Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ জুন ২০২১, ০৬ আষাঢ় ১৪২৮, ০৮ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখবে পাকিস্তান-ভারত

পানি সমস্যা সমাধানে পরবর্তী বৈঠক আগামী মাসে ইসলামাবাদে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ মার্চ, ২০২১, ১২:০২ এএম

পাকিস্তান ও ভারতের স্থায়ী সিন্ধু কমিশনের (পিআইসি) দু’দিনের আলোচনা সমাপ্তির একদিন পর বৃহস্পতিবার ইসলামাবাদে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় (এমওএফএ) বলেছে যে, উভয় পক্ষই বিষয়টির সমাধানে প্রচেষ্টা চালাতে সম্মত হয়েছে। একই সঙ্গে এ লক্ষ্যে সফর পরিচালনা এবং কমিশনের পরবর্তী সভা অনতিবিলম্বে পাকিস্তানে অনুষ্ঠানে সম্মত হয়েছে দু’দেশ। এদিকে সিন্ধু পানি কমিশনের পাকিস্তান কমিশনার সৈয়দ মুহাম্মদ মেহের আলী শাহ পানি আলোচনা অব্যাহত রাখার দৃঢ় অঙ্গীকার ব্যক্ত করে বলেছেন, আগামী মাসে ইসলামাবাদে অনুষ্ঠিতব্য কমিশনের পরবর্তী বৈঠকের জন্য তারা শিগগিরই ভারতীয় পক্ষকে আমন্ত্রণ জানাবেন। ২০১৯ সালে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও এটি ২০১৮ সালের আগস্টের পর এই প্রথম সভা। সরকারি ঘোষণায় বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে বার্ষিক সভা অনুষ্ঠিত হতে পারেনি, তবে সূত্রগুলি দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউনকে জানিয়েছে যে, ভারত একতরফাভাবে ২০১৯ সালের আগস্টে দখলিত জম্মু ও কাশ্মীরের (আইআইওজেকে) বিশেষ মর্যাদাকে প্রত্যাখ্যান করার পর দুই প্রতিবেশী দেশগুলির মধ্যে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার কারণে এটি অনুষ্ঠিত হতে পারেনি। উভয় পক্ষের পরস্পরের সাথে সমঝোতায় পৌঁছতে চাপের প্রেক্ষিতে পিআইসির বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলোচনার পরে জারি করা যৌথ বিবৃতিতে ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে যে, উভয় পক্ষই ইতিবাচক বার্তা প্রেরণের চেষ্টা করেছে। পাকিস্তান পররাষ্ট্র দফতরের বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ভারত-পাকিস্তান পিআইসির ১১৬তম সভাটি গত ২২ থেকে ২৪ মার্চ নয়াদিল্লিতে অনুষ্ঠিত হয়। বিবৃতিতে বলা হয় যে, বৈঠকে আইডবিøউটি সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়। ‘পাকিস্তান পক্ষ পাকাল দুল, লোয়ার কুলনাই, দুরবুক শায়ক ও নিমু চিলিংসহ ভারতীয় প্রকল্পগুলিতে তার আপত্তি পুনর্ব্যক্ত করে’। এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান-ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ