Inqilab Logo

বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৪ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

উত্তপ্ত চনপাড়া বস্তি

রূপগঞ্জে টানা ৩ দিন ধরে চলছে হামলা-সংঘর্ষ আহত অর্ধশত

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৮ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০১ এএম

অপরাধের স্বর্গরাজ্য রূপগঞ্জের চনপাড়া বস্তি উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। গত ৩ দিন ধরে চনপাড়ায় থেমে থেমে চলছে হামলা-ভাঙচুর ও সংঘর্ষের ঘটনা। গতকাল দুপুর পর্যন্ত দফায় দফায় মিছিল ও হামলার ঘটনা ঘটে। চনপাড়া রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে। এতে আহত হয়েছে প্রায় অর্ধশত লোক। দেশী বিদেশী অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে চলছে দফায়-দফায় সংঘর্ষ। ফলে স্থানীয় লাখো বাসিন্দা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন।

স্থানীয় প্যানেল চেয়ারম্যান বজলুর রহমান বজলু চনপাড়া বস্তির নৌকার ঘাট বন্ধ করে দেয়ার ঘটনায় প্রায় ২শ’ নৌকার মাঝি বেকার হয়ে পরে। এতে স্থানীয়রা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। গত বৃহস্পতিবার ঘটনার সূত্রপাত ঘটে। চনপাড়াজুড়ে সংঘাত, সংঘর্ষ এবং নিয়ম ভেঙে মিছিল মিটিং করলেও অজ্ঞাত কারণে পুলিশ প্রশাসনের তেমন ভূমিকা লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। চনপাড়ায় বড় ধরণের ঝটিকা অভিযানের দাবি স্থানীয়দের।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত কয়েক মাস আগে শীতলক্ষ্যা নদীতে চনপাড়া-নোয়াপাড়া ঘাটের ২শ’ নৌকা চলাচল বন্ধ করে দেয় বজলুর রহমান বজলু। নৌকা চলাচলের দাবি জানিয়ে মাঝিরা পাট ও বস্ত্র মন্ত্রীসহ প্রশাসনের বিভিন্ন দফতরে আবেদন জানান। এতেও কোন সুরাহা হয়নি। গত বৃহস্পতিবার নৌকার মাঝিদের পক্ষ নিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা জয়নাল, শাহীন, রাজাসহ স্থানীয় শত শত লোক মিছিল বের করে। খবর পেয়ে বজলু ও তার বাহিনীর লোকজন তাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এরপর থেকে গত শুক্রবার ও গতকাল দফায় দফায় হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে।
গতকাল দুপুর ১২টার দিকে গোটা চনপাড়ায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। বজলুর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়ে দফায়-দফায় লোকজন মিছিল বের করে। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বজলু, নাজমা ও তার বাহিনী অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে পাল্টা মিছিল বের করে। পরে হাজারো এলাকাবাসী লাঠিসোটা নিয়ে একত্রিত হয়ে সন্ত্রাসী বাহিনীকে ধাওয়া দিলে তারা পালিয়ে যায়।
অনুসন্ধানে জানা গেছে, মলম পার্টি, খয়ের পার্টি, ছিনতাইকারীদের বিশাল চক্র বসবাস করে চনপাড়া বস্তিতে। এরাই দল বেঁধে রূপগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় এমনকি রাজধানী ঢাকার বেশ কিছু এলাকায় অপরাধ কর্মকান্ড করে বেড়ায়। অভিযান পরিচালনা করতে গিয়ে প্রশাসন ব্যর্থ হয়। অভিযানের আগেই অপরাধীরা অভিযানের খবর পেয়ে যায় এমনটাই বললেন স্থানীয়রা। রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ভারপ্রাপ্ত) জসিমউদ্দিন বলেন, চনপাড়া সব সময়ই উত্তপ্ত থাকে। অপরাধীদের আখড়া চনপাড়া। সমস্যা সমাধানের চেষ্টা চলছে। এ ব্যাপারে বজলুর রহমান বজলুর সাথে যোগাযোগ করা হলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ নুসরাত জাহান বলেন, বিষয়টি জেনেছি, আমি ডিসি অফিসকে তা অবহিত করেছি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অপরাধের স্বর্গরাজ্য

১৮ এপ্রিল, ২০২১
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ