Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ২৮ বৈশাখ ১৪২৮, ২৮ রমজান ১৪৪২ হিজরী

দক্ষিনাঞ্চলে ২৪ ঘন্টায় ডায়রিয়া আক্রান্ত প্রায় দেড় হাজার, মারা গেছেন একজন

পরিস্থিতি জনমনে উদ্বেগ-উৎকন্ঠা বৃদ্ধি করছে

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৩ এপ্রিল, ২০২১, ৪:৫৭ পিএম

করোনার ভয়াল থাবার মধ্যে দক্ষিণাঞ্চল যুড়ে ক্রমবনতিশীল ডায়রিয়া পরিস্থিতি জনমনে উদ্বেগ-উৎকন্ঠা ক্রমশ বৃদ্ধি করছে। শুক্রবার দুপুরের পূর্ববর্তী ২৪ ঘন্টায় আরো ১ হাজার ৪৪২ জন ডায়রিয়া রোগী দক্ষিনাঞ্চলের ৬ জেলার বিভিন্ন সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য এসেছেন। এসময়ে পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক মহিলার মৃত্যু ঘটেছে। এনিয়ে ১০ জনের মৃত্যুর সাথে দক্ষিণাঞ্চলে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৬ হাজার ৪৬৮ জনে পৌছল। মারাত্মক জনবল সংকট নিয়ে করোনার মত সংক্রামক মরনব্যাধী মোকাবেলায় স্বাস্থ্য বিভাগ যেখানে বিপত্তির মুখে, সেখানে সাম্প্রতিককালের ভয়াবহ ডায়রিয়ার বিস্তার চরম জনস্বাস্থ্য বিপর্যয় ডেকে অনছে। দক্ষিনাঞ্চলের ৬ জেলায় এখনো অনুমোদিত চিকিৎসক পদের প্রায় অর্ধেকই শূণ্য পড়ে আছে।
বরিশাল মহানগরীর জেনারেল হাসপতাল সহ দক্ষিণাঞ্চলের সবগুলো জেলা ও উপজেলা হাসপাতালে ডায়রিয়া রোগীদের চিকিৎসা দিতে চরম বিপত্তিতে পড়ছেন চিকিৎসকগন। কোন হাসপাতালেই তিল ধরার ঠাই নেই। তবে পর্যাপ্ত খাবার ও আইভি স্যালইন সহ অন্যান্য চিকিৎসা সামগ্রী মজুদ রয়েছে বলে জানিয়েছে বিভাগীয় স্বাস্থ্য দপ্তর।
এখনো পটুয়াখালী, ভোলা ও বরগুনার অবস্থা অপেক্ষাকৃত নাজুক। আইডিসিআর-এর কারিগরি দল সরেজমিনে দক্ষিনাঞ্চলের বিভিন্ন এলাকায় ডায়রিয়া রোগীদের তথ্য উপাত্ত সহ মলের নমুনা সংগ্রহ করছে। ঢাকার ল্যাবে এসব নমুনা পরিক্ষা ও তথ্য উপাত্ত সমুহ পর্যালোচনা করে খুব শিঘ্রই প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা প্রদান করা হবে বলেও জানা গেছে।
এদিকে গত ২৪ ঘন্টায় দ্বীপজেলা ভোলার অবস্থাই ছিল সবচেয়ে ভয়াবহ। এসময় জেলাটিতে ৩৭৮ জনের ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হবার খবর দিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। এনিয়ে জেলাটিতে দক্ষিনাঞ্চলের সর্বোচ্চ ৯ হাজার ২৩ জনের ডায়রিয়া আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে। এরমধ্যে গত একমাসেই ৫,২৮৪ জন ডায়রিয়া আক্রান্ত হলেও এ জেলাটিতে এখন পর্যন্ত কোন মৃত্যু সংবাদ নেই।
পটুয়াখালীতে নতুন করে ২৯০ জন ডায়রিয়া আক্রান্তের সাথে একজনের মৃত্যুর কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। জেলাটিতে এপর্যন্ত ৮ হাজার ২৯০ জন আক্রান্তের সাথে ৫ জনের মৃত্যুর কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। বরেগুনাতেও গত ২৪ ঘন্টায় নতুনকরে ২৮২ জনের ডায়রিয়ায় অক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে। জেলাটিতে এ পর্যন্ত দুজনের মৃত্যুর সাথে ৫ হাজার ৩৪ জন আক্রান্ত বলে সরকারীভাবে বলা হয়েছে।
বরিশাল বিভাগীয় সদরেও গত ২৪ ঘন্টায় আরো ২১১ জন ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়েছে। মহানগরী ও সন্নিহিত এলাকার অবস্থাও যথেষ্ঠ খারাপ। নগরীর জেনারেল হাসপাতালের ৪ শয্যার ডায়রিয়া ওয়ার্ডে শুক্রবারেও রোগী ছিলেন ৪০-এর ওপরে। এখনো হাসপাতাল প্রাঙ্গনে তাবুর নিচে চিকিৎসা চলছে। স্বাস্থ্য বিভাগের পরিসংখ্যানে মহানগরী সহ বরিশাল জেলায় এ পর্যন্ত ডায়রিয়া আক্রান্তের সংখ্যা ৫ হাজারের কাছে। মৃত্যু হয়েছে ৫ জনের, যার সবই বাকেরগঞ্জ উপজেলার।
বরিশাল মহানগরীর সন্নিকটে ঝালকাঠী জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৩৫ জন বলে জানা গেছে। ছোট এ জেলাটিতে এ পর্যন্ত অক্রান্তের সংখ্যা ৪ হাজারের ওপরে। আর পিরোজপুর জেলাতেও এসময়ে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৪৬ জন। ফলে জেলাটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাড়িয়েছে প্রায় সাড়ে ৪ হাজারে।
স্বাস্থ্যবিভাগের পরিসংখ্যানে দক্ষিনাঞ্চলের ৬টি জেলার ৪২টি উপজেলার মধ্যে ১৮টিকে ডায়রিয়া উপদ্রুত বলা হলেও বাস্তবে ইতোমধ্যে সবগুলো উপজেলাতেই তা ছড়িয়ে পড়েছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ