Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ০৯ বৈশাখ ১৪২৮, ০৯ রমজান ১৪৪২ হিজরী

কুষ্টিয়ায় মাউশির আঞ্চলিক কার্যালয় চাই

চি ঠি প ত্র

| প্রকাশের সময় : ৭ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০৩ এএম

বর্তমানে দেশে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের ৯টি আঞ্চলিক কার্যালয় রয়েছে। খুলনা এগুলোর অন্যতম। খুলনা আঞ্চলিক কার্যালয়ের অধীনে রয়েছে ১০টি জেলা, ৫৯টি উপজেলা। প্রতিটি উপজেলায় গড়ে ৩০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হলে মোট দাঁড়ায় ১ হাজার ৭৭০টি (বাস্তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আরো বেশি)। ১ হাজার ৭৭০টির মধ্যে যদি ৩০শতাংশ প্রতিষ্ঠান থেকে আবেদন যায়, তাহলেও ফাইলের সংখ্যা দাঁড়ায় প্রায় ৫৩১টি (বাস্তবে আরো বেশি)। এতগুলো ফাইল পুঙ্খানুপুঙ্খ যাচাই-বাছাই করতে গিয়ে অনেক সময় কিছু কিছু ফাইল অনিষ্পত্তি অবস্থায় পড়ে থাকে। এছাড়া খুলনা আঞ্চলিক অফিসের অনেকেই এখন উৎকোচ-বাণিজ্যে জড়িয়ে পড়েছেন। টাকা দিলে সঙ্গে-সঙ্গে কাজ করে দেন, না দিলে অনেক সময় এমপিও ফাইল সঠিক থাকা সত্তে¡ও বাতিল করে দেন। কখনো কখনো অনিষ্পত্তি অবস্থায় ফেলে রাখেন। এমন অভিযোগ অহরহ শোনা যায়। তাছাড়া ভৌগোলিক অবস্থান বিবেচনা করলে কুষ্টিয়া জেলা খুলনা বিভাগের একেবারেই শেষপ্রান্তে অবস্থিত। কুষ্টিয়া থেকে খুলনার দূরত্ব ১৫৯ কিলোমিটার, সময় লাগে প্রায় ৫ ঘণ্টা। তাই খুলনা আঞ্চলিক অফিসের কাজের চাপ ও অব্যাহত দুর্নীতি হ্রাস করতে বৃহত্তর কুষ্টিয়ার তিনটি জেলা, পার্শ্ববর্তী ঝিনাইদহ ও মাগুড়া জেলা এই মোট পাঁচটি জেলা নিয়ে পৃথক একটি আঞ্চলিক কার্যালয় স্থাপন করা হলে দ্রুত সময়ে ফাইলগুলো নিষ্পত্তি হবে, পাশাপাশি শিক্ষক-কর্মচারীদের সময়, অর্থ ও ভোগান্তিও অনেক কম হবে। বিষয়টি বিবেচনার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।
সনি আহমেদ,
মিলপাড়া, কুষ্টিয়া।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চি ঠি প ত্র

২ নভেম্বর, ২০২০
১৮ জুলাই, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন