Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ০৩ আষাঢ় ১৪২৮, ০৫ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

মামুনুল হকসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা তদন্তের নির্দেশ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৭ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০১ এএম

হেফাজত ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হকসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের তারিখ আগামী ২৭ মে। গত ৫ এপ্রিল ঢাকার ওয়ারি এলাকার ব্যবসায়ী আরিফ-উজ-জামান বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। মামলায় হত্যাচেষ্টা ও বিস্ফোরক আইনসহ কয়েকটি ধারা প্রয়োগ করা হয়েছে। ঢাকার চীফ মেট্টোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ধীমান চন্দ্র মন্ডল মামলাটি গ্রহণ করে প্রতিবেদন দাখিলের তারিখ নির্ধারণ করেন।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমণের প্রতিবাদে বায়তুল মোকাররমে তান্ডবের ঘটনায় এ মামলা করা হয়। মামলায় মাওলানা মামুনুল হককে হুকুমের আসামি করা হয়েছে। অন্য আসামিরা হলেন, মাওলানা জুনায়েদ আল হাবিব, মাওলানা লোকমান হাকিম, নাসির উদ্দিন মনির, মাওলানা বাহাউদ্দিন জাকারিয়া, মাওলানা নূরুল ইসলাম জেহাদী, মাজেদুর রহমান, মাওলানা হাবিবুর রহমান, মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ আইয়ুবি, মাওলানা জসিম উদ্দিন, মাওলানা মাসুদুল করিম, মুফতি মনির হোসাইন কাশেমী, মাওলানা যাকারিয়া নোমান ফয়েজী, মাওলানা ফয়সাল আহমেদ, মাওলানা মুশতাকুন্নবী, মাওলানা হাফেজ মো. জোবায়ের ও মাওলানা হাফেজ মো.তৈয়ব।

এজাহারে বলা হয়েছে, ২৬ মার্চ বায়তুল মোকাররমে মামুনুল হকের নির্দেশে ১৭ হেফাজত নেতার নেতৃত্বে দেশি-বিদেশি আগ্নেয়াস্ত্রসহ দা, ছোরা, কুড়াল, কিরিচ, হাতুড়ি, তলোয়ার, লাঠিসোটাসহ অতর্কিত হামলা চালানো হয়। হামলায় আরিফ-উজ-জামান গুরুতর আহত হন।

আরিফ-উজ-জামান এজাহারে আরো উল্লেখ করেন, ২৬ মার্চ দুপুরে বায়তুল মোকাররম মসজিদে জুমার নামাজ পড়তে যান। নামাজ শেষে মসজিদ থেকে বের হয়ে উত্তর গেটের সিঁড়িতে কয়েক হাজার জামায়াত-শিবির-বিএনপি-হেফাজতের উগ্র মৌলবাদী ব্যক্তির বিশাল জমায়েত দেখতে পান। হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হকের নেতৃত্বে শীর্ষস্থানীয় জামায়াত-শিবির-বিএনপি-হেফাজত নেতারা ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে গোপন বৈঠকে মিলিত হয়ে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে দেশি-বিদেশি সরকারপ্রধান ও নারী প্রধানদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত কর্মসূচিকে বানচাল করা এবং ঢাকাসহ সারা দেশে ব্যাপক নৈরাজ্য সৃষ্টির পরিকল্পনা ও ষড়যন্ত্র করেন। সেই লক্ষ্যে সেখানে রাষ্ট্র ও সরকারবিরোধী নানা সেøাগান দেয়া হয়।

প্রসঙ্গত: ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরকে কেন্দ্র করে গত ২৬ মার্চ বায়তুল মোকাররমে বিক্ষোভ করে হেফাজতে ইসলাম। সেখানে পুলিশ ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষ হয় তাদের। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে চট্টগ্রামে হাটহাজারী মাদরাসার ছাত্ররা বিক্ষোভ মিছিল করেন। সেখানে পুলিশের গুলিতে চার ছাত্রের মৃত্যু হয়। ওই ঘটনায় শুক্রবার বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিক্ষোভ হয়। সেখানেও সংঘর্ষে একজনের মৃত্যু হয়। হামলা ও হত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ২৭ মার্চ বিক্ষোভ ও ২৮ মার্চ হরতাল পালন করে ইসলামী সংগঠনটি। হরতালে দেশব্যাপী হামলা, ভাঙচুর ও সড়ক অবরোধ করে হেফাজতের নেতাকর্মীরা।

 



 

Show all comments
  • Md Milon ৭ এপ্রিল, ২০২১, ২:১১ এএম says : 0
    Mamunul hok saheb aka non
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ ফজলে রাব্বী ৭ এপ্রিল, ২০২১, ২:১১ এএম says : 0
    গজব নাজিল হবে
    Total Reply(0) Reply
  • Saiful Islam ৭ এপ্রিল, ২০২১, ২:১২ এএম says : 1
    মামুনুল হক কে হেনস্তার দায়ে মামলা করা হোকওই হোটেল কর্তৃপক্ষের সবাই কে অসমি করে এবং সকল চক্রান্তের বিরুদ্ধে কঠিন ব্যবস্থা নেয়া হোক।
    Total Reply(0) Reply
  • সফিক আহমেদ ৭ এপ্রিল, ২০২১, ২:১৪ এএম says : 1
    যে মামলা করেছে তার ছবি টা সামনে অানা হোক
    Total Reply(0) Reply
  • Md Anowar Hossain ৭ এপ্রিল, ২০২১, ২:১৪ এএম says : 0
    লাভ হবে না।
    Total Reply(0) Reply
  • md jahid ৭ এপ্রিল, ২০২১, ৬:৫২ এএম says : 0
    ছাত্রলীগ এর হাতে যে অস্ত্র ছিল তার মামলার বিচার কে করবে জাতি জানতে চায়।
    Total Reply(0) Reply
  • Md. Altaf Hossain ৭ এপ্রিল, ২০২১, ৮:১৪ এএম says : 0
    হেফাজত ইসলামের পক্ষে কথা বলেন। আর ইসলাম আল্লাহর মনোনিত দিন। দেশের আলেম ওলামাদের বিরুদ্বে মিথ্যা মামলা, হামলা দিয়ে ইসলামের অগ্রযাত্রা রোধ করা যাবেনা। ইসলাম এটা আল্লাহর পক্ষ থেকে আর এটার হেফাজত আল্লাহ নিজে করবেন। তাই আলেম ওলামাদের বিরুদ্বে মিথ্যা মামলা হামলা করা এটা দেশের তৌহিদী জনতা কোন ভাবেই মেনে নেবেনা । এ থেকে সবার সরে আসা উচিত।
    Total Reply(0) Reply
  • Jack+Ali ৭ এপ্রিল, ২০২১, ১২:১০ পিএম says : 0
    Stop all these Drama. We know all these filthy drama staged by the ruler. Alem's are inheritor of Rasul. Those who figh them, Allah will fight them and their punishment Allah mentioned in the Qur'an in this world and hereafter: সুরা আল-মাইদাহ: আয়াত:5:33 নিশ্চয়ই আল্লাহ ও তাঁর রসূলের সাথে সংগ্রাম করে এবং দেশে হাঙ্গামা সৃষ্টি করতে সচেষ্ট হয়, তাদের শাস্তি হচ্ছে এই যে, তাদেরকে হত্যা করা হবে অথবা শূলীতে চড়ানো হবে অথবা তাদের হস্তপদসমূহ বিপরীত দিক থেকে কেটে দেয়া হবে অথবা দেশ থেকে বহিষ্কার করা হবে। এটি হল তাদের জন্য পার্থিব লাঞ্ছনা আর পরকালে তাদের জন্যে রয়েছে কঠোর শাস্তি।
    Total Reply(0) Reply
  • RAKIBUL HASAN ৯ এপ্রিল, ২০২১, ৬:১৭ এএম says : 0
    আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার, বিস্ফোরণ এগুলো কারা করেছে? আমরাতো দেখেছি এইসমস্ত কর্ম সম্পাদিত হয়েছে সরকারদলীয় নেতা-কর্মীদের দ্বারা। তাহলে হেফাজতের উপর মামলা করা হল?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হেফাজত ইসলাম


আরও
আরও পড়ুন