Inqilab Logo

শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৬ কার্তিক ১৪২৮, ১৪ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

পুলে ঝড় তুললেন আসিফ-সোনিয়া দম্পতি

সাঁতারে আরো তিন রেকর্ড

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০১ এএম

সাঁতারের দ্বিতীয় দিনে রেকর্ড গড়লেন নৌবাহিনীর তিন সাঁতারু মাহফিজুর রহমান সাগর, আসিফ রেজা ও সোনিয়া খাতুন দম্পতি। সাগর ২০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে, আসিফ ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলে ও সোনিয়া ৫০ মিটার বাটারফ্লাই ইভেন্টে রেকর্ড গড়েন। ৫০ মিটারের আগে সাঁতারের প্রথম দিন ১০০ মিটার বাটারফ্লাই ইভেন্টে রেকর্ড গড়েন সোনিয়া। এ নিয়ে দুই দিনে সাঁতারে ৬ রেকর্ড হলো। প্রথম দিন ২০০ মিটার ব্যাকস্ট্রোকে জুয়েল আহমেদ, মেয়েদের ১০০ মিটার বাটারফ্লাইয়ে সোনিয়া ও ছেলেদের ১০০ মিটার বাটারফ্লাইয়ে মাহমুদুন্নবী নাহিদ রেকর্ড গড়েন।

সোনা জয়ের পথে ২০১৬ সালে গড়া নিজের পুরনো রেকর্ড ভেঙ্গেছেন পাবনা থেকে উঠে আসা সাগর। গতকাল সৈয়দ নজরুল ইসলাম জাতীয় সুইমিং কমপ্লেক্সে তার টাইমিং ছিল ১ মিনিট ৫৮.২৫ সেকেন্ড। ২০১৬ সালে তার রেকর্ড টাইমিং ছিল ১ মিনিট ৫৮.৪৪ সেকেন্ড। এ ইভেন্টে রুপা জিতেছেন সাগরের নৌবাহিনী সতীর্থ আসিফ। তার টাইমিং ছিল ২ মিনিট ০.৮২ সেকেন্ড। ব্রোঞ্জ জয়ী সেনাবাহিনীর ফয়সাল আহমেদের টাইমিং ২ মিনিট ২.৪৬ সেকেন্ড।

৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলে আসিফ সময় নিয়েছেন ২৩.৩২ সেকেন্ড। এ ইভেন্টে আগের রেকর্ড ছিল ২০১৯ সালে কুষ্টিয়ার এ সাঁতারুরই গড়া, ২৩.৮৫ সেকেন্ডের। ২৩.৯২ সেকেন্ড এ ইভেন্টে রুপা জিতেছেন মাহফিজুর। ব্রোঞ্জ জয়ী বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সিফাত উল্লাহর টাইমিং ছিল ২৪.৪০ সেকেন্ড। নারীদের ৫০ মিটার বাটারফ্লাই ইভেন্টে সোনা জয়ের পথে রেকর্ড গড়তে সোনিয়া সময় নেন ৩০.৬৩ সেকেন্ড। ২০১৬ সালে আগের রেকর্ড ছিল নাজমা খাতুনের, ৩১.১৭ সেকেন্ডের। নৌবাহিনীর সোনিয়া আক্তার ৩১.২০ সেকেন্ড সময় নিয়ে এ ইভেন্টে রুপা জিতেছেন। সেনাবাহিনীর ফাতেমা আক্তার ৩১.৮২ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছেন।

এছাড়া, নারীদের ২০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে জুনাইনা আহমেদ ২ মিনিট ২৩.৬০ সেকেন্ড সময় নিয়ে সোনা জিতেছেন। রুপা জয়ী তার নৌবাহিনী সতীর্থ সোনিয়া আক্তার টুম্পার টাইমিং ছিল ২ মিনিট ২৪.০১ সেকেন্ড। ২ মিনিট ৩৪.৪৭ সেকেন্ডে ইভেন্ট শেষ করা সেনাবাহিনীর শারমিন সুলতানা ব্রোঞ্জ জিতেছেন।

ছেলেদের ১০০ মিটার ব্যাকস্ট্রোকে সেনাবাহিনীর জুয়েল আহমেদের ১ মিনিট ১.৩৯ সেকেন্ড সময় নিয়ে সোনা জিতেছেন। ১ মিনিট ৩.১৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে রুপা জিতেছেন নৌবাহিনীর মামুনুর রশীদ। ব্রোঞ্জ জয়ী নৌবাহিনীর ন‚রে আলমের টাইমিং ১ মিনিট ৩.২৮। ২০০ মিটারের পর ১০০ মিটার ব্যাকস্ট্রোকেও সোনা জিতেছেন উদীয়মান যুথি আক্তার। নৌবাহিনীর এ সাঁতারু ১ মিনিট ১৪.২০ সেকেন্ড সময় নিয়েছেন। রুপা জয়ী সেনাবাহিনীর নাঈমা আক্তার সময় নিয়েছেন ১ মিনিট ১৫.৪৮ সেকেন্ড। ব্রোঞ্জ জয়ের পথে সুরাইয়া আক্তার সময় নিয়েছেন ১ মিনিট ১৭.৭১ সেকেন্ড।

আসিফের মতো রেকর্ড গড়তে না পারলেও নারীদের ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলে সোনা জিতেছেন তার স্ত্রী সোনিয়া। ২৯.৬৯ সেকেন্ড সময় নিয়ে সোনা জিতেছেন তিনি। নৌবাহিনীর আরেক সাঁতারু জুনাইনা আহমেদ ৩০.৩৯ সেকেন্ড সময় নিয়ে রুপা জিতেছেন। ব্রোঞ্জ জয়ী বিকেএসপির রুপা খাতুনের টাইমিং ছিল ৩১.৮৪ সেকেন্ড।

৫০ মিটার বাটারফ্লাই ইভেন্টে সোনা জিতেছেন নৌবাহিনীর মাহমুদুন্নবী নাহিদ। এ জন্য তার সময় লেগেছে ২৬.০২ সেকেন্ড। সেনাবাহিনীর জামরুল মিয়া ২৬.৫০ সেকেন্ড সময় নিয়ে রুপা জিতেছেন। নৌবাহিনীর অনিক ইসলাম ব্রোঞ্জ জিতেছেন ২৬.৫৭ সেকেন্ড সময় নিয়ে।
৪ গুণিতক ২০০ মিটার ফ্রিস্টাইল রিলে ইভেন্টে নারী ও পুরুষ দুই বিভাগে সোনা জিতেছে নৌবাহিনী। নারী ইভেন্টে লিমা আক্তার, সোনিয়া খাতুন, সুরাইয়া আক্তার ও সোনিয়া আক্তার টুম্পা সোনা জয়ের পথে সময় নেন ১০ মিনিট ১০.৪৩ সেকেন্ড। শারমিন সুলতানা, সবুরা খাতুন, চামেলি আক্তার ও নাঈমা আক্তারকে নিয়ে গড়া সেনাবাহিনী ১০ মিনিট ৩৪.১৯ সেকেন্ড সময় নিয়ে রুপা জিতেছে। ১০ মিনিট ৪৮.৭১ সেকেন্ডে ইভেন্ট শেষ করে ব্রোঞ্জ পায় বিকেএসপি।

ছেলেদের ইভেন্ট সাগর, কাজল, আসিফ ও পলাশকে নিয়ে গড়া নৌবাহিনী দল সময় নেয় ৮ মিনিট ১৬.৬০ সেকেন্ড। রুপা জয়ের পথে সিফাত উল্লাহ, জুয়েল আহমেদ, শাহিন আলম ও ফয়সাল আহমেদকে নিয়ে গড়া সেনাবাহিনী দল ৮ মিনিট ৪৩.৭২ সেকেন্ড সময় নেয়। ৯ মিনিট ৪৩.৯৩ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ পেয়েছে ভাটি বাংলা সুইমিং ক্লাব।

ডাইভিং ১ মিটার স্প্রিং বোর্ড ইভেন্টে ২৪৩ পয়েন্ট নিয়ে সোনা জিতেছেন নৌবাহিনীর সাদী মোহাম্মদ মহসিন। রুপা জয়ী বিকেএসপির মোহাম্মদ ইমন হোসেনের স্কোর ২৩১.৪৫। নৌবাহিনীর অনিক ইসলাম ব্রোঞ্জ জয়ের পথে ২২৮.৭৫ স্কোর গড়েন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আসিফ-সোনিয়া দম্পতি
আরও পড়ুন