Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮, ২৯ রমজান ১৪৪২ হিজরী

মুক্তিপণের দাবিতে হাফেজ খুন

কক্সবাজার জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২২ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০০ এএম

আপন ফুফাতো ভাইয়ের সাথে বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে কুমিল্লা থেকে বান্দরবানের লামা উপজেলায় এনে জিম্মি করে ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি, টাকা না পেয়ে এক হাফেজকে নৃশংসভাবে খুনের ঘটনা ঘটেছে। এদিকে হত্যার ঘটনা লুকাতে মাটি চাপা দেয়া হয় লাশ। ২৫ দিন পর মাটির নিচ থেকে নিহত হাফেজ মো. অলি উল্লাহ স্বাধীনের লাশ উদ্ধার করে লামা থানা পুলিশ।
নৃশংস এই ঘটনা ঘটে বান্দরবানের লামা উপজেলার রূপসীপাড়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের শিং ঝিরি এলাকায়। এই ঘটনায় লামা থানা পুলিশ গত মঙ্গলবার দুপুরে লামা উপজেলার রূপসীপাড়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের বেত ঝিরি হতে হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত মুল দুই আসামি ফয়েজ আহমদ ও মো. আরিফুল ইসলামকে আটক করে।
আসামিদের দেয়া তথ্যে অভিযান চালিয়ে খুনের ২৫ দিন পরে মাটির নিচ থেকে নিহত হাফেজ মো. অলি উল্লাহ স্বাধীনের লাশ উদ্ধার করে লামা থানা পুলিশ। নৃশংসভাবে খুন হওয়া হাফেজ মো. অলি উল্লাহ স্বাধীন কুমিল্লা জেলার দেবিদ্বার থানার ফতেহাবাদ ইউনিয়নের বিষুপুর গ্রামের মো. মোবারক হোসেন ও লুৎফা বেগমের ছেলে।
খুনের ঘটনায় আটক দুই আসামি হলো কুমিল্লা জেলার বুড়িচং থানার খারাতাইয়া গ্রামের আব্দুল মালেক এর ছেলে মো. ফয়েজ আহমদ ও নিহতের আপন ফুফাতো ভাই কুমিল্লা জেলার দেবিদ্বার থানার ফতেহাবাদ ইউনিয়নের বিষুপুর গ্রামের মৃত মো. আব্দুল গণি খাঁ এর ছেলে মো. আরিফুল ইসলাম।
লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, আসামিদের দেয়া তথ্য মতে ও তাদের দেখানো স্থানে মাটি খুঁড়ে নিহত হাফেজ স্বাধীন এর লাশ উদ্ধার করি। লাশটি যে হাফেজ মো. অলি উল্লাহ স্বাধীনের তা তার বড় দুই ভাই রিয়াজ উদ্দিন সোহেল ও মো. জিলানী বাবু নিশ্চিত করেছে। ময়নাতদন্ত শেষে লাশ নিহতের পরিবারের লোকজনের কাছে হস্তান্তর করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হাফেজ খুন
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ