Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০১ জৈষ্ঠ্য ১৪২৮, ০২ শাওয়াল ১৪৪২ হিজরী

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ছবি ও ভিডিও ফুটেজ দেখে বিএনপি-হেফাজতের ৬০ নেতাকর্মী গ্রেফতার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ এপ্রিল, ২০২১, ৭:৩০ পিএম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতে ইসলামের বিক্ষোভ চলাকালে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় নতুন করে আরও ৬০ জনকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সোমবার বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় হওয়া মামলায় এখন পর্যন্ত ১৬৮ জনকে গ্রেফতার করা হলো। গ্রেফতার ব্যক্তিদের মধ্যে বিএনপি, জামায়াত ও হেফাজতের ১৬ জন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি রয়েছে। তাদের মঙ্গলবার জেলা আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। সহিংসতার ঘটনায় পুলিশ স্থিরচিত্র ও ভিডিও ফুটেজ পর্যালোচনা করে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের শনাক্ত করছে।

গ্রেফতার ব্যক্তিদের মধ্যে ১৬ জনের পরিচয় জানা গেছে। তারা হলেন-নবীনগর উপজেলা বিএনপির সদস্য সফিউল্লাহ মিয়া (৪০), ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক আহ্বায়ক কামরুল হাসান (২৮), ছাত্রদলের সদস্য মো. পলাশ (২৬), হেফাজতের সমর্থক ফুল মিয়া (৩৩), রফিকুল ইসলাম (৩০), মো. মেরাজ (১৯), মো. আশিক (২০), জুনাইদ (২১), দুলাল মিয়া (৩৯), শাহজাহান মিয়া (৫১), রাকিবুল হাসান (২৩), মো. শামীম (৩০), মো. সুজন (২২) ও রবিন মিয়া (১৮), নাসিরনগর উপজেলার ধরমন্ডলের দুলাল মিয়া (২৯) ও শহরের মধ্যপাড়ার জামায়াতকর্মী লিয়াকত আলী (৩৫)। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) মো. রইছ উদ্দিন বলেন, সোমবার পুলিশের বিশেষ অভিযানে ৬০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে বিএনপি, জামায়াত ও হেফাজতের কর্মী-সমর্থকদের গুরুত্বপূর্ণ ১৬ জন আছেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত ২৬, ২৭ ও ২৮ মার্চে তাণ্ডবের ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় ৪৩টি, আশুগঞ্জ থানায় ৩টি ও সরাইল থানায় দুটি ও রেলওয়ে থানায় একটিসহ মোট ৪৯টি মামলা হয়েছে। এসব মামলায় ২৮৮ জন এজাহার নামীয় আসামিসহ অজ্ঞাতনামা ৩০-৩৫ হাজার মানুষকে আসামি করা হয়েছে। এর মধ্যে মাত্র ২৮৮ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। বাকি সবাই অজ্ঞাতনামা। ৪৯টির মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় ৪৩টি, আশুগঞ্জ থানায় তিনটি, সরাইল থানায় দুটি ও আখাউড়া রেলওয়ে থানায় একটি মামলা হয়।



 

Show all comments
  • মোঃ+দুলাল+মিয়া ১৩ এপ্রিল, ২০২১, ৮:৪৯ পিএম says : 0
    আওয়ামী লীগ বাকশালি সরকার মনে মনে তেতুলের আচার খাইতেছে????????আর খুলিতে খুশিতে হাঁটতে হাঁটতে বড় বড় ফাঁদ মারে ????????তারা মনে করতেছে এবারে আবার ক্ষমতায় যাবে এই খুশিতে চোপড় সব কিছু বরবাদ করতেছে।???? মনে করিয়াছে হুমকি দমকি আবল তাবল করে কেন মতে ক্ষমতায় যাবে।রসমলাই খাইয়া হেফাজতের আর বি এন পির লোকের পিছনে ছুটছে। আমি মনে করি এবারের ক্ষমতা তেতুলের মতো হবে একটু একটু টক টক হবে।তার কারন জনগণের অধিকারের জন্য জনগণ মিষ্টি মুখ করে বসে আছে।সময় মতো জনগণ জবাব দিবে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ব্রাহ্মণবাড়িয়া

৩ এপ্রিল, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ