Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ২৩ বৈশাখ ১৪২৮, ২৩ রমজান ১৪৪২ হিজরী

করোনা চিকিৎসায় রেমডিসিভির ব্যবহার বাতিল করলো ডব্লিউএইচও

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ এপ্রিল, ২০২১, ৮:০৮ পিএম | আপডেট : ৮:৪৭ পিএম, ২২ এপ্রিল, ২০২১

কোভিড-১৯ চিকিৎসায় ‘রেমডিসিভির’ ওষুধ বাতিল করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা- ডব্লিউএইচও। বেশ কয়েকটি পরীক্ষার পর্যালোচনার ভিত্তিতে ওষুধটি রোগীদের সুস্থ করে তুলতে পারে না বলে জানায় সংস্থাটি।

করোনা মহামারি চিকিৎসায় রেমডিসিভিরের কার্যকারিতা সাড়া ফেলেছিল বিশ্বজুড়ে। এমনকি সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজেও এই ওষুধ ব্যবহারে জোর দিয়েছিলেন।

কয়েক মাস আগে করোনায় আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসায় অ্যান্টি ভাইরাল ওষুধ রেমডিসিভির ব্যবহারের ব্যাপারে সতর্ক করেছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। এবার করোনা চিকিৎসায় ওষুধের তালিকা থেকেই রেমডিসিভিরকে চূড়ান্তভাবে বাতিল করেছে সংস্থাটি।

বৃহস্পতিবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে বলা হয়, করোনা ওষুধের তালিকা থেকে রেমডিসিভিরকে বাদ দেওয়া হয়েছে। এখন থেকে এই ওষুধ আর করোনা চিকিৎসায় ব্যবহার করা যাবে না।

সম্প্রতি ভারতের সর্বোচ্চ সরকারি চিকিৎসাকেন্দ্র অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্সের (এআইআইএমস) পরিচালক রণদীপ গুলেরিয়াও এ সম্পর্কে সচেতন করেছেন। তিনি বলেছেন, করোনা চিকিৎসায় রেমডিসিভিরের কোনো ভূমিকা নেই। রেমডিসিভির কোনো যাদুকরী ওষুধ নয়। এটি করোনা সারাতে পারে এমন অকাট্য প্রমাণ পাওয়া যায়নি। করোনায় মৃত্যু কমানোর ক্ষেত্রেও এটি তেমন কার্যকরী কোনো ওষুধ নয়। বর্তমানে বিশ্বের ৫০টি দেশে করোনা চিকিৎসায় রেমডিসিভির ব্যবহার করা হচ্ছে।

ভারতে এই ওষুধটি তৈরির জন্য একাধিক কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করেছে রেমডিসিভিরের প্রস্তুতকারক সংস্থা গিলিয়াড। ডা. রেড্ডিজ ল্য়াব, জাইডাস ক্য়াডিলা, সিপলা-র মতো ভারতীয় ওষুধ প্রস্তুতকারী কোম্পানিগুলো ইতোমধ্যে রেমডিসিভিরের জেনেরিক (ভিন্ন নামে একই ওষুধ) তৈরির কাজও শুরু করে দিয়েছে। তার মধ্যেই ডব্লিউএইচও এমন নির্দেশিকা জারি করল।



 

Show all comments

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ডব্লিউএইচও


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ