Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ৩১ বৈশাখ ১৪২৮, ০১ শাওয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

কাউকে ঘরের বাইরে দেখতে চাই না

মুভমেন্ট পাস অ্যাপসের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আইজিপি বিকালের মধ্যেই ২৫ লাখ আবেদন সাংবাদিকদের ‘মুভমেন্ট পাস’ লাগবে না

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৪ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০২ এএম

মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে আমরা বিনা প্রয়োজনে কাউকে ঘরের বাইরে দেখতে চাই না। প্রয়োজনে ঘরের বাইরে গেলে মাস্ক পরতে হবে এবং ঘরে ফিরে স্যানিটাইজার দিয়ে পরিষ্কার হবেন। আপনার মাধ্যমে যেন আপনার প্রিয়জন করোনায় সংক্রমিত না হন, সেদিকে লক্ষ রাখতে হবে। গতকাল মঙ্গলবার রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে মুভমেন্ট পাস অ্যাপসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ। আজ ১৪ এপ্রিল থেকে কার্যকর হচ্ছে সরকারি কঠোর বিধিনিষেধ। ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত চলবে এ বিধিনিষেধ।

তিনি বলেন, হাতিরঝিলসহ অন্যান্য জায়গায় আপনারা জটলা করে আড্ডা দেবেন না। অভিভাবকদের অনুরোধ করব, আপনারা সন্তানদের ঘর থেকে বের হতে দেবেন না। যদি খুব দরকার হয়, তাহলে পাস নিয়ে নিন। পুলিশ বের হওয়ার কারণ জানতে চাইলে তাকে পাস দেখান।
আইজিপি বলেন, এ দিনগুলোতে অপ্রয়োজনীয় মুভমেন্ট বন্ধ করতে হবে। গত বছর সাধারণ ছুটি দেয়ার পর অনেকেই একসঙ্গে গ্রামের বাড়িতে গিয়ে সংক্রমণের শঙ্কা বাড়িয়েছেন। এবারও ঠিক তাই করছেন। আমি গ্রামবাসীকে অনুরোধ করব, যারা ঢাকা থেকে গ্রামে গেছেন, তাদের আইসোলেটেড করুন। তারা যেন অন্যকে ইনফেক্টেড করতে না পারে।

এ পাসের অপব্যবহার হবে কি না? জানতে চাইলে আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ বলেন, মহামারির মধ্যেও কেউ যদি বাইরে বের হওয়ার জন্য প্রতারণা করেন তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা নেব। অতি প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে এটি ব্যবহার করা যাবে। এক ফোন নম্বর ও একটি গাড়ির নম্বর প্লেট দিয়ে একবার আবেদন করা যাবে। তবে প্রথমে কতজন এ পাস পাবে সেই সংখ্যা নির্ধারণ করা নেই। যে কেউ গুরুত্বপূর্ণ প্রয়োজনে পাস নিতে পারবেন।

স¤প্রতি সময়ে সাংবাদিকদের ওপরে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হবে কিনা জানতে চাইলে আইজিপি বলেন, আমি ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবকে আর্থিক সহযোগিতা করেছি। দু’জন সাংবাদিককে বলেছি মামলা করতে। আমরা তাদের সহযোগিতা করেছি।
থানা পুলিশের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এটা জাতীয় কোনো ইস্যু না। স্থানীয় প্রশাসন মনে করেছে তাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা বাড়ানো প্রয়োজন, তাই করা হয়েছে।

যেভাবে আবেদন করা যাবে মুভমেন্ট পাসের
করোনাভাইরাস প্রতিরোধে চলমান লকডাউনে মানুষের অনিয়ন্ত্রিত ও অপ্রয়োজনীয় চলাচল রোধে এবং জরুরি বিশেষ প্রয়োজনে যাতায়াত নিশ্চিত করতে পুলিশে চালু হয়েছে ‘গঙঠঊগঊঘঞ চঅঝঝ’ অ্যাপস। দেশের যেকোনো নাগারিক এ অ্যাপসটির মাধ্যমে কয়েকটি তথ্য দিয়ে খুব সহজইে এ পাস সংগ্রহ করতে পারবেন। এ অ্যাপসটি ব্যবহার করলে একদিকে যেমন জরুরি প্রয়োজনে নাগরিকদের চলাচল নিশ্চিত করা যাবে, অন্যদিকে মানুষের অপ্রয়োজনীয় ও অনিয়ন্ত্রিত চলাচলও বন্ধ করা যাবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। কঠোর লকডাউনে জরুরি প্রয়োজন বাসা থেকে বের হয়ে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যেতেই লাগবে মুভমেন্ট পাস। যে কেউ তার প্রয়োজেন বিষয় জানিয়ে এ অ্যাপস আবেদন করলেও যৌক্তিক কারণে নির্দিষ্ট গন্তব্যে যাতায়াত করতে পাওয়া যাবে পাস।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মুদি দোকানে কেনাকাটা, কাঁচা বাজার, ওষুধপত্র, চিকিৎসা, চাকরি, কৃষিকাজ, পণ্য পরিবহন ও সরবরাহ, ত্রাণ বিতরণ, পাইকারি/খুচরা ক্রয় পর্যটন, মরদেহ সৎকার, ব্যবসা ও অন্যান্য ক্যাটাগরিতে দেয়া হবে এ পাস। যাদের বাইরে চলাফেরা প্রয়োজন কিন্তু কোনো ক্যাটাগরিতেই পড়েন না তাদের ‘অন্যান্য’ ক্যাটাগরিতে পাস দেয়ার বিষয়ে বিবেচনা করা হবে। সড়কে কোথাও চলাচলের কারণে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হলে এ পাস দেখালেই তার পরিচয় নিশ্চিত হয়ে যেতে দেয়া হবে। এছাড়াও কোনো ব্যক্তির বাবা-মা/পরিবারের কেউ যদি অন্য জেলায় মারা যান, তবে তিনি অ্যাপের মাধ্যমে সুনির্দিষ্ট কারণ দেখিয়ে পাসের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আবেদন যৌক্তিক হলে মুহূর্তেই তিনি পাস পেয়ে যাবেন।

বিকাল মধ্যেই ২৫ লাখ আবেদন
লকডাউনে বাইরে যেতে মুভমেন্ট পাস নেয়ার হিড়িক পড়েছে। মঙ্গলবার দুপুরের পুলিশের পক্ষ থেকে এই ব্যবস্থার উদ্বোধন করা হয়। এর পর বিকাল পাঁচটার মধ্যেই প্রায় ২৫ লাখ পাসের আবেদন করা হয়েছে। অ্যাপটি উদ্বোধনের পর প্রথম ঘণ্টায় আবেদন জমা পড়েছে ১ লাখ ২৫ হাজার। পরে এটি আরো দ্রুত বাড়তে থাকে। বিকালের দিকে অতিরিক্ত চাপের কারণে অ্যাপটিতে অনেকে প্রবেশ করতে পারছেন বলে জানিয়েছেন।
পুলিশ সদর দপ্তরের ডিআইজি হায়দার আলী খান বিকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে জানান, পাঁচটা পর্যন্ত প্রায় ২৫ লাখ আবেদন পড়েছে। আবেদনের সংখ্যা দ্রুত বাড়ছে। এখন প্রতি মিনিটে প্রায় ১৫ হাজার আবেদন জমা পড়ছে। আবেদনগুলো তাৎক্ষণিকভাবে যাচাই বাছাই করে আবেদনের বিপরীতে একটি করে মুভমেন্ট পাস দেয়া হচ্ছে।
সাংবাদিকদের ‘মুভমেন্ট পাস’ লাগবে না

জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হতে পুলিশের চালু করা ‘মুভমেন্ট পাস’ সাংবাদিকদের ক্ষেত্রে প্রয়োজন পড়বে না।
আইজিপি বলেন, যাদের একান্তই বাইরে যাওয়া প্রয়োজন হবে, তাদের জন্য মুভমেন্ট পাসের ব্যবস্থা করেছে পুলিশ। এক স্থান থেকে অন্যস্থানে যাতায়াতের জন্য অফিসিয়াল কিংবা জরুরি প্রয়োজনে ‘মুভমেন্ট পাস’ নেয়া লাগবে। তবে এক্ষেত্রে সাংবাদিকদের এ পাস নেয়া লাগবে না।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

১২ মে, ২০২১
১২ মে, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ