Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১২ জুন ২০২১, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ৩০ শাওয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

এবার মিয়ানমারে একটি সেনা ঘাঁটি দখলে নিয়েছে বিদ্রোহীরা

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ এপ্রিল, ২০২১, ১১:২২ এএম

এবার থাইল্যান্ড সীমান্তে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর একটি ঘাঁটি দখলে নিয়েছে শক্তিশালী কারেন বিদ্রোহীরা। মঙ্গলবার সকালে পূর্বাঞ্চলীয় ওই ঘাঁটি দখলে নেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন বিদ্রোহীদের এক কর্মকর্তা। খবর এএফপি’র।

গত ১ ফেব্রুয়ারি বেসামরিক নেত্রী অং সান সু চিকে সরিয়ে সেনাবাহিনী ক্ষমতা দখল করলে অস্থিরতার মধ্যে পড়ে মিয়ানমার। অভ্যুত্থান বিরোধী বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়লে দমন-পীড়ন শুরু করে সেনাবাহিনী।

সেনা অভ্যুত্থান বিরোধী বিক্ষোভকারীরা সারাদেশে ব্যাপক সমর্থন পায়। কয়েক দশক ধরে স্বায়ত্তশাসনের দাবিতে সশস্ত্র লড়াই চালিয়ে আসা বিদ্রোহীরাও তাদের সমর্থন দেয়।

বিদ্রোহীদের মধ্যে অন্যতম হলো কারেন ন্যাশনাল ইউনিয়ন (কেএনইউ)। তারা গত কয়েক সপ্তাহ মিয়ানমারের পূর্বাঞ্চলীয় সীমান্তে সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়েছে।

কারেন রাজ্যের সালবিন নদীর কাছে মঙ্গলবার সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। নদীটি মিয়ানমার ও থাইল্যান্ডকে আলাদা করেছে। নদীর থাই অংশের বাসিন্দারা মিয়ানমার থেকে গুলি ও বিস্ফোরণের শব্দ শোনার কথা জানিয়েছে।

কেএনইউ’র বিদেশ বিষয়ক প্রধান পাদোহ শো থো নী এএফপি-কে বলেন, ‘আমাদের সেনারা বার্মিজ সামরিক ক্যাম্প দখলে নিয়েছেন।’

গত মাসে কারেন বিদ্রোহীরা একটি সামরিক ঘাঁটি দখলে নেয়। এর পর কয়েক দফা বিমান হামলা চালিয়ে এর জবাব দেয় জান্তা সরকার। গত ২০ বছরের মধ্যে কারেন রাজ্যে এই প্রথম বিমান হামলার ঘটনা ঘটলো।



 

Show all comments
  • Dadhack ২৭ এপ্রিল, ২০২১, ১২:২০ পিএম says : 0
    May Allah help Arakan army, karen army to occupy whole Mayanmer so that our beloved Rohingya muslim can go back to their mother land. Ameen
    Total Reply(0) Reply
  • হুমায়ূন কবির ২৭ এপ্রিল, ২০২১, ৪:৪২ পিএম says : 0
    শুনে খুব ভালো লাগলো
    Total Reply(0) Reply
  • ব্যারিস্টার সুমিত্রা চৌধুরী ২৭ এপ্রিল, ২০২১, ৪:৪০ পিএম says : 0
    রোহিঙ্গাদের ফেরানোর ব্যাপারে একটা পরিকল্পনা করা দরকার
    Total Reply(0) Reply
  • সাইফুল ইসলাম ২৭ এপ্রিল, ২০২১, ৪:৩৮ পিএম says : 0
    ওদের পতন অনিবার্য
    Total Reply(0) Reply
  • তাজউদ্দীন আহমদ ২৭ এপ্রিল, ২০২১, ৪:৪১ পিএম says : 0
    এসনাদের পতন হবে, কিন্তু রোহিঙ্গাদের কি হবে, সেটা নিয়ে ভাবাটা খুব জরুরী
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মিয়ানমার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ