Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ জুন ২০২১, ০৬ আষাঢ় ১৪২৮, ০৮ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

ফুলপুরে গরম বাতাসে কপাল পুড়ছে কৃষকের, শত হেক্টর জমির ফসল নষ্ট!

ফুলপুর (ময়মনসিংহ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৮ এপ্রিল, ২০২১, ৫:১২ পিএম

ময়মনসিংহের ফুলপুরে গত রোববার সব ঠিকঠাক ছিল। সবুজ ধানগাছে আধাপাকা শীষ কোরক মেলেছে; আর মাত্র দু-তিনসপ্তাহ পর সোনালী ধান ঘরে তোলার প্রহর গুণছিলেন কৃষক। ভালো ফলনে তাদের চোখেমুখে ছিল প্রশান্তির ছাপ। কিন্তু রবিবার রাতের প্রচণ্ড ঝড়ের সঙ্গে গরম বাতাস সবকিছু ওলটপালট করে দিয়ে গেছে। সোমবার সকাল থেকে ধানগাছের সবুজ পাতা ও শীষ বিবর্ণ হতে হতে এখন সেগুলো দেখা যায় একেবারে সাদা। আচমকা এমন অবস্থা দেখে ফসলের ব্যাপক ক্ষতির আশংকায় এখন দিশেহারা কৃষক।রাতের গরম বাতাসে বিশেষ করে ব্রি-২৬ ও ২৮ ধানের শীষ মরে সাদা হয়ে গেছে। ওই ধান গাছে কোনো চাল নেই। সব চিটা হয়ে গেছে। ফসলের উপর তাদের সংসারের ব্যয়ভার মিটিয়ে অতিরিক্ত ধান বিক্রি করে সংসারের অন্যান্য খরচ নির্বাহ করে থাকেন তারা। কিন্তু আচমকা গরম হাওয়ায় মিলিয়ে গেছে কৃষকদের সোনালী স্বপ্ন।
ফুলপুর উপজেলার ১০ টি ইউনিয়নে ১শ হেক্টর জমিতে এই সমস্যা দেখা দিয়েছে বলে উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়। আচমকা বয়ে যাওয়া গরম বাতাসে শত হেক্টর জমির বোরো ফসল নষ্ট হয়ে যাওয়ায় লক্ষমাত্রা অর্জন ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

কৃষক জালাল উদ্দিন, নুরুল হকসহ কয়েকজন জানান, 'এমন দৃশ্য আমরা এই জন্মেও দেখিনি। বাপ-দাদার কাছ থেকেও কখনও শুনিনি। শুনেছি মানুষের গায়ে কু-বাতাস লাগে। ধানেও যে এমনটা হয় কখনও ভাবিনি। সব ধান চিটা হয়ে গেছে। এই কু-বাতাস আমাদের সর্বস্বান্ত করে দিয়ে গেল।'

ফুলপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, এটা কোন রোগ নয় বরং এটা একটা প্রাকৃতিক দুর্যোগ। হঠাৎ করে তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ার কারণে যে ফ্লাওয়ারগুলোর মুখ বের হয়েছে বা বের হওয়ার পর্যায়ে ছিল, সেগুলোর পরাগায়ন সঠিকভাবে হয়নি। সে কারণে ধানগুলো চিটা হয়ে গেছে। বিশেষ করে ব্রি ২৬ ও ২৮ ধানের উপর দিয়ে এ দুর্যোগ বয়ে গেছে। এটা শুধু আমাদের ফুলপুরে নয় দেশের অন্যান্য স্থানেও এ ধরনের সমস্যা দেখা দিয়েছে। পুরাতন জাতগুলো বিশেষ করে ব্রি ২৬ ও ২৮ ধানটা খুবই সেন্সেটিভ। ওই ধানগুলো গরম ও দমকা হাওয়াটা সহ্য করতে না পেরে এ অবস্থা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কৃষি


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ