Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ০১ আষাঢ় ১৪২৮, ০৩ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৮ এপ্রিল, ২০২১, ৮:৪৫ এএম

কথা কাটাকাটির জের ধরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়েছে। এতে চিকিৎসকসহ ৯ জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাতে কয়েক দফায় এ ঘটনা ঘটে। ক্যাম্পাসে মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ। চমেক ছাত্রলীগ, পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, ইফতার করার জন্য চমেকের সিএমসি ক্যাফেতে অবস্থান নেয় ছাত্রলীগের ২০-৩০ জনের একটি গ্রুপ। তারা নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ.জ.ম নাছির উদ্দীনের অনুসারী। মাগরিবের আজান দেওয়ার একটু আগে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের অনুসারী হিসেবে পরিচিত ছাত্রলীগের ১০-১৫ জনের আরেকটি গ্রুপ ক্যাফেতে প্রবেশ করে। এদের দেখে ‘ইয়ার্কি’ করে আগে থেকে অবস্থান নেওয়া ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। বিষয়টিকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটি শুরু করে দুই গ্রুপ। এক পর্যায়ে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে তারা। এ সময় নওফেল অনুসারী হিসেবে পরিচিত তৌফিকুর রহমান নামে একজনকে মারধর করে নাছির অনুসারীরা। চমেক ইন্টার্ন ডক্টর্স এসোসিয়েশনের আহ্বায়ক নাছির অনুসারী ডা. ওসমান গণিকে হামলা করে আহত করে নওফেল অনুসারীরা। পরে নওফেল অনুসারীরা বেরিয়ে গোল চত্বরে অবস্থান নেয়।

এদিকে ইফতারের পর গোল চত্বর দিয়ে ক্যাম্পাসে আসছিল নাছির অনুসারী সাবেক সভাপতি ডা. ওয়াসিম রানা। একা পেয়ে তার ওপর হামলা করে আহত করে নওফেল অনুসারীরা। খবর পেয়ে নাছির অনুসারীরা ধাওয়া করে নওফেল অনুসারীদের। এ সময় দুই পক্ষে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয় । এতে আতংক ছড়িয়ে পরে পুরো ক্যাম্পাসে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে পাঁচলাইশ থানা পুলিশ। নওফেল অনুসারী হিসেবে পরিচিত ছাত্রলীগের ৭ কর্মী হাসপাতালে ভর্তি হয়। তাদের দাবি, নাছির অনুসারীদের হামলায় তারা আহত হয়েছেন। এরা হচ্ছেন অভিজিৎ, জয়, বোখারী, আরাফ, তৌফিক, দিপ্ত ও আতাউল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সংঘর্ষ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ