Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ০৯ আষাঢ় ১৪২৮, ১১ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

সাতকানিয়ায় কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে যুবককে হত্যা

সাতকানিয়া (চট্টগ্রাম) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৯ এপ্রিল, ২০২১, ৮:৩১ এএম

দক্ষিণ চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় বন্ধুকে উদ্ধার করতে গিয়ে পূর্ব বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের কুড়ালের কোপে মো. তারেক (২৬) নামে এক যুবক খুন হয়েছে। তিনি উপজেলার ছদাহা ইউনিয়নের মুহুরী পাড়ার ছিদ্দিক আহমদের ছেলে। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার ছদাহা ইউনিয়নের নুনু চৌধুরী বাজাররে উত্তর পাশের মাঝের পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার ছুরিকাঘাতে ছদাহা ইউনিয়েনের মুহুরী পাড়ার শাহ আলমের ছেলে মো. হেলাল উদ্দিন (২২) ও একই ইউনিয়নের হাসমত আলী চকিদাররে দোকান এলাকার ভূঁইয়া বাড়ির মো. এনামুল হকের ছেলে মো. শহিদ (২২) বেধড়ক পিটুনিতে গুরুতর আহত হয়েছেন অপর দুই বন্ধু। বর্তমানে তারা চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। খুন হওয়া তারেকের চাচাতো ভাই ফরহাদ ইসলাম জানান, ছদাহা ইউনিয়নের নুনুর বাপের হাট এলাকার মিনহাজ ও জুয়েল নামে দুই যুবকের সাথে বিগত এক বছর ধরে নিহত তারেকের বন্ধু শহিদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে চাকরির কারণে শহিদ নুনুর বাপের হাটে গেলে তাকে আটক করে মিনহাজ ও জুয়েলসহ তাদের সাঙ্গ-পাঙ্গরা বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। খবর পেয়ে নিহত তারেক ও তার তিন বন্ধু হেলাল, আবদুল্লাহ ও রকিবকে সাথে নিয়ে সিএনজি অটো রিক্সা যোগে ঘটনাস্থলে গেলে সেখানে মিনহাজরা প্রথমে তারেককে কুড়াল দিয়ে দুই পায়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে ফেলে চলে যায়। এ সময় হামলাকারীদের ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হন হেলাল। অপরদিকে, অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তারেক ঘটনাস্থলে মারা যান। এ খবর তারেক ও তার বন্ধুদের পরিবারে পৌঁছলে তাদের ঘটনাস্থল থেকে মৃত তারেক আহত হেলাল ও শহিদকে উদ্ধার করে কেরানীহাটের একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে আসে। পরে গুরুতর আহত দুইজনকে চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সাতকানিয়া থানার ওসি আনোয়ার হোসেন বলেন, প্রাথমিক ভাবে পূর্ব বিরোধের জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে। লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। গুরুতর আহত দুইজনকে চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অপরাধীদের ধরার জন্য ইতিমধ্যে পুলিশ কাজ শুরু করেছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কুপিয়ে হত্যা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ