Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ২৪ বৈশাখ ১৪২৮, ২৪ রমজান ১৪৪২ হিজরী

নারী-পুরুষ পক্ষপাত করছে ফেসবুক!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ এপ্রিল, ২০২১, ৫:০৪ পিএম

একই স্থানে পুরুষ ও নারীদের জন্য চাকরির পৃথক বিজ্ঞাপন দেখাচ্ছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই ধরনের বিজ্ঞাপন বৈষম্য বিরোধী আইনের চোখে অপরাধ। সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়ার গবেষকরা ফেসবুক ও লিঙ্কডইনের বিজ্ঞাপনের অ্যালগরিদম নিয়ে গবেষণা করার সময় জানতে পেরেছেন চাকরির বিজ্ঞাপনে লিঙ্গ-পক্ষপাতদুষ্ট ফলাফল দেখাচ্ছে ফেসুবুক।

ছেলেদের ক্ষেত্রে ডমিনোজ পিজা ডেলিভারির মতো চাকরির বিজ্ঞাপন বেশি দেখিয়েছে তারা। অন্যদিকে মহিলাদের জন্য দেখিয়েছে ইন্সটাকার্ট শপারের বিজ্ঞাপন। পাশাপাশিই আবার বেশি বেতনের ইঞ্জিনিয়ারিং চাকরির ক্ষেত্রেও লিঙ্গ-পক্ষপাতদুষ্ট চাকরির বিজ্ঞাপন দেখিয়েছে ফেসবুক। নেটফ্লিক্স, এনভিডিয়ার মতো কোম্পানিতেও একই ধরনের ফলাফল নজরে এসেছে। যদিও লিঙ্কডইনে চাকরির বিজ্ঞাপন দেখানোর সময় লিঙ্গ-পক্ষপাতদুষ্টতার কোনও প্রমাণ এখনও পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।

গবেষণার প্রকাশক আলেকজান্দ্রা কোরোলোভা বলছেন, ‘সচরাচর ফেসবুকে গ্রাহকেরা যা পছন্দ, তাই ঘুরিয়ে ফিরিয়ে তার সামনে নিয়ে আসা হয়। এমন পরিস্থিতিতে কোনও গ্রাহক যে ধরনের বিজ্ঞাপন বেশি করে দেখে থাকেন, সেই ধরনের চাকরি সংক্রান্ত বিজ্ঞাপনই তার কাছে বারংবার দেখানো হচ্ছে। সেই সঙ্গেই আবার ফেসবুক তার নিজস্ব কিছু পছন্দের ভিত্তিতেও বিজ্ঞাপন দেখাচ্ছে, যা একপ্রকার ভাবাই যায় না।’

চতুর্দিক থেকে অভিযোগ জমা হওয়ার পরই একপ্রকার বাধ্য হয়ে বিবৃতি জারি করে ফেসবুক। সেখানে এই সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট লিখছে, ‘লিঙ্গ-পক্ষপাতদুষ্ট বিজ্ঞাপন দেখানো হলে কোম্পানির তরফে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ পাশাপাশিই ফেসুবুক আরও বলছে, ‘গ্রাহককে সঠিক বিজ্ঞাপন দেখানোর জন্য আমাদের সিস্টেম বিভিন্ন ধরনের তথ্য যাচাই করে। এর ফলে গ্রাহককে তার পছন্দের বিজ্ঞাপন দেখানো সম্ভব হয়। তবে গবেষণাপত্রে প্রকাশিত রিপোর্টের উদ্বেগ আমরা বুঝতে পেরেছি এবং সেই মোতাবেক ব্যবস্থাও নেয়া হবে।’

২০১৯ সালে একটি আইনি সমঝোতার পরে বিজ্ঞাপন দেখানোর ব্যবস্থা ঢেলে সাজানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল মার্ক জা়কারবার্গের এই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম। সেই সময়ে ফেসবুকের তরফে জানানো হয়েছিল যে, এবার থেকে আর হাউজিং, চাকরি ও আর্থিক ক্ষেত্রে এমন বিজ্ঞাপন দেখানো হবে না, যেখানে বয়স, লিঙ্গ অথবা ঠিকানার কারণে ইউজারদের পক্ষপাতদুষ্ট করা হয়। এছাড়াও গায়ের রং, জাতি বিভেদ ছাড়াই বিজ্ঞাপন দেখানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল মার্কিন এই সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট।

প্রতিশ্রুতি সত্ত্বেও সুরাহা মেলেনি। নির্দিষ্ট গ্রাহকের জন্য বিশেষ বিজ্ঞাপন দেখানোয় বিশেষজ্ঞ ফেসবুক। তাই এই ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি হলে কোম্পানির রোজগারে থাবা বসতে পারে এবং সে ক্ষেত্রে সড়সড় সমস্যার সম্মুখীন হতে পারে ফেসবুক। গ্রাহকের ইন্টারনেট ব্যবহারের ধরন পর্যালোচনা করেই নির্দিষ্ট বিজ্ঞাপন দেখায় মার্ক জ়াকারবার্গের সোশ্যাল মিডিয়া কোম্পানিটি। আর ফেসবুকের বিজ্ঞাপন ক্ষেত্রে এমন মডেলের জন্যই, বিজ্ঞাপন দেখানোর সময় পক্ষপাতদুষ্ট হতে হচ্ছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের। সূত্র: টিওআই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফেসবুক


আরও
আরও পড়ুন