Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৭ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

মোদিকে খুশি করতেই নিরীহ মানুষ হত্যা

বিভিন্ন দলের প্রতিবাদের ঝড়

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ মার্চ, ২০২১, ১২:০০ এএম

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে খুশী করতেই স্বাধীনতা দিবসে নিরীহ মানুষ হত্যা করা হয়েছে। নিরীহ জনতাকে হত্যা করে সরকারের পতনঘন্টা তরান্বিত করেছে। চট্টগ্রামের হাটহাজারি এবং বি-বাড়িয়ায় যে সব পুলিশ মিছিলে গুলি চালিয়ে হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে তাদেরকে বরখাস্তÍ করে বিচার বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। হাটহাজারি থানার ওসিকে দ্রুত চাকুরি থেকে বরখাস্ত করতে হবে। শুক্রবার হাটহাজারি ও বি-বাড়িয়ায় হত্যাযজ্ঞ এবং বায়তুল মোকাররমে বর্বরোচিত হামলার প্রতিবাদ এবং হেফাজতের আজকের হরতালের সমর্থনে বিভিন্ন দলের বিক্ষোভ সমাবেশ ও বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন।

ইসলামী আন্দোলন: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম শায়খে চরমোনাই বলেছেন, স্বাধীনতার ৫০তম সুবর্ণ জয়ন্তীতে মানবতার দুশমন মোদির আগমনে প্রতিবাদে জনতার উপর পুলিশ গুলি করে মাদরাসা ছাত্রসহ ৬জনকে হত্যা করে ৭১-এর ২৬ মার্চের ভয়াবহ তান্ডবের কথা মনে করিয়ে দিয়েছে। তিনি বলেন, নিরীহ জনতাকে হত্যা করে সরকারের পতনঘন্টা তরান্বিত করেছে। তিনি বলেন, মোদিকে খুশি করতেই সরকার স্বাধীনতা দিবসে গুলি করে মানুষ হত্যা স্বাধীনতাকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে।

গতকাল শনিবার বিকেলে রাজধানীর বায়তুল মোকাররম উত্তর গেটে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের উদ্যোগে স্বাধীনতার ৫০তম স্বাধীনতা দিবসে বিক্ষোভরত জনতার উপরে হামলা ও নির্বিচারে গুলি করে মানুষ হত্যার প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব জমায়েতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ ইমতিয়াজ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ পূর্ব সমাবেশে বক্তব্য রাখেন দলের মহাসচিব মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, মাওলানা আরিফুল ইসলাম।

সমাবেশে ৬ দফা দাবি ও ২ দফা কর্মসূচি ঘোষণা করা হয় । দাবিগুলো হচ্ছে, চট্টগ্রামের হাটহাজারী এবং বি-বাড়িয়ায় যে সব পুলিশ মিছিলে গুলি চালিয়ে হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে তাদেরকে বরখাস্তা করে বিচার বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে, হাটহাজারী থানার ওসিকে দ্রুত চাকুরী থেকে বরখাস্ত করতে হবে, প্রত্যেক শহীদ পরিবারকে আর্থিক ক্ষতিপুরণ এবং আহতদের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে, মোদি বিরোধী আন্দোলনে যারা গ্রেফতার হয়েছে তাদের দ্রুত মুক্তি দিতে হবে এবং হয়রানীমূলক সকল মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। সরকারের পুলিশ বাহিনীর নির্বিচার গুলিতে হাটহাজারীতে ৪ জন মাদরাসা ছাত্র এবং বি-বাড়িয়ার দু’জন মিছিলকারী নিহত হওয়ার প্রতিবাদে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ ঘোষিত দেশব্যাপী সকাল-সন্ধ্যা শান্তিপূর্ণ হরতাল কর্মসূচীকে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ পূর্ণ সমর্থণ করছে এবং আগামী ১ এপ্রিল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাব সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। পরে নগরীতে বিক্ষোভ মিছির বের করা হয়।

৯ সংগঠন : বাসদ (মার্কসবাদী) কেন্দ্রীয় পাঠচক্র ফোরাম সমন্বয়ক শুভ্রাংশু চক্রবর্তী, জাতীয় মুক্তি কাউন্সিল সম্পাদক ফয়জুল হাকিম, জাতীয় গণফ্রন্ট সমন্বয়ক টিপু বিশ্বাস, নয়াগণতান্ত্রিক গণমোর্চা সভাপতি জাফর হোসেন, গণমুক্তি ইউনিয়ন আহবায়ক নাসির উদ্দিন আহমেদ নাসু, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক পার্টি সম্পাদক সারওয়ার মোর্শেদ, জাতীয় গণতান্ত্রিক গণমঞ্চ সভাপতি মাসুদ খান, বাসদ (মাহবুব) আহবায়ক সন্তোষ গুপ্ত ও কমিউনিস্ট ইউনিয়ন আহবায়ক ইমাম গাজ্জালি এক বিবৃতিতে ঢাকার বায়তুল মোকারম মসজিদে, চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে, ব্রা²ণবাড়িয়াসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে আগমন বিরোধী ইসলামী সংগঠনগুলোর শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ কর্মসূচিতে পুলিশের গুলিবর্ষণ, ৫ জনকে হত্যা, হামলা ও গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস : মোদি আগমনের প্রতিবাদে বায়তুল মোকাররম, হাটহাজারীসহ সারাদেশে আন্দোলনরত স্বত:স্ফূর্ত প্রতিবাদি দেশপ্রেমিক জনতার উপর হামলা ও হতাহতের ঘটনার প্রতিবাদে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ ঘোষিত সকাল সন্ধ্যা হরতাল সফল করার জন্য দেশপ্রেমিক তাওহিদী জনতা ও দলীয় নেতা কর্মীদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের আমীর শায়খুল হাদীস আল্লামা ইসমাঈল নূরপুরী ও মহাসচিব শায়খুল হাদীস মাওলানা মামুনুল হক।

ইসলামী ঐক্য আন্দোলন : ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের সেক্রেটারি জেনারেল অধ্যাপক মোস্তফা তারেকুল হাসান এক বিবৃতিতে বলেছেন, মহান স্বাধীনতা দিবসে ছাত্র-জনতাকে হত্যা দেশ ও জাতির জন্য এক কলঙ্কময় ঘটনা। এই জঘন্য ও বর্বর হত্যাকান্ডের জন্য সরকারকে চরম খেসারত দিতে হবে এবং জাতির কাছে কঠিনভাবে জবাবদিহি করতে হবে। তিনি হরতাল সর্বাত্মকভাবে সফল করে ঈমানী দায়িত্ব পালন করার অনুরোধ জানান ।

গণসংহতি আন্দোলন : গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি ও ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী সমন্বয়কারী আবুল হাসান রুবেল।
এক বিবৃতিতে নরেন্দ্র মোদীকে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণ জয়ন্তীতে আমন্ত্রিত হবার বিরোধিতা করা প্রত্যেক নাগরিকের অধিকার। তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারাদেশে মোদি বিরোধী গণতান্ত্রিক ও প্রগতিশীল সংগঠনসমূহের রাজনৈতিক কর্মসূচিতে পুলিশ ও ছাত্রলীগের উপর্যুপরি হামলা এবং নৃশংস কায়দায় হত্যাকান্ড ঘটিয়ে সরকার তার বাংলাদেশের জনগণ বিরোধী ও ভারত তোষণকারী চরিত্রের প্রকাশ ঘটিয়েছে।

খেলাফত মজলিস : বিক্ষুদ্ধ তাওহিদীজনতার উপর হামলা, গুলি ও ৫ জনকে শহীদ করার প্রতিবাদের হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ দেশব্যাপী সকাল-সন্ধ্যা হরতাল সফলের আহবান জানিয়েছে খেলাফত মজলিস। যৌথ বিবৃতিতে খেলাফত মজলিসের আমীর মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক ও মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের বলেন, সরকার গদি রক্ষায় আধিপত্যবাদী ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে খুশী করার জন্য দেশের জনগণের বুকে গুলি চালিয়েছে। জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ : জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের সহসভাপতি শায়খুল হাদীস আল্লামা উবায়দুল্লাহ ফারুক বিবৃতিতে বলেছেন, মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে সমাবেশে পুলিশ, যুব লীগ ও ছাত্র লীগের সন্ত্রাসীরা বিনা উস্কানীতে নিরীহ মুসল্লীদের উপর গুলিবর্ষণ ও রক্তাক্ত হামলা চালায় এবং জাতীয় মসজিদ অবমাননা করেছে।

বাংলাদেশ লেবার পার্টি : তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব লায়ন মোঃ ফারুক রহমান ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার ফরিদ উদ্দিন, ভাইস চেয়ারম্যান এস এম ইউসুফ আলী বলেন, স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর অনুষ্ঠানে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী মোদির বাংলাদেশে আগমনের প্রতিবাদে সারাদেশের মানুষ যখন স্বতঃষ্ফূর্তভাবে ঘৃণা প্রকাশ করছে, তখন পুলিশ বাহিনীর সাথে সরকারের দলীয় ক্যাডাররা দেশপ্রেমিক তাওহীদি জনতার উপর বর্বোচিত কায়দায় নগ্ন হামলা, টিয়ার শেল, গুলি চালিয়ে রাজধানী ঢাকা, চট্টগ্রাম, বি-বাড়ীয়া ও হাটহাজারিতে হত্যাযজ্ঞের ঘটনায় দেশবাসী হতবাক।

হেফজতে ইসলাম কামরাঙ্গীরচর জোন : সারাদেশে সকাল সন্ধ্যা হরতাল কর্মসূচির সফলের সমর্থনে গতকাল রাজধানী ঢাকার কামরাঙ্গীরচরে হেফাজতে ইসলাম কামরাঙ্গীরচর জোনের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলে নেতৃত্ব দেন হেফাজতের ইসলামের কেন্দ্রীয় সহকারী প্রচার সম্পাদক মুফতি সুলতান মহিউদ্দিন ও ঢাকা মহানগরীর সহকারী প্রচার সম্পাদক মুফতি আফম আকরাম হুসাইন।
ইসলামী ঐক্যজোট : ঢাকা, চট্টগ্রাম ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিক্ষোভকারীদের উপর হামলা ও হতাহতের ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নিরীহ মানুষ হত্যা
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ