Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ২৫ বৈশাখ ১৪২৮, ২৫ রমজান ১৪৪২ হিজরী

বাঁশখালিতে শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদে শ্রমিকদলের মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ এপ্রিল, ২০২১, ৮:৩৩ পিএম

চট্টগ্রামের বাঁশখালিতে এস আলম গ্রুপের নির্মাণাধীন কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্রে পুলিশের গুলিতে পাঁচ জন নিহত ও বহু শ্রমিক আহত করায় দোষীদের বিচার, পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণ ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী শ্রমিকদল। বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী শ্রমিকদল কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। পরে পুলিশের বাঁধায় সমাবেশ সংক্ষিপ্ত করে জাতীয়তাবাদী শ্রমিকদল।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বাঁশখালিতে পাঁচ জন মানুষকে গুলি করে হত্যা করা হলো। এখন তারা শ্রমিকদের দাবি মেনেছে। দাবি যখন মানবেই তবে পাঁচটি জীবন নিলো কেনো? এরপর সেখানে শ্রমিকদের নামে মামলা দেয়া হয়েছে। সেই মামলায় অনেক অজ্ঞাতনামা আসামী করা হয়েছে। আমরা বলবো, এই অজ্ঞাতনামা আসামী দেয়ার মূল কারণ হলো গ্রেপ্তার বাণিজ্য করা। তা নাহলে সেখানেতো সকল কর্মচারীদের নাম ঠিকানা আছে।

এসময় বক্তারা আরো বলেন, আমরা যদি চুপ থাকি প্রতিনিয়ত এ ঘটনা ঘটবে। তাই আমাদের সোচ্চার হতে হবে। আমরা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে এ ঘটনায় দায়ীদের বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠন করে সুষ্ঠু বিচার ও শ্রমিকদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি। সরকার আমাদের দাবি মানতে অপারগ হলে আমরা বৃহত্তর কর্মসূচিতে যেতে বাধ্য হবো।

জাতীয়তাবাদী শ্রমিকদলের সভাপতি আনোয়ার হোসাইন এর সভাপতিত্বে ও প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু'র সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরো উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির সহ শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হুমায়ুন কবির খান, শ্রমিক দলের সহ সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, অর্থ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর উত্তর শ্রমিকদলের সভাপতি খন্দকার জুলফিকার মতিন, সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম রাজা, দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম বাদল, সিনিয়র সহ-সভাপতি সুমন ভূঁইয়া, আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শ্রমিকদলের মানববন্ধন
আরও পড়ুন