Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ২৪ বৈশাখ ১৪২৮, ২৪ রমজান ১৪৪২ হিজরী

কক্সবাজারের ঈদগাঁওতে পুলিশের হাতে ঔষধ কোম্পানির এমআর নাজেহাল হওয়ার ভিডিও ভাইরাল

কক্সবাজার ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৩ এপ্রিল, ২০২১, ১০:১৬ পিএম

কক্সবাজারের ঈদগাঁওতে ঔষধ কোম্পানির এক প্রতিনিধিকে বিনাকারণে অশ্লীল ভাষায় নাজেহাল করার অভিযোগ উঠেছে। ঈদগাঁও থানার এএসআই রুহুল আমিন, ট্রাফিক পুলিশের সদস্য মুজিবুর রহমান ও অপর এক কনস্টবলের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করেন ঔষধ কোম্পানির এম আর রহমতুল্লাহ। ২২ এপ্রিল ঈদগাঁও বাসস্টেশনস্থ ডিসি সড়কের মাথায় এ ঘটনাটি ঘটে। ওই ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সর্বত্রে ধিক্কার, প্রতিবাদ ও ওই পুলিশ সদস্যদের প্রত্যাহারের দাবী উঠে।

ভুক্তভোগী রহমত উল্লাহ ঈদগাঁও মাইজপাড়া এলাকার বাসিন্দা এবং একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ঔষধ কোম্পানির প্রতিনিধি হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে কর্মরত রয়েছে।

তিনি জানান, প্রতিদিনের মতো স্বাস্থ্য বিধি এবং অন্যান্য নির্দেশনা মেনে মোটর সাইকেল যোগে বাজারের বিভিন্ন ফার্মেসীতে ঔষধের অর্ডার নিচ্ছিলেন। পথিমধ্যে বাসস্থানের ডিসি সড়কের সম্মুখে পৌঁছলে ঈদগাঁও থানার এএসআই রুহুল আমিন নামের এক অফিসার সংকেত দেয়। যথারীতি তাদের সম্মান দেখিয়ে কথা বলি।

ভিডিওটি পর্যালোচনা কর দেখা গেছে ট্রাফিক পুলিশের এক সদস্য এসে রহমত উল্লাহর গায়ে হাত তুলতে উদ্যত হন। এ সময় উভয় পক্ষে বাকবিতন্ডা হতে দেখা গেছে। কিছুক্ষণ পর এএসআই রুহুল আমিন এসে রহমত উল্লাহকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে দেখাযায়।
বেয়াদব ডেকে দাম্ভিকতা দেখায়।

এর পর ট্রাফিক পুলিশের কনস্টবল মুজিবুর রহমান এসে বাইকের চাবি ছিনিয়ে নিয়ে কাগজ পত্র দেখাতে বলেন। রহমত উল্লাহ প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র প্রদর্শন করার পরও এএসআই রুহুল আমিন অসৌজন্যমূলক আচরণ করতে দেখা গেছে।

এদিকে এ ঘটনায় প্রতিবাদ করেছেন ফারিয়ার নেতৃবৃন্দ। পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী হাতে লাঞ্ছিত, অপদস্থ হওয়া কাম্য নয় বলে তারা জানান।

এদিকে লকডাউনে বিনা কারণে কিছু কিছু জায়গায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে পথচারী, দোকানদার ও সাধারণ লোকজনের নাজেহাল হওয়ার বিষয়টি কাম্য নয় বলে জানিয়েছেন সচেতন মহল।



 

Show all comments
  • Md Armanul Hoque ২৪ এপ্রিল, ২০২১, ২:৫০ এএম says : 0
    পুলিশের অপেশাদারিত্বের প্রবণতা দিন দিন বেড়েই চলেছে।এটি এখন নিত্য দিনের ঘটনা।পুলিশের ক্ষমতাকে তারা নিজের ইগো সন্তুষ্টির জন্য ব্যবহার করছে হরহামেশাই।তাদের জবাবদিহিতা কম,কারণ তারা এখন সরকার রক্ষকূল, আইন রক্ষকূল নয়।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কক্সবাজার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ