Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ৫ বৈশাখ ১৪২৮, ০৫ রমজান ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

চিকিৎসা রয়েছে ভ্যাকসিনের বিরল পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০১ এএম

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের বিরূপ প্রতিক্রিয়ায় অনেক খবরই বিশ^জুড়ে ছড়িয়ে পড়ছে। কিছু লোকের মধ্যে ফাইজার-বায়োএনটেক ভ্যাকসিন জনিত অ্যানাফিল্যাক্সিস নামক অ্যালার্জি দেখা দিচ্ছে। আবার অনেকের শরীরে অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন জনিত রক্ত জমাট বাঁধার খবর পাওয়া যাচ্ছে। তবে এসব ঘটনাই বিরল, যা লাখে বা কোটিতে একটি। সৌভাগ্যক্রমে, এসব পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার সফল চিকিৎসা ব্যবস্থা রয়েছে।

ফাইজার-বায়োএনটেক ভ্যাকসিন জনিত অ্যানাফিল্যাক্সিস থেকে এখনও পর্যন্ত কোনো প্রাণহানির ঘটনা ঘটেনি। ফাইজার ভ্যাকসিন গ্রহণকারীদের ১৫ মিনিটের জন্য স্থির থাকতে বলা হয়েছে। ৭ এপ্রিল ব্রিটেনের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের ওষুধ নিয়ন্ত্রণকারী ইউরোপীয় মেডিসিন এজেন্সি (ইএমএ) উভয়ই বলেছে যে, অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি ভ্যাকসিন থেকে অতি বিরলভাবে মস্তিষ্ক বা পেটে রক্ত জমাট বাঁধার সম্ভাবনা রয়েছে।

২২ মার্চ পর্যন্ত ইএমএ’র তথ্যে বলা হয়েছে, ইউরোপে অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন থেকে ৬০ বছরের কম বয়সীদের মধ্যে প্রতি বছর প্রতি ১০ হাজারে ০.২২ শতাংশ থেকে ১.৫৭ শতাংশের মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বাঁধার ঘটনা রয়েছে। তবে, এ জাতীয় দুর্লভ পাশর্^প্রতিক্রিয়া দেশ, বয়স এবং লিঙ্গ অনুসারে পরিবর্তিত হয় এবং তরুণ এবং মহিলাদের মধ্যে বেশি দেখা যায়। ইএমএ এবং ব্রিটেনের ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা উভয়ই এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছে যে, ভ্যাকসিনের সুবিধা রক্ত জমাট বাঁধা বা বøাড ক্লটসের সম্ভাব্য ঝুঁকির চেয়েও অনেক বেশি।

ব্রিটেনের চিকিৎসকরা তাদের গবেষণায় জানতে পেরেছেন যে, ভ্যাকসিন জনিত ক্লট্স এর অনেক রোগীর রক্তে প্ল্যাটেলেট অস্বাভাবিক মাত্রায় কম ছিল। কম প্লেটেলেট স্তরগুলির ফলে সাধারণত অনিয়ন্ত্রিত রক্তপাত হয়, রক্ত জমাট বাঁধতে পারে না। প্রতি ১০ লাখের মধ্যে মাত্র ৪টি এমন রোগী পাওয়া গেছে। এর ব্যাখ্যা হ’ল ব্রিটেন বাকি ইউরোপের মতো নয় এবং প্রাথমিকভাবে বয়স্ক ব্যক্তিদের মধ্যে ভ্যাকসিন ব্যবহার করেছিল।

ব্রিটিনের বিশেষজ্ঞরা জানতে পেরেছেন যে, তাদের দেশে নারী ও পুরুষদের মধ্যে ক্লট বাঁধার হার সমান। বোস্টনের ব্রিগহাম ও উইমেন্স হসপিটাল এর চিকিৎসা বিশেষজ্ঞ জিন মেরি কনার্স বলেছেন, ‘কম প্লেটলেট এবং বøাড ক্লট-এর সমন্বয় এমন একটি বিষয়, যা চিকিৎসকরা নির্ণয় করতে এবং চিকিৎসা করতে জানেন।’

বেশ কয়েকটি দেশের মেডিকেল সোসাইটি ইতোমধ্যে অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিনের বিরল প্রতিক্রিয়াটি কীভাবে চিহ্নিত করা যায় এবং কীভাবে চিকিৎসা করা যায় সে সম্পর্কে চিকিৎসকদের প্রতি নির্দেশিকা জারি করেছে। তারা বলেছেন যে, যথাযথ সতর্কতা এবং যতেœর মাধ্যমে ভ্যাকসিন জনিত বিরল পাশ^প্রতিক্রিয়া এবং মৃত্যু আরও বিরল হয়ে উঠবে। সূত্র : দ্য ইকোনোমিস্ট।

 

 

 



 

Show all comments
  • মহীয়সী বিন্তুন ৯ এপ্রিল, ২০২১, ১:১৩ এএম says : 0
    Monirul Islam সরকারের উপর জনগনের আস্থা নেই!যেন কোন লকডাউন কারফিউ দিলেও তেমন কোন কাজ হবে বলে মনে হয়না।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Khelafat Hossain ৯ এপ্রিল, ২০২১, ১:১৩ এএম says : 0
    দ্রুত ফাইজার টিকা আনা উচিত।
    Total Reply(0) Reply
  • Habib Mokul ৯ এপ্রিল, ২০২১, ১:১৩ এএম says : 0
    আল্লাহ সুবহানাহু ওয়াতাআ'লা পৃথিবীর সবাইকে করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা করুক, আমীন।
    Total Reply(0) Reply
  • Atik Hasan Mukta ৯ এপ্রিল, ২০২১, ১:১৩ এএম says : 0
    বাংলাদেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রীর পরামর্শ ও সহযোগিতা নিতে বলুন তাহলেই হবে। বিশ্বের এক মাত্র দেশ যে দেশ করোনার চেয়েও শক্তি শালি। চিকিৎসা ব্যাবস্থায় বিশ্বের এক নাম্বার, উন্নয়নের দিক দিয়ে এক নাম্বার।
    Total Reply(0) Reply
  • Armina Akter ৯ এপ্রিল, ২০২১, ১:১৩ এএম says : 0
    যে ভ্যাকসিন এ কাজ হবে সেটা আনার চেষ্টা করতে হবে
    Total Reply(0) Reply
  • Jack+Ali ৯ এপ্রিল, ২০২১, ১১:৪৯ এএম says : 0
    We are powerful than corona virus because of our pm, we don't need lockdown or vaccine.
    Total Reply(0) Reply
  • Muminul ৯ এপ্রিল, ২০২১, ৫:১২ পিএম says : 0
    Bangladesh ki lockdown dilo naki binodoner chuti dilo. Montrider age lockdown kare bole jana uchit. Bangladesh shongsoshode purai pagol ar sagole vora
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভ্যাকসিন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ