Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ৩০ বৈশাখ ১৪২৮, ৩০ রমজান ১৪৪২ হিজরী

কারাবাখের শুশা সফরে যাচ্ছেন এরদোগান

আজারবাইজানে সাহায্যের ধারা অব্যাহত থাকবে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০৫ এএম

রমজানের ঈদের পর আজারবাইজানের কারাবাখ সফর করবেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদগান। গত বছর তুরস্কের সরাসরি সামরিক সহযোগিতায় কারাবাখ অঞ্চল ৩০ বছর পর আর্মেনিয়ার দখল মুক্ত করতে সক্ষম হয় আজারবাইজানের সেনাবাহিনী। আবারো আজারবাইজানের পাশে থাকার ঘোষণা দিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েপ এরদোগান। বুধবার তুর্কি কাউন্সিল বৈঠকে অংশ নিয়ে তিনি বলেন, সামনের দিনগুলিতে আমাদের আজারবাইজানের পাশে থাকা জরুরি। এসময় তিনি ঘোষণা করেন, আসন্ন রমজান মাসে তিনি নাগরনো-কারাবাখ অঞ্চল সফর করবেন। এ খবর দিয়েছে ডেলি সাবাহ। আলোচনায় এরদোগান নাগরনো-কারাবাখ যুদ্ধে মসজিদ ও গীর্জা ধ্বংসের কথা জানিয়ে দুঃখ প্রকাশ করেন। বর্তমানে অঞ্চলটির একটি অংশের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে আজারবাইজানের সেনাবাহিনী। আর্মেনিয়ার বিরুদ্ধে এ যুদ্ধে আজারবাইজানের সফলতার পেছনে রয়েছে তুরস্কের ব্যাপক অবদান। এ যুদ্ধের প্রথম থেকেই আজারবাইজানকে সর্বোচ্চ শক্তি দিয়ে সাহায্য করে যায় তুরস্ক। ভবিষ্যতেও এই ধারা অব্যাহত রাখার আশ্বাস দিয়েছেন এরদোগান। এরদোগান যে শহরটি (শুশা) সফরে যাবেন তা ২৮ বছর নিয়ন্ত্রণ করেছে আর্মেনিয়া। শুশা এখন আজারবাইজানের সেনাদের দখলে রয়েছে। এটি নাগরনো-কারাবাখের গুরুত্বপ‚র্ণ শহরগুলোর একটি। অঞ্চলটির রাজধানী স্টেপেনকোর্ট থেকে এই শহর মাত্র ১০ কিলোমিটার দ‚রে। নাগরনো-কারাবাখের প্রধান অংশগুলো এখনো আর্মেনিয়ার নিয়ন্ত্রণে থাকলেও শুশা দখল আজারবাইজানের অন্যতম বড় সফলতা। এই শহরে আজারবাইজানের ঐতিহাসিক নানা স্থাপনা রয়েছে। আজারবাইজানের মানুষ সঙ্গীত পাগল। এই শুশা শহরেই জন্ম নিয়েছে দেশটির বিখ্যাত অনেক শিল্পী। তাই এই শহর পুনরায় নিয়ন্ত্রণে নেয়া দেশটির জন্য গর্বের। দখলের পর এটিকে আজারবাইজানের সংস্কৃতি চর্চার কেন্দ্রস্থল হিসেবে গড়ে তুলতে উন্মুখ আজারবাইজান সরকার। জানুয়ারিতে শুশাকে দেশটির সাংস্কৃতিক রাজধানী হিসেবে ঘোষণা করেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ। ডেইলি সাবাহ।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: এরদোগান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ