Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ০৪ জৈষ্ঠ্য ১৪২৮, ০৫ শাওয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

কোভিড-১৯ এর প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ভাসমান ও নিম্ন আয়ের মানুষদের পাশে দাঁড়ালো বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ এপ্রিল, ২০২১, ৫:১৩ পিএম

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) এর কারণে খাদ্য সংকটে থাকা রাজধানীর নিম্ন আয়ের ভাসমান মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি। সোসাইটির পক্ষ থেকে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ভাসমান মানুষের মাঝে রান্নাকরা খাবার বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। গত ১৪ এপ্রিল প্রথম রোজার দিন থেকে এই মানবিক কার্যক্রম শুরু করেছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি। রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় এই কার্যক্রম চলমান রয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনেই সকল কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে বলে জানিয়েছে রেড ক্রিসেন্ট কর্তৃপক্ষ।

প্রতিদিন রাজধানীর ৩০০ জন ভাসমান অসহায় মানুষের হাতে রান্নাকরা খাবারের প্যাকেট পৌছে দিচ্ছে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির স্বেচ্ছাসেবকরা। এছাড়াও গত ১৪ এপ্রিল থেকে ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত ৩ দিনে চট্রগ্রাম রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের উদ্যোগে ৩২০ জন, বরগুনা জেলা রেড ক্রিসেন্ট এর উদ্যোগে ১১০ জন, মুন্সিগঞ্জ জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের উদ্যোগে ৫০ জন, হবিগঞ্জ জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের উদ্যোগে ১৩০০ জন এবং জাতীয় সদর দপ্তরের পক্ষ থেকে ৬০০ জনসহ সর্বমোট ২৩৮০ জন অসহায় ভাসমান নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে রান্নাকরা খাবারের প্যাকেট বিতরণ করা হয়েছে।

রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি জানায়, পুরো রমজান মাস জুড়ে রাজধানীসহ বিভিন্ন জেলায় বসবাসরত নিম্ন আয়ের অসহায় ও ভাসমান মানুষের মাঝে রান্নাকরা খাবার বিতরণ করবে রেড ক্রিসেন্ট। চলমান লকডাউন আরোও দীর্ঘস্থায়ী হলে রমজানের পরও এই কার্যক্রম অব্যাহত রাখার পরিকল্পনাও রয়েছে সোসাইটির।

আজ ১৮ এপ্রিল রবিবার বিকেলে (ইফতারের আগ মূহূর্তে) জাতীয় সদর দপ্তরস্থ যুব রেড ক্রিসেন্টের সদস্যরা রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় বসবাসরত নিম্ম আয়ের অসহায় মানুষের মাঝে রান্নাকরা স্বাস্থ্যসম্মত খাবার পৌছে দেন।

এদিকে, বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির স্বাস্থ্য বিভাগ করোনাকালে মানসিক স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে মনঃসামাজিক সহায়তা সেল চালু করেছে। অফিস চলাকালিন সপ্তাহের রোববার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টার মধ্যে ফোনকলের মাধ্যমে সেবা মিলবে। তবে রমজান মাসে সকাল ৯ টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত এই সেবা গ্রহণ করা যাবে। দুটি মোবাইল নম্বরে কল করে (০১৮১১৪৫৮৫৪১ ও ০১৮১১৪৫৮৫৪২) বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক এর নিকট থেকে সেবা গ্রহণ করা যাবে।
বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির উদ্যোগে ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহযোগিতায় কোভিড-১৯ টিকাদান বিষয়ে জনগনের মাঝে জনসচেতনতাবৃদ্ধিতে একযোগে দেশের ৩৫৩টি উপজেলার তৃণমূল পর্যায়ে মাইকিং এর মাধ্যমে প্রচার-প্রচারণা চালানো হয়েছে। এছাড়াও, দেশের ৬৪ জেলার ৬৮টি রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের মাধ্যমেও করোভাইরাস প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে জনসচেতনতাবৃদ্ধিতে প্রচার-প্রচারণাসহ নানা কার্যক্রম চলমান রয়েছে। স্থানীয় প্রশাসনের সাথে সমন্বয় করে এসব কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মাঠ পর্যায়ে কর্মরত রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির দায়িত্বপ্রাপ্ত স্বেচ্ছাসেবক ও কর্মকর্তাগণ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন