Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ৩১ বৈশাখ ১৪২৮, ০১ শাওয়াল ১৪৪২ হিজরী

লকডাউনেও বিধিনিষেধ মেনে চলবে নাটকের শুটিং

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ এপ্রিল, ২০২১, ১২:৩৭ পিএম

করোনা সংক্রমণ রোধে আজ (১৪ এপ্রিল) থেকে সারা দেশে শুরু হয়েছে লকডাউন। এ সময় অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাসা বা বাড়ি থেকে কেউ বাইরে বের হতে পারবে না। যান চলাচল থেকে শুরু করে বিভিন্ন বিষয়ে আরোপ করা হয়েছে বিধিনিষেধ। সরকারি নির্দেশনায় বন্ধ থাকবে অফিস আদালত। বাইরে বের হতেও প্রয়োজন হবে পুলিশের ‘মুভমেন্ট পাস’। করোনা রোধে সরকারের এসব বিধিনিষেধের মধ্যেও টেলিভিশন নাটকের শুটিং চলবে।

টেলিভিশনের পাঁচটি সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে এ তথ্য। সংগঠনগুলো হলো- এফটিও, টেলিপ্যাব, ডিরেক্টরস গিল্ড, অভিনয়শিল্পী সংঘ, টেলিভিশন নাট্যকার সংঘ। সংগঠনগুলো শুটিং করার জন্য বিশেষ কিছু নির্দেশনাও দিয়েছে। এ সময় শুটিং করার জন্য পরিচালক, শিল্পী ও কুশলীদের সেসব নির্দেশনা মেনে কাজ করতে হবে।

ডিরেক্টরস গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক এস এম কামরুজ্জামান সাগর গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী শুটিংয়ের বিষয়ে নিষেধাজ্ঞার কথা কিছু বলা নেই। তারপরও শুটিংয়ের বিষয়ে নিরুৎসাহিত করছি আমরা। এদিকে সামনে ঈদ থাকায় কিছু পরিচালকের কাজ অসমাপ্ত রয়ে গেছে। তাদের কথা বিবেচনা করে বিধিনিষেধ দিয়ে কাজের জন্য অনুমতির সিদ্ধান্ত দিয়েছে সংগঠনগুলো।

যে শর্তগুলোর কথা বলছে আন্তসংগঠন:
১. আন্তঃসংগঠনের দেয়া স্বাস্থ্য বিধি কঠোরভাবে মেনে কাজ শেষ করতে হবে।
২. দৃশ্য ধারণের আগে সংশ্লিষ্ট ইউনিট প্রধান সকল শিল্পী কলাকুশলীর তাপমাত্রা পর্যবেক্ষণ এবং শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে সর্বশেষ তথ্য অবহিত থাকবেন।
৩. করােনার এই তীব্রতার মধ্যে পরিস্থিতি বিচারে কোন শিল্পী, কলাকুশলীকে তাঁর ইচ্ছার বিরুদ্ধে চিত্রধারণ কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করার ব্যাপারে জোর করা যাবে না। এই পরিস্থিতিতে যে কোন শিল্পী সঙ্গত যুক্তি দেখিয়ে চুক্তিবদ্ধ কাজ থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করতে পারবেন।
৪. ঢাকা শহর অথবা ঢাকার বাইরে চিত্রধারণে সংশ্লিষ্ট ইউনিট যথাযথ স্বাস্থ্য বিধি মেনে সকল শিল্পী কলাকুশলীদের আনা নেয়ার জন্য পর্যাপ্ত গাড়ির ব্যাবস্থা করবেন।
৫. সদস্যবৃন্দের যে কোন পরিস্থিতি এড়াতে নিজ নিজ সংগঠনের পরিচয়পত্র সাথে রাখবেন।
৬. যেহেতু প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ আছে অতীব জরুরি প্রয়ােজন ছাড়া বাইরে বের হওয়া যাবে না। বিধায় জরুরি প্রয়ােজনে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কর্তৃক প্রদত্ত চলাচলের অনুমতি পত্র (মুভমেন্ট পাস) নিয়ে বের হবেন।

যেহেতু সরকারি প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ আছে অতীব জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হওয়া যাবে না তাই বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনগুলো সবাইকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কর্তৃক প্রদত্ত চলাচলের অনুমতি পত্র ( মুভমেন্ট পাস) নিয়ে বের হতে বলা হয়েছে। আন্তঃ সংগঠনের দেয়া স্বাস্থ্য বিধি কঠোরভাবে মেনে চলা হচ্ছে কিনা তা দেখার জন্য চার সদস্যের পর্যবেক্ষক দল গঠনের কথাও বলা হয় বিবৃতিতে। পর্যবেক্ষক দলে আছেন সাজ্জাদ হোসেন দোদুল, মুনিরা ইউসুফ মেমি, পিকলু চৌধুরী ও আহসান আলমগীর।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঢালিউড


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ