Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১২ জুন ২০২১, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ৩০ শাওয়াল ১৪৪২ হিজরী

ধর্ষণের অভিযোগে মামুনুলের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় স্ত্রীর মামলা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ এপ্রিল, ২০২১, ১১:৪১ এএম

হেফাজতে ইসলামের নেতা মামুনুল হকের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন তার দাবি করা দ্বিতীয় স্ত্রী জান্নাত আরা ঝর্ণা। আজ শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থানায় মামলাটি করেন তিনি।

সোনারগাঁ থানা পুলিশ সূত্র জানায়, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে মামলাটি করা হয়েছে। মামলার নম্বর ৩০।
নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, মামুনুল হকের সঙ্গে রয়াল রিসোর্টে যে নারী ছিলেন, তিনি আজ সকালে মামুনুলের বিরুদ্ধে মামলাটি করেছেন। নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলাটি করা হয়। তদন্ত স্বাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা দেওয়া হবে।

জানা যায়, মামুনুল হক দ্বিতীয় স্ত্রী দাবি করলেও দায়ের করা মামলায় জান্নাত নিজেকে মামুনুল হকের স্ত্রী বলেননি। তিনি বলেছেন, ‘অসহায়ত্ব ও বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মামুনুল হক আমার সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করেছেন। কিন্তু বিয়ের কথা বললে মামুনুল করছি, করব বলে সময়ক্ষেপণ করতে থাকেন। ২০১৮ সাল থেকেই ঘোরাঘুরির কথা বলে মামুনুল বিভিন্ন হোটেল, রিসোর্টে আমাকে নিয়ে যান।’



 

Show all comments
  • Monjur Rashed ৩০ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০১ পিএম says : 0
    Political career of Mamunul Hoque will certainly be destroyed. His blind supporters will also suffer.
    Total Reply(0) Reply
  • Habibur Rahman ৩০ এপ্রিল, ২০২১, ৩:০১ পিএম says : 0
    বোঝাই যায় যে এগুলো সাজানো নাটক! ????
    Total Reply(0) Reply
  • ইকরাম ৩০ এপ্রিল, ২০২১, ১:৩৭ পিএম says : 0
    মামুনুল বা তার পরিবারের যে কোন প্রকার ছবি দেখতে চাই না,
    Total Reply(0) Reply
  • Tareq Sabur ৩০ এপ্রিল, ২০২১, ২:০৯ পিএম says : 0
    এই মামলা তো মনে হয় পুলিশ.. করেছে। এই মামলা হতে পারে অবৈধ সরকার কতৃক মামুনুল হকের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অংশ।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Kowsar ৩০ এপ্রিল, ২০২১, ২:৫০ পিএম says : 1
    এ সংবাদ যদি ষড়যন্ত্র না হয়, দ্বিতীয় স্ত্রী পুলিশ কতৃক প্রভাবিত না হয়, একজন এতবড় আলেম ও বাংলাদেশের আগামী ইসলামী নেতার জিনা করার ঘটনা সত্যি হলে আমি সত্যিই খুব কষ্ট পাব। কিন্তু বাস্তবতা পর্যালোচনা ও আমার সামান্য জ্ঞান ও থিসিস বলছে এগুলো সরকারের মঞ্চায়িত নাটক। আল্লামা মামুনুল হক সাহেব দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন কাবিন নামা ছাড়া এবং মোটামুটি গোপনীয় ছিল এতটুকু সত্য, তার প্রথম স্ত্রী ছাড়া তার বন্ধু বান্ধব ও তার ভাইয়েরা জানতেন, গোয়েন্দা সংস্থা অনেকদিন ধরে তার উপর নজর রাখতে ছিল তার সাম্প্রতিক ভাস্কর্য বিরোধী বক্তব্য রাখার জন্য এবং মুূদি আসার আগের হেফাজতের আন্দোলনের নেতৃত্ব উনি দেন, পারলে তাকে গুম করত কিন্তু তিনি ও হেফাজত পরোক্ষভাবে আওয়ামী সমর্থন কারী শুধু ভাস্কর্য, রাসুল ( সাঃ) এর অবমাননা ও মুদি বিরোধী বক্তব্য রাখার জন্য ভারতীয় র গোয়েন্দা সংস্থা উনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের জাল বিছিয়ে রাখে, ৭ দিনের রিমান্ড শেষে তেমন বড় কিছু বের করতে না পেরে নতুন নাটক দ্বিতীয় স্ত্রী কর্তৃক ধর্ষণের মামলা করায়। সবকিছুই পরিকল্পনা মাফিক হচ্ছে। সামনে আরও কি করতে পারে সচেতন বিবেকবান মানুষ অনুমান করতে পারে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মামলা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ