Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ০১ আষাঢ় ১৪২৮, ০৩ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

নতুন বছর উপলক্ষে মিয়ানমারে ২৩ হাজার বন্দিকে মুক্তি

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ এপ্রিল, ২০২১, ৪:৩৯ পিএম

২৩ হাজারেরও বেশি কারাবন্দিকে মুক্তি দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে মিয়ানমারের নির্বাচিত সরকার উৎখাত করে ক্ষমতা দখলকারী সেনা সরকার। নতুন বছর উপলক্ষে সাধারণ ছুটির দিন শুক্রবার রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যমে সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লাইং এই ঘোষণা দেন বলে রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।
ঘোষণায় বলা হয়েছে, মিয়ানমার যখন শন্তি, উন্নয়ন ও শৃঙ্খলাসহ একটি নতুন গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করছে তখন বন্দিদের নির্দিষ্টভাবে ভদ্র নাগরিক হিসেবে পরিণত করতে, জনগণকে সন্তুষ্ট করতে এবং মানবিক ও সহানুভূতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করতে বন্দিদের সাজা মওকুফ করা হয়েছে।
ওই ঘোষণায় জানানো হয় মোট ২৩ হাজার ৩১৪ জন বন্দিকে মুক্তি দেওয়া হবে। এছাড়া আলাদা এক নোটিশে ৫৫ জন বিদেশি নাগরিককেও মুক্তি দেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। দুটি আদেশেই স্বাক্ষর করেছেন সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লাইং।
এদিকে, জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থা শুক্রবার মিয়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থানের নিন্দা জানিয়ে একটি বিবৃতি পাস করার উদ্যোগ নিচ্ছে। খসড়া প্রস্তাবটি উত্থাপন করবে ব্রিটেন ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন। তবে ক‚টনীতিকরা বলছেন, চীন ও রাশিয়া এতে বাধা দিতে পারে। তারা চাইবে বিবৃতিকে দুর্বল করতে।
গত ১ ফেব্রæয়ারি অভ্যুত্থানের মাধ্যমে নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে মিয়ানমারের ক্ষমতার দখল নেয় সেনাবাহিনী। আটক করা হয় অং সান সু চিসহ শীর্ষ রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দকে। এছাড়াও জারি করা হয় এক বছরের জরুরি অবস্থা। এ ঘটনার পর থেকেই জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছেন দেশটির সাধারণ জনগণ। আন্দোলনকারীদের নিয়ন্ত্রণে আনতে সাধারণ মানুষের বিক্ষোভে গুলিও চালিয়ে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী। সূত্র : রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মিয়ানমার


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ