Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২৩ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

মানবিক আচরণ করুন দরিদ্র মানুষের প্রতি

পীর সাহেব চরমোনাই

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ এপ্রিল, ২০২১, ১২:১০ এএম

খেটে খাওয়া দরিদ্র মানুষের প্রতি প্রশাসনকে মানবিক আচরণ করার আহবান জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতী সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই। গতকাল বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, করোনায় বিপর্যস্ত সাধারণ মানুষ যারা পেটের দায়ে রিক্সা চালায় কিংবা ফুটপাতে দোকান নিয়ে বসে তাদের প্রতি নির্দয় আচরণ খুবই দু:খজনক।
তিনি বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখা যাচ্ছে রিকসা চালক বৃদ্ধ মানুষ যিনি পুলিশের অমানবিক আচরণ থেকে বাঁচতে বলছেন ‘বাবা আমি ভুলে এ রাস্তা দিয়ে চলে আসছি, আর আসব না, আমি রোজা রেখেছি আমাকে মারবেন না’ এমন আকুতি করেও পুলিশের নির্যাতন থেকে রেহাই পায়নি। তিনি বলেন, এধরণের আচরণ আসলেই অমানবিক যা মেনে নেয়ার মত নয়। তিনি বলেন, দরিদ্র মানুষ যারা একান্ত নিরুপায় হয়ে রিকসা চালায় বা অন্য কোন কাজে বের হয়েছে তাদের প্রতি সদয় হওয়া প্রয়োজন।

পীর সাহেব বলেন, দীর্ঘ দিন যাবৎ লকডাউনের ফলে সাধারণ মানুষের জীবন বিপর্যস্ত হয়ে উঠছে। পেটের দায়ে অনেক মানুষ হাহাকার করছে। অনেক মানুষ লোক লজ্জার কারণে নিরবে নিভৃতে অসহায় যন্ত্রণা সহ্য করছে। এধরণের মানুষের প্রতি সদয় আচরণ এবং সরকারের পক্ষ থেকে প্রণোদনার ব্যবস্থা করা প্রয়োজন। পীর সাহেব চরমোনাই নিরীহ নিরাপরাধ আলেম-উলামা, সাধারণ মানুষকে গ্রেফতার এবং হয়রানি করা থেকে বিরত থাকার আহবান জানিয়ে বলেন, কোন শ্রেণি ও পেশার মানুষই আজ নিরাপদ নয়। শ্রমিকরা তাদের পাওনা চাইতে গিয়ে খুন হওয়ার মত ঘটনা বিশ্ববিবেককে নাড়া দিয়েছে।

শোক : ইসলামী শ্রমিক আন্দোলনের জয়েন্ট সেক্রেটারী জেনারেল আলহাজ হাফেজ এইচ এম রফিকুল ইসলামের পিতা ডাঃ আব্দুল জলিল ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করে মরহুমের রূহের মাগফিরাত কামনা করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, সহকারি মহাসচিব মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, কেন্দ্রীয় প্রচার ও দাওয়াহ সম্পাদক মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম।



 

Show all comments
  • Jack Ali ২৩ এপ্রিল, ২০২১, ২:০১ পিএম says : 0
    আপনারা আলেম দাবি করেন কিন্তু কিভাবে শিয়াল কে বলছেন যে মুরগি সকলকে দেখাশুনা করো শিয়াল তো সব মুরগিকে খেয়ে ফেলবে. সরকার ক্ষমতায় থাকার জন্য ইন্ডিয়ার সাহায্যে মানুষকে হত্যা গুম ও মিথ্যা মামলা দিয়ে জনগণকে প্রচন্ড ভয় এর মধ্য রেখেছে শুধু তাই নয় তারা আমাদের টাকা লুট করে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার বিদেশে পাচার করেছে বা এখনও করছে তার কারণ কখনো যদি সরকারের পতন হয় তাহলে তারা বিদেশে যে আমাদের দেশে যেমন রাজা বাদশার মত আরাম-আয়েশের মতো জীবনযাপন করতো বিদেশে যেয়ে ও অনুরূপ ভাবে জীবন যাপন করবে, রিকশাআলা যেমন রোগীর চিকিৎসা করতে পারে না তেমনি সাধারণ মানুষ দেশ শাসন করতে পারে না, আল্লাহ আলেমদেরকে ফরজ দায়িত্ব দিয়েছেন দেশ শাসন কোরআন দিয়ে করতে, আল্লাহ তাআলা কুরআনে সালাত কায়েম এর সাথে দ্বীন কায়েমের কথা বলেছেন. সালাত কায়েম করা যেমন ফরজ অনুরূপভাবে দ্বীন কায়েম করা ফরয. আমাদের দেশে এত আলেম ও মুসলিম থাকতে কেন দেশ শাসন করা হয় কাফের আইন দিয়ে. তার একমাত্র কারণ যে আপনারা আলেম বলে দাবি করেন কিন্তু আপনারা এক ইসলামের পতাকাতলে নাই. আপনারা একে অপরকে ঘৃণা করেন আপনারা কি জানেন না যে আমাদের আল্লাহ এক, আমাদের রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর সুন্নত [হাদিস] তাহলে কেন আপনারা দিনের মধ্যে বিভক্ত তৈরি করেছেন??? আপনারা কি কোরআন পড়েন না আল্লাহ তাআলা কুরআনে স্পষ্টভাবে উল্লেখ করেছেন যে যারা দিনকে খণ্ড খণ্ড ভাবে বিভক্ত করবে তাদের জন্যে রয়েছে মহাশাস্তি
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মানবিক আচরণ
আরও পড়ুন