Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০১ জৈষ্ঠ্য ১৪২৮, ০২ শাওয়াল ১৪৪২ হিজরী

দেশের সবচেয়ে বড় করোনা হাসপাতালের উদ্বোধন কাল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০১ এএম

অবশেষে রাজধানীর মহাখালীতে দেশের সবচেয়ে বড় করোনা হাসপাতাল উদ্বোধন করা হচ্ছে। আগামীকাল রোববার এটার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হবে। এক হাজার বেডের এই হাসপাতালের নাম দেয়া হয়েছে ‘ডিএনসিসি ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতাল’। এখানে ১০০ শয্যার আইসিইউ এবং ১১২টি এইচডিইউ স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া রোগীদের জন্য সেন্ট্রাল অক্সিজেন সরবরাহের ব্যবস্থাও রয়েছে।
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য গত বছর এই হাসপাতাল চালু করার ঘোষণা দেয়া হলেও এক বছরে একজন রোগীও এখানে সেবা নিতে যাননি। করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ-এ সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়ে যাওয়ায় দেশের হাসপাতালগুলোতে তিল ধরার ঠাঁই নেই। শত শত রোগী অ্যাম্বুলেন্সে করে এক হাসপাতাল থেকে অন্য হাসপাতালে ঘুরেও ভর্তি হতে পারছেন না। হাসপাতালে আইসিইউ বেড না পাওয়ায় অ্যাম্বুলেন্সে একাধিক করোনা রোগী মারা যাওয়ার খবর মিডিয়ায় প্রচার করা হয়েছে। ফলে নতুন করে হাসপাতালটি চালুর উদ্যোগ নেয়া হয়।
ডিএনসিসি ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালে এখন চলছে ধোয়া-মোছার কাজ। উদ্বোধনের পরই আনুষ্ঠানিকভাবে রোগীদের চিকিৎসা দেয়া শুরু হবে। তখন এটিই হবে দেশের সবচেয়ে বড় করোনা হাসপাতাল।
স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরশনের (ডিএনসিসি) মহাখালী কাঁচাবাজারের (ছয় তলা) এক লাখ ৮০ হাজার ৫৬০ বর্গফুট আয়তনের ফাঁকা ভবনে এই হাসপাতাল চালু করা হচ্ছে। এতদিন মার্কেটটি করোনা আইসোলেশন সেন্টার এবং বিদেশগামীদের করোনা পরীক্ষার ল্যাব হিসেবে ব্যবহৃত হতো। এখন করোনা হাসপাতালের কার্যক্রম শুরু হলেও পৃথকভাবে ওই সেবা কার্যক্রমগুলো চলবে।
গতকাল শুক্রবার সরেজমিনে দেখা যায়, মহাখালী কাঁচাবাজারের জন্য নির্মিত ছয় তলা ভবনটিতে ওই হাসপাতাল স্থাপনের কাজ চলছে। এর মধ্যে দ্বিতীয় তলায় স্থাপন করা হয়েছে জরুরি বিভাগ। এই বিভাগে ৫০টি শয্যা রয়েছে। তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম তলার দোকানগুলোতে দুটি করে শয্যা বসানো হয়েছে। এর মধ্যে প্রতিটি ফ্লোরের ফাঁকা জায়গায় কাঁচ দিয়ে বড় একটি কক্ষ তৈরি করা হয়েছে। এই কক্ষটিতে ২৫টি শয্যা রয়েছে। এখানে সেন্ট্রাল অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া ছয় তলায় পৃথক কয়েকটি কক্ষ নিয়ে আইসিইউ এবং এইচডিইউ শয্যা স্থাপন করা হয়েছে। এখন এই দুটি বিভাগে ধোয়া মোছার কাজ করছেন কর্মীরা। তা তদারকি করছেন বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা।
স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্র জানায়, এই হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা দিতে ৫০০ চিকিৎসক, ৭০০ নার্স, ৭০০ স্টাফ এবং ওষুধ, সরঞ্জামের ব্যবস্থা করছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। ইতিমধ্যে শতাধিক চিকিৎসক ও দুই শতাধিক নার্স কাজে যোগ দিয়েছেন। বাকিরা আজ শনিবারের মধ্যে কাজে যোগ দেবেন। তবে হাসপাতালটি পরিচালনা করবে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।
জানতে চাইলে ডিএনসিসি ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন বলেন, শনিবার হাসপাতালটি উদ্বোধনের কথা ছিল। কিন্তু কিছু কাজ এখনো বাকি রয়েছে। আশা করি রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে হাসপাতালটি উদ্বোধন করতে পারব। তবে এই হাসপাতালে আপাতত শুধু করোনা চিকিৎসা দেয়া হবে। এখানে কোনো অপারেশন করা হবে না।
গত বছরের ৯ আগস্ট করোনা আইসোলেশন সেন্টার পরিদর্শনে গিয়ে মহাখালীর এই মার্কেটটিকে ৫০০ শয্যার আরবান (নগর) হাসপাতালে রূপান্তরের ঘোষণা দিয়েছিলেন ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। সেদিন তিনি বলেছিলেন, ৭ দশমিক ১৭ একর জমির ওপর ডিএনসিসি মার্কেট মূলত পাইকারি কাঁচাবাজারের জন্য তৈরি করা হয়েছিল। কিন্তু বিভিন্ন কারণে এটি বাস্তবায়ন করা যায়নি। এখন এটিকে কিভাবে আরবান হাসপাতালে রূপান্তর করা যায়, আমরা তার পরিকল্পনা করছি। এই ভবনকে আমরা যদি আরবান হাসপাতালে রূপান্তর করতে পারি, তাহলে নগরবাসীর জন্য অনেক সুবিধা হবে।



 

Show all comments
  • স্বর্ণা আক্তার ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ১২:৩২ এএম says : 0
    আমি একজন নার্সিং স্টুডেন্ট। এখন একটা ক্লিনিক এ জব করি তাই আমি এই আপনাদের হাসপাতালে চাকরি করে করোনা রোগীদের সেবা দিতে চাই।
    Total Reply(0) Reply
  • Amdad Hossain ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ১:০৩ এএম says : 0
    পরবর্তী তে হসপিটাল গায়েব(উধাও) হওয়ার সম্ভবনা না-ই ত,সাংবাদিক সাপ লক্ষ রাখবেন
    Total Reply(0) Reply
  • MD Harun ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ১:০৩ এএম says : 0
    কিছুদিন পরে গায়েব হয়ে যাবে!
    Total Reply(0) Reply
  • MD Aziz Uddin ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ১:০৩ এএম says : 0
    কিছুদিন পর শুনবো সেই হাসপাতাল উধাও হয়ে গেসে
    Total Reply(0) Reply
  • Ahasan Shuvo ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ১:০৩ এএম says : 0
    কিছু মনে করবেন না সল্প পরিসরে বলছি আগমী ঈদের পরের হেডলাইন হবে হাসপাতাল উধাও।
    Total Reply(0) Reply
  • Razdoy Khan ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ১:০৪ এএম says : 0
    কয়েক দিন পর বসুন্ধরা করোনা হাসপাতালের মতো এটাও যেন গুম না হয়!
    Total Reply(0) Reply
  • H M Ziaur Rahman ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ১:০৪ এএম says : 0
    জাতি বন্টন এর অপেক্ষায় আছে
    Total Reply(0) Reply
  • Golap Rose ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ১:০৪ এএম says : 0
    আরে ভাই এটা তো করোনা হাসপাতাল না এটাতো টাকা ভাগাভাগি হাসপাতাল
    Total Reply(0) Reply
  • Rahim Bin Shamsuddin ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ১:০৪ এএম says : 0
    এটা থেকে কয়েক দিন আগে করোনা টেষ্ট করিয়ে আসছি
    Total Reply(0) Reply
  • Kazi Md Ismail Hossain ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ১:০৫ এএম says : 0
    চিকিৎসা চালু করে দেন, উদ্ভোদন না হয় রবিবারই কইরেন
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ রফিকুলইসলাম ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ৩:৫৫ এএম says : 0
    জাতি আরোএকটি সুষম বন্টনের অপেক্ষা করছ।
    Total Reply(0) Reply
  • গোলাম রব্বানী বাবলু ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ৬:১৯ এএম says : 0
    চিকিৎসা শুরু করে দিন। আল্লাহ্ ভরসা।।
    Total Reply(0) Reply
  • গোলাম রব্বানী বাবলু ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ৬:১৯ এএম says : 0
    চিকিৎসা শুরু করে দিন। আল্লাহ্ ভরসা।।
    Total Reply(0) Reply
  • কামরুল ইসলাম ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ১:৪২ পিএম says : 0
    ২০০০ বেডের হাসপাতালের হিসাব না দিয়েই আবার ১০০০ বেডের হাসপাতাল উদ্ভোদন!! তাহলে কি ৩১ কোটি টাকা খাওয়াটাই প্রধান ধান্দা ছিল?
    Total Reply(0) Reply
  • ।।শওকত আকবর।। ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ৮:৫৭ এএম says : 0
    মনুরা তোমাগো কথা মুই কিছুই বুঝি নাই বাপু।তোমরা ইট্র ভাইঙা কওতো বাজানরা।হাসপাতাল আবার ঊধাও হয় কেমনে??
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

১২ মে, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ