Inqilab Logo

শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৯ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

ডাক্তারের ঘটনায় সেই ঢাকার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে বরিশাল বদলী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ এপ্রিল, ২০২১, ১০:৫৯ পিএম | আপডেট : ১১:১২ পিএম, ২২ এপ্রিল, ২০২১

লকডাউন চলাকালে রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডে চিকিৎসকের সাথে বাকবিতন্ডার জেরে আলোচনায় আসা ঢাকা জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ মো. মামুনুর রশীদকে বদলি করা হয়েছে। ঢাকা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে তাকে বরিশালের বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে ন্যস্ত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শেখ ইউসুফ হারুন ইনকিলাবকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, সে অনেক দিন ধরে এখানে আছে। স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় তাকে বদলি করা হয়েছে। তার বদলির বিষয়টি আগে থেকেই প্রক্রিয়াধীন ছিল। ওই ঘটনার সাথে বদলির কোনো সম্পৃক্ততা নেই।

করোনা সংক্রমণ রোধে লকডাউন চলাকালে গত ১৮ এপ্রিল এলিফ্যান্ট রোডে এক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসক সাঈদা শওকত জেনির পরিচয়পত্র দেখা নিয়ে পুলিশের সঙ্গে বাকবিতন্ডা হয়। সেই সময় সেখানে মামুনুর রশীদ ভ্রাম্যমাণ আদালতে দায়িত্বরত ছিলেন। এ ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়লে দেশব্যাপী আলোড়ন তৈরি হয়। চিকিৎসক, পুলিশ এবং ম্যাজিস্ট্রেট তিন জনই মুক্তিযোদ্ধার সন্তান বলে দাবি করেন। নিজেদের মানহানি দাবি করে চিকিৎসক এবং পুলিশ শাস্তি দাবি করে।



 

Show all comments
  • শওকত আকবর ২৩ এপ্রিল, ২০২১, ৮:৪১ এএম says : 0
    এ বিষয়টি অতি দুঃখজনক।এ বিষয় আর কিছু না বলা ই শ্রেয়।
    Total Reply(0) Reply
  • Azad mullah ২৩ এপ্রিল, ২০২১, ৬:৩৬ পিএম says : 0
    বাংলাদেশের তিন বিভাগের তিন জন উচ্চ পর্যায়ের লোকেরা সবাই নিজের পরিচয় ও বাহাদুরি দেখাতে গিয়ে সবাই মুক্তি যুদ্ধের দোহাই টানছে মানে ওরা কেউ ই জনসেবা করার উপযোগী নয় ওরা বাপরে নাম বিক্রি করে মানুষ কে ভয় দেখাচ্ছে তাদের বাপের পরিচয় না দিয়ে ঐ মুহূর্তে আইনের আওতায় চলা আইনের ভাষায় কথা কথা যে আইন কি বলে কার কি পরিচয় ও কোন মন্ত্রীর সাথে সম্পর্ক তাহা দেখার বিষয় নয় সোজা কথা হলো ডাক্তার দের ও যদি আইডি দেখানো দেখানো বাধ্যতামূলক হয় তাহলে অবশ্যই আইডি দেখাতে হবে আর বাই মিষ্টিকে সরি বলবে আর পুলিশের কাজ হবে তাকে তার আইনের ধারা দেখবে কনসিডারেবল কনসিডার করবে না হয় বলবে আইন সবার জন্য সমান এখানে কে ভেসে আসছে আর কে উড়েআসছে ঐ সমস্ত বাজে ও গুন্ডামী কথা কারো জন্য সটিক হয় নাই এর পর বিশেষ করে আমার বাবা অমুক অথবা আমি তমুক নেতার সাথে সম্পর্ক রাখি ঐ সব কথা ও কাজ কোনো সবব ও প্রফেশনাল লোকের কাজ নয় এ সব হলো মাস্তান ও সন্ত্রাসী দের আচরণ ও কাজ যে গোলা আমরা বর্তমান আওয়ামী সন্ত্রাসী দের মধ্যে দেখে আসছি আপনাদের কাছ থেকে মাস্তান দের আচরণ পাওয়া গেছে তার মানে হয়তো এই হতে পারে যে তোমরা যোগ্য তার নিরিখে সার্ভিসে আসেন নাই বরং বাপ ভাই এমপি মন্ত্রী দের দারা কাজ পাইয়াছেন তোমাদের যদি এই আচরণ হয় তাহলে সাধারণ পাবলিক থেকে আমরা কি আসা করতে পারি?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ম্যাজিস্ট্রেটকে বদলি
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ