Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ০৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যানজট কোরবানী পশু বিক্রেতা ঘরমুখো মানুষের হতাশা

প্রকাশের সময় : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

চান্দিনা উপজেলা সংবাদদাতা : ঈদুল আযহার আর মাত্র ৩ দিন বাকি। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ধীর গতিতে যানবাহন চলাচলের কারণে ঈদে ঘরমুখো মানুষ এবং কোরবানির পশু বিক্রেতাদের মধ্যে জন্ম নিয়েছে হতাশার। অনেক আকাঙ্খার পর ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক চার লেন হলেও মেঘনা-গোমতী, মেঘনা এবং কাঁচপুর সেতু চারলেন না হওয়ায় যানজটে পড়তে হচ্ছে বিভিন্ন গন্তব্যের যাত্রীদের। গত বুধবার দিবাগত রাত থেকে শুরু হওয়া যানজট পুরোপুরি নিরসন করা সম্ভব হচ্ছে না। গতকাল শুক্রবার সকাল থেকে গাড়ির চাপ আরও বেড়ে যাওয়ায় প্রচ- যানজট লক্ষ্য করা যাচ্ছে এই সড়কে।
যানজট নিরসনে পুলিশ প্রশাসনের সদস্যরা নিরলসভাবে কাজ করেও কোনো ভাবেই দীর্ঘ সময়ের জন্য এই মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতে পারছেন না। কিছু সময় স্বাভাবিকভাবে গাড়ি চলাচল করলেও আবার কিছু সময়ের মধ্যেই তা বিশাল জটে পরিণত হচ্ছে। থেমে থেমে গাড়ি চলছে ঈদে বাড়ি ফেরা মানুষদের নিয়ে।
দাউদকান্দি হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল আউয়াল জানান, কোরবানির ঈদ খুব নিকটে হওয়ায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যাত্রীবাহী পরিবহনের সাথে সাথে পশুবাহী পরিবহনের সংখ্যাও বেড়েছে এবং চাপ সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে হাইওয়ে পুলিশ। কয়েকদিন পন্যবাহী গাড়ি বন্ধের ঘোষণায় যানবাহনের আরও চাপ বেড়েছে। এছাড়াও মেঘনা-গোমতী, মেঘনা এবং কাঁচপুর সেতু ২ লেনের হওয়ায় এই ৩টি সেতুর উভয় পশে ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ