Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ১০ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

টুইট বার্তায় দেশবাসীর দোয়া কামনা হজ্বে গেলেন বেগম খালেদা জিয়া

প্রকাশের সময় : ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : পবিত্র হজ্ব পালনে সউদী আরবে গেছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া। এটি তার তৃতীবারের হজ্ব। গতকাল বিকাল ৫টা ৮ মিনিটে হযরত শাহ জালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে সউদী এয়ারলাইন্সের বিমানে জেদ্দা রওনা হন তিনি। যাওয়ার প্রাক্কালে টুইট বার্তায় দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন খালেদা জিয়া।
বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা এনামুল হক চৌধুরী জানান, সউদী আরবের বাদশা সালমান বিন আব্দুুল আজিজের দাওয়াতে রাজকীয় অতিথি হিসেবে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া, সিনিয়র ভাইস-চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ পরিবারের সদস্যরা পবিত্র হজ্ব করতে সউদী আরব যাচ্ছেন।
তারেক রহমানসহ পরিবারের সদস্যরা বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায় লন্ডন থেকে জেদ্দায় রওনা হবেন বলে জানান তিনি।
হযরত শাহ জালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে ভিআইপি টার্মিনালের সড়কের সামনে দাঁড়িয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সনকে বিদায় জানান দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস-চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, সেলিমা রহমান, মোহাম্মদ শাহজাহান, আব্দুল আউয়াল মিন্টু, এজেডএম জাহিদ হোসেন, নিতাই রায় চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবীর খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, শামা ওবায়েদ, সহ-শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক হেলেন জেরিন খান, সহ-স্থানীয় সরকার বিষয়ক সম্পাদক শাম্মী আখতার, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম নিরব, সহ-স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা, ছাত্রদল সভাপতি রাজীব আহসান প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।
বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে একই বিমানে গেছেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা এনামুল হক চৌধুরী, তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক শরীফ শাহ কামাল তাজ, চেয়ারপার্সনের একান্ত সচিব আব্দুস সাত্তার, আলোকচিত্রী নুরুউদ্দিন আহমেদ এবং খালেদা জিয়ার গৃহকর্মী ফাতেমা।
লন্ডনে থেকে তারেক রহমান, তার স্ত্রী জোবাইদা রহমান, মেয়ে জাইমা রহমান, খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে মরহুম আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান সিঁথি গতকালই লন্ডন থেকে জেদ্দায় যাচ্ছেন।
এদিকে তারেক রহমানের শাশুড়ি ইকবাল মান্দ বানু, তার বড় মেয়ে শাহিনা খান জামান বিন্দু ও স্বামী সৈয়দ শফিউজ্জামান গত মঙ্গলবার জেদ্দা পৌঁছান।
বেগম খালেদা জিয়ার এটি তৃতীয় হজ্ব। ৯১ সালে প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে একবার এবং ৯৭ সালে বিরোধী দলে থাকাকালে খালেদা জিয়া দুই দফা হজ্ব করেছেন। এছাড়া প্রায় প্রতিবছরই মাহে রমজানে তিনি ওমরাহ পালন করছেন।
সর্বশেষ ২০১৪ সালের জুলাই মাসে তারেক রহমানসহ পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ওমরাহ পালন করেন বিএনপি চেয়ারপার্সন।
টুইট বার্তায় দেশবাসীর কাছে দোয়া কামনা
হজ্বের উদ্দেশে রওনা হওয়ার মুহূর্তে এক টুইট বার্তায় দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া।
সউদী এয়ারলাইন্সের বিমানে উঠে তিনি নিজেই টুইটারে লিখেছেন- ‘প্রিয় দেশবাসী, পবিত্র হজ্ব পালনের জন্য আমি সউদী আরব যাচ্ছি। আপনাদের দোয়া চাই।’
বিকাল ৫টা ৮ মিনিটে বিমান রানওয়ে থেকে সউদি আরবের রাজকীয় বিমান সংস্থার বিমান ‘সৌদিয়া এয়ারলাইন্স’-এর বিমান উড্ডয়ন করে জেদ্দার উদ্দেশ্যে।
এর আগে বিকেল সাড়ে ৪টা ২৫ মিনিটে গুলশানের বাসা ‘ফিরোজা’ থেকে বিএনপি চেয়ারপার্সনের গাড়িবহর হযরত শাহ জালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে ভিআইপি লাউঞ্জে প্রবেশ করে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ