Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ০৯ বৈশাখ ১৪২৮, ০৯ রমজান ১৪৪২ হিজরী

দৈনন্দিন জীবনে ইসলাম

| প্রকাশের সময় : ২৬ মার্চ, ২০২১, ৯:১৯ পিএম

প্রশ্ন : বাংলাদেশ ব্যাংকের সঞ্চয়পত্র হতে অর্জিত মুনাফা হালাল কি?
উত্তর : বাংলাদেশ ব্যাংক বা জাতীয় সঞ্চয়পত্র, ডাকঘর সঞ্চয়পত্র এ ধরণের সরকারি সমস্ত সঞ্চয়পত্র এখন পর্যন্ত যে পলিসিতে পরিচালিত হচ্ছে সবগুলোর মুনাফা হারাম। এগুলো সুদ, কারণ সরকার এগুলো দিতে বাধ্য। লাভ হোক, লস হোক সরকারকে এ সঞ্চয়পত্রের মুনাফা দিতে হবে। বাজেটে এগুলো সুদ হিসাবে দেওয়া হয় যে, আমরা সঞ্চয়পত্রের সুদ দিব। সুতরাং এটা হারাম, নেওয়া যাবে না। সরকার যদি এমন কোনো এন্টারপ্রাইজ বা কোম্পানি খুললেন, যেখানে হালাল উপায়ে বিনিয়োগ করে আপনাকে দিবেন, তাহলে তা হালাল হবে। সরকার যদি হালারের চিন্তা করেন, শরীয়াহ কাউন্সিলের মাধ্যমে দেখভাল করেন এবং তারা যদি বলেন যে এই অর্থ হালাল বা এই তহবিলটা হালাল, তাহলে সেখানে সঞ্চয়পত্রে রেখে মুনাফা নেওয়া যাবে। বর্তমানে যে সাধারণ নিয়মে চলছে, তার মুনাফা হালাল হবে না।
প্রশ্ন : আমার বাসা থেকে রেল স্টেশন ৩কি.মি। ঢাকা যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাসা থেকে বাহির হয়ে স্টেশনে গিয়ে ট্রেনের জন্য অপেক্ষারত অবস্থায় জুহুরের নামাজ কসর নাকি সম্পূর্ণ আদায় করব?
উত্তর : এখানে মাসআলা অনেক ফ্রেক্সিবল। আপনি শহরে যে মহল্লায় থাকেন, সেখান থেকে আরেকটা মহল্লায় যদি যান যে মহল্লটা আপনার না তাহলে আপনি মুসাফির। অতএব রেলস্টেশনে যখন এসেছেন, তখন আপনার সফরের শুরু হয়ে গেছে। সেখানে আপনি কসর নামাজই পড়বেন। কেউ যদি মনে করেন যে, রেলস্টেশনটাই আমার শহরের প্রান্ত মনে করি, আমি আরেকটু দূরে গিয়ে কসর শুরু করবো তাহলে আপনি তাও করতে পারেন। আবার ফেরার পথেও আপনার যখন নিজের শহরবাসীর সাথে দেখা হয়ে যাবে, তখন আপনার কসর শেষ হয়ে যায়, বাসায় পৌঁছতে হয় না। এই হিসাবে আপনি পুরো নামাজ পড়তে পারেন। আর যদি মনে করেন যে, আপনি মহল্লা শেষ হওয়ার সাথে সাথে মুসাফির হওয়ার মতটা নিবেন, তাহলে ওইটাও নিতে পারেন। তখন রেলস্টেশনেও কসর পড়বেন।
প্রশ্ন : রুকু থেকে দাঁড়ানোর সময় সামিআল্লাহ হুলিমান হামিদা এবং রাব্বানা লাকাল হামদ দুইটাই পড়তে হবে কি না?
উত্তর : জি, দুটো পড়াই সুন্নাত। যেমন আল্লাহু আকবার ইমামও বলেন, মুসল্লীরাও বলেন। তেমনিভাবে সামিআল্লাহ হুলিমান হামিদা কথাটা মুসল্লী নিজেও বলবে, ইমামও রাব্বানা লাকাল হামদ বলবে। দুটোই ইমাম মুসল্লী উভয়েই বলবেন। এটাই সুন্নাত।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইসলাম

২২ এপ্রিল, ২০২১
২১ এপ্রিল, ২০২১
২০ এপ্রিল, ২০২১
২০ এপ্রিল, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন