Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮, ২৯ রমজান ১৪৪২ হিজরী

দেড় যুগ পর মন ভরানো ব্যাটিং

ইমরান মাহমুদ | প্রকাশের সময় : ২৪ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০২ এএম

প্রথমে তামিম ইকবাল-নাজমুল হোসেন শান্ত, পরে শান্তর সঙ্গে অধিনায়ক মুমিনুল হক আর এখন মুশফিকুর রহিমের সাথে লিটন দাসের জুটিটাও জমে উঠেছে। বিদেশের মাটিতে নিজের প্রথম সেঞ্চুরির পর অধিনায়কের বিদায়ে মুশফিকের সঙ্গে যোগ দেন লিটন। এরপর থেকে এই জুটি অবিচ্ছিন্ন ৫০ রানে।
শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ সিরিজের প্রথম ম্যাচের দ্বিতীয় দিন আগেভাগেই শেষ করতে হয়েছে আলোক স্বল্পতার কারণে। গতকাল প্রথম ইনিংসে ১৫৫ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৪৭৪। মুশফিক ১০৭ বলে ৪৩ রান করে অপরাজিত আছেন। লিটন ২৫ করেছেন ৩৯ বলে। প্রায় আধঘণ্টা অপেক্ষার পরও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় সেখানেই দিন শেষের ষোষনা দিতে হয়েছে ম্যাচ রেফারীকে।
নাজমুল হোসেন শান্ত ও মুমিনুল হকের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে মাইলফলকের পথচলায় ধরা দিল আরও এক অনন্য অর্জন। পাল্লেকেলে টেস্টে ২৪২ রানের ম্যারাথন জুটিতে বাংলাদেশের হয়ে একটি রেকর্ড গড়লেন দুজন। ৫১৭ বল খেলেও আরেকটি রেকর্ড হলো না অল্পের জন্য।
শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্টের প্রথম দিন শেষে শান্ত-মুমিনুল অবিচ্ছিন্ন ছিলেন ১৫০ রানে। গতকাল ম্যাচের দ্বিতীয় দিনও লঙ্কানদের হতাশ করে বাংলাদেশকে এগিয়ে নেন তারা। দুজনে গড়েন তৃতীয় উইকেটে দেশের হয়ে রেকর্ড জুটি। তৃতীয় জুটিতে বাংলাদেশের আগের রেকর্ড ছিল ২৩৬। সেই জুটিতেও ছিলেন মুমিনুল, সঙ্গে মুশফিকুর রহিম। ২০১৮ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই চট্টগ্রামে ছিল সেই জুটি। এবার শান্তকে নিয়ে তা ছাড়িয়ে গেলেন মুমিনল।
শেষ পর্যন্ত এই জুটি থামে শান্তর বিদায়ে। ১৬৩ রান করে বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ফিরতি ক্যাচ দেন লাহিরু কুমারাকে। দুজনের জুটি শেষ হয় ২৪২ রানে। তাতে জুটির আরেকটি রেকর্ড ধরা দিল না অল্পের জন্য। আর মাত্র ২টি বল খেলতে পারলেই এই জুটিতে হয়ে যেত সবচেয়ে বেশি বল খেলার রেকর্ড। রানের রেকর্ড হওয়ার আগেই দুজনের জুটিতে খেলা হয়ে যায় ৫০০ বল। বাংলাদেশের হয়ে এক জুটিতে ৫০০ বল খেলার কীর্তি এর আগে ছিল একবারই। ২০১৩ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই গলে মোহাম্মদ আশরাফুল ও মুশফিকুর রহিমের ২৬৭ রানের জুটি হয়েছিল ৫১৮ বল খেলে। শান্ত ও মুমিনুলের জুটি এবার শেষ হলো ৫১৭ বল খেলে।
জুটির রেকর্ডের আগে দেশের বাইরে নিজের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি পান মুমিনুল। থামেন ১২৭ রানে। ধনঞ্জয়া ডি সিলভার বলে লাহিরু থিরিমান্নের হাতে ধরা পড়েন তিনি। খেলেছেন ৩০৪ বল। ইনিংসটি সাজিয়েছিলেন ১১টি চারে।
দীর্ঘ উইকেট খরার পর অবশেষে কিছুটা সাফল্যের স্বাদ পেয়েছে শ্রীলঙ্কা। এক সেশনে তারা নিতে পেরেছে দুটি উইকেট। নাজমুল হাসান শান্তর বিদায়ে ভেঙেছে ম্যারাথন এক জুটি। পরে আরেক সেঞ্চুরিয়ান মুমিনুলও বিদায় নেন চা বিরতির আগে।
১২৬ রান নিয়ে সকালে দিন শুরু করেন শান্ত, ৬৪ রান নিয়ে মুমিনুল। আগের দিন বেশ এলোমেলো বল করা লঙ্কান পেসাররা দ্বিতীয় দিনে ছিলেন বেশ গোছানো। শট খেলার সুযোগ খুব বেশি দেননি। শান্ত ও মুমিনুলও ধীরস্থির ব্যাটিংয়ে এগিয়ে নেন দলকে। প্রথম সেশনে কোনো উইকেট না হারিয়ে বাংলাদেশ তোলে ৭৬ রান। এই সেশনেই মুমিনুল পা রাখেন শতকে। তার ক্যারিয়ারের যা একাদশ টেস্ট সেঞ্চুরি। এরপর শান্ত পেরিয়ে যান দেড়শ।
লাঞ্চের পরও দারুণ খেলে দুজনের জুটি ছাড়িয়ে যায় তৃতীয় উইকেটে বাংলাদেশের আগের রেকর্ড ২৩৬ রানকে। ৮৫ ওভারের বেশি উইকেটে কাটানো এই জুটি শেষ পর্যন্ত থামে শান্ত আউট হওয়ায়। পেসার লাহিরু কুমারার বলটি পিচ করে একটু থেমে আসে, শান্তর ড্রাইভে বল সরাসরি যায় বোলারের হাতে। ৩৭৮ বলে ১৭ চার ও ১ ছক্কায় ১৬৩ রানে শেষ হয় শান্তর দারুণ অভিযান।
পরে মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে মুমিনুলের জুটিও জমে উঠছিল। তবে দীর্ঘ হয়নি। অফ স্টাম্পের বাইরে ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার ফ্লাইটেড বলে শরীরের একটু দ‚রে ড্রাইভ খেলেন মুমিনুল। একটু টার্ন করে ব্যাটের কানা ছুঁয়ে ক্যাচ যায় প্রথম স্লিপে। ৩০৪ বলে তার ১২৭ রানের ইনিংসে চার ১১টি। টেস্ট ক্যারিয়ারে এই প্রথম ৩০০ বল তিনি খেলতে পারলেন। মুশফিক উইকেটে জমে গেছেন। তবে খুব দ্রুত রান অবশ্য করতে পারেননি। চা বিরতির সময় তার রান ৭০ বলে ২২। ১২ রান নিয়ে তার সঙ্গী লিটন। এখন পর্যন্ত সব মিলিয়ে দুর্দান্ত এক টেস্টের প্রতিচ্ছবি হয়ে থাকছে লঙ্কা সফরের এই টেস্ট। এমন ব্যাটিংই গত দেড় যুগে উধাও ছিল বাংলাদেশ দল থেকে। অবশেষে ভুলে যাওয়া সেই ব্যাটিং প্রদর্শনী আবার মেলে ধরতে পারল বাংলাদেশ।
১০০ ওভার শেষে কেবল দুটি উইকেটের পতন, বাংলাদেশের এমন হয়েছে আর একবারই। সেই ২০০৩ সালে পাকিস্তান সফরে পেশাওয়ার টেস্টে যা করেছিলেন হাবিবুল বাশার, জাভেদ ওমররা। সেবার হান্নান সরকার শুরুতে আউট হওয়ার পর দ্বিতীয় উইকেটে জাভেদ ও হাবিবুল ৬০ ওভারের বেশি ব্যাট করে গড়েন ১৬৭ রানের জুটি। ৯৭ রান করে হাবিবুলের বিদায়ে ভাঙে জুটি। এরপর জাভেদ ও মোহাম্মদ আশরাফুলের জুটি ১০০ ওভার ছাড়িয়ে এগিয়ে নেয় বাংলাদেশকে। ১১৯ রান করে জাভেদের বিদায়ে বাংলাদেশ তৃতীয় উইকেট হারায় ১২২তম ওভারে।
এবার পাল্লেকেলেতেও এক ওপেনারকে শুরুর দিকে হারায় বাংলাদেশ, শূন্য রানে আউট হন সাইফ হাসান। এরপর তামিম ইকবাল ও নাজমুল হোসেনের জুটি টিকে থাকে ৩৬ ওভারের বেশি। তামিম ৯০ রানে আউট হলে ভাঙে ১৪৪ রানের জুটি। তৃতীয় উইকেটে শান্ত ও মুমিনুলের দৃঢ়তায় পরে ১০০ ওভার ছাড়িয়ে যায় বাংলাদেশ। দুজনের জুটির রান পেরিয়ে গেছে ২০০, উইকেটে দুজন কাটিয়েছেন ৭০ ওভারের বেশি। শেষ তুলির আঁচড় দিতে উইকেটে আছেন মুশফিক-লিটন। আজ তৃতীয় দিনে প্রথম ইনিংসের সংগ্রহটা কতদূর টেনে নিতে পারেন দু’জন সেটিই দেখার।
সংক্ষিপ্ত স্কোর
বাংলাদেশ ১ম ইনিংস : ১৫৫ ওভারে ৪৭৪/৪ (আগের দিন ৩০২/২) (শান্ত ১৬৩, মুমিনুল ১২৭, মুশফিক ৪৩*, লিটন ২৫*; লাকমল ০/৭৪, বিশ্ব ২/৭৫, কুমারা ১/৮৮, ম্যাথিউস ০/১৪, ধনাঞ্জয়া ১/১১২, হাসারাঙ্গা ০/৯৪, করুনারত্নে ০/৫)। দ্বিতীয় দিন শেষে

জুটিতে সর্বোচ্চ রান
হ দেশের বাইরে এই নিয়ে সপ্তমবার ৪০০ ছুঁতে পারল বাংলাদেশ, এর তিনবারই শ্রীলঙ্কায়।
হ ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিতে ১৬৩ রানে থামেন শান্ত।
হ দেশের বাইরে প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরিতে মুমিনুল করেন ১২৭ রান।
হ দুজনের ২৪২ রানের জুটি তৃতীয় উইকেটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ জুটির রেকর্ড।



 

Show all comments
  • মেঘদূত পারভেজ ২৩ এপ্রিল, ২০২১, ৯:৫০ এএম says : 0
    টাইগাররা অনেক ভালো খেলেছে। শুভ কামনা।
    Total Reply(0) Reply
  • তপন ২৩ এপ্রিল, ২০২১, ৯:৫০ এএম says : 0
    আসলেই মন ভরানো ব্যাটিং। সামনে আরও সাফল্য কামনা করছি।
    Total Reply(0) Reply
  • দেওয়ান মাহদী ২৩ এপ্রিল, ২০২১, ৯:৫০ এএম says : 0
    ইনশায়াল্লাহ, বাংলাদেশ দল ভালো করবে।
    Total Reply(0) Reply
  • আনোয়ার জাহিদ ( জেলাপ্রতিনিধি) ফরিদপুর। ২৩ এপ্রিল, ২০২১, ৯:৫৯ এএম says : 0
    অনেক ভাল লাগলো, বাংলাদেশের প্লেয়ারা যখন ভাল খেলেন তখন খুব ভাল লাগে। বেশী আবেগময় করেন যিনি মধুমাখা মননে সংবাটি লিখে প্রচারের অলংকার দেন।
    Total Reply(0) Reply
  • Md. Belal Ahmed ২৩ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০০ পিএম says : 0
    মুমিনুল বলেছিলো সাকিব ছাড়াও ম্যাচে কোন প্রভাব পড়বে না। এটা সত্য সাকিব বা কেউ একজন পুরো ক্রিকেট না।
    Total Reply(0) Reply
  • Saiful Islam Sumon ২৩ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০১ পিএম says : 0
    5 টির মধ্যে ৩ টিতেই মুশফিক আছে বাংলাদেশের সেরা ব্যাটসম্যান বলে কথা
    Total Reply(0) Reply
  • Ridwan Hridoy ২৩ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০১ পিএম says : 0
    সবাইকে অভিনন্দন বিশেষ করে মুশফিক ভাই ও মাহে রমজানের শুভেচ্ছা
    Total Reply(0) Reply
  • মাসুদ রানা ২৩ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০১ পিএম says : 0
    বাংলাদেশ রেকর্ড ছাড়া কিছু করে না,,, যে দিন ভালো করবে সে দিন দেখবেন একটা না একটা রেকর্ড হয়ে গেছে
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মন ভরানো ব্যাটিং
আরও পড়ুন