাজার টাকার ক্ষতিসাধনসহ আলমিরার তালা ভেঙ্গে ২০ হাজার টাকা নিয়ে যায়। উক্ত ঘটনায় আহতরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত আবুল কালাম আজাদ ও হামলায় নেতৃত্ব দেওয়া শফিকুল ইসলাম বাবুর মুঠোফোন বন্ধ থাকায় এ বিষয়ে বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

মুরাদনগর থানার ওসি সাদেকুর রহমান দৈনিক ইনকিলাবকে বলেন, ব্যবসায়ী কালামের বাড়িতে হামলার ঘটনায় মামলা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত আব্দুস সালামের ছেলে আরিফকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কুমিল্লা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ