Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ৩০ বৈশাখ ১৪২৮, ৩০ রমজান ১৪৪২ হিজরী

মঠবাড়িয়ায় মোবাইল সিম চোর সন্দেহে কিশোরকে নির্যাতন

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৩ এপ্রিল, ২০২১, ৩:১৫ পিএম

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার হোগলপাতি বাজারে মোবাইল চোর সন্দেহে সানাউল (১৩) নামে কিশোরকে লোমহর্ষক নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহত কিশোর সানাউল এর মামা শহিদুল ইসলাম (৩৬) বাদি হয়ে শুক্রবার সকালে ৩ জন নামীয় ও অজ্ঞাত ৪ জনের বিরুদ্ধে মঠবাড়িয়া থানায় হত্যা চেষ্টার অভিযোগে মামলা করেন। আসামীরা হলো, উপজেলার হোগলপাতি গ্রামের মৃত. আঃ সামাদ হাজীর ছেলে ওষুধ ব্যববসায়ি সোহাগ (২৬), মেয়ে দুলু (৩২) ও ছোমেদ মাতুব্বরের ছেলে বেল্লাল (৩০)। সানাউল হোগলপাতি গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে।
গুরুতর আহত সানাউল জানায়, সে একটি মোবাইল সিমকার্ড কুড়িয়ে পেয়ে এক সপ্তাহ ধরে ব্যবহার করে আসছিল। বুধবার সন্ধার পরে স্থানীয় মৃত. আব্দুস সামাদ মিয়ার ছেলে ওষুধ ব্যববসায়ি সোহাগ ও অন্য দুই জন তার ফার্মেসীতে আটকে রেখে মোবাইল চোর সন্দেহে সানাউলের ওপর নির্যাতন চালায়।
স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. জাকিরে হোসেন বলেন, সানাউলের ওপর নির্যাতনের সংবাদ পেয়ে চৌকিদারের সহযোগিতা নিয়ে উদ্ধার করে প্রথমে থানায় পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসি। তিনি আরও বলেন, যে মোবাইল চুরি করার অভিযোগ করেছে সেটি সোহাগেরও নয়। অহেতুক ছেলেটাকে নির্যাতন করা হয়েছে।
মঠবাড়িয়া থানর ওসি মাসুদুজ্জামান মামলা সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আসামী গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যহত রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নির্যাতন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ