Inqilab Logo

রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০১ কার্তিক ১৪২৮, ০৯ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

বাঙালি জিতিয়া প্রমাণ করিল, বাঙালি শ্রেষ্ঠ প্রজাতি : নচিকেতা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ মে, ২০২১, ৫:৫১ পিএম

এবার পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনের ফল নিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যমে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী নচিকেতা চক্রবর্তী। তিনি বলেন, বাঙালিরা ফের প্রমাণ করল যে, টাকা দিয়ে তাদের কেনা যায় না। দু’চারটা গাধা কেনা যায় হয়তো। তবে ও সব গুনতিতে আসবে না। তিনি বলেন, বাঙালি জিতিয়া প্রমাণ করিল, বাঙালি শ্রেষ্ঠ প্রজাতি। -আনন্দবাজার পত্রিকা

তিনি আরও জানান, ‘আজ বাঙালির জয়ের দিন। বাঙালির আত্মশ্লাঘার দিন। কোনো এক মনীষী বলেছিলেন, বাংলা আজ যেটা ভাবে, ভারত সেটা ভাবে পরশু। বাঙালিদের এই অহঙ্কারের জায়গাটা একটা সময় পর্যন্ত ছিল। তবে ইদানীং আমরা যেন নিজেদের বাঙালি ভাবতে লজ্জা পাচ্ছিলাম। এখনও প্রচুর মানুষ আছেন, যারা ইংরেজিতে কথা বলতে ভালবাসেন। হিন্দিতেও।

কিন্তু আজ একটা বিষয় প্রমাণিত হয়ে গেল, যে দলটা প্রায় গোটা ভারতকে মুঠোয় নিয়ে ফেলেছে, বাংলাকে তারা কব্জা করতে পারল না। এটা আক্ষরিক অর্থেই আমাদের অর্থাৎ বাঙালিদের জয়। নচিকেতা বলেন, সবাই বলেছিল, এ রাজ্যে বর্তমান সরকার আর টিকবে না। শাসকদলকে পাততাড়ি গুটিয়ে ঘরে ঢুকে যেতে হবে। কিন্তু সেই বাঙালিই জেতাল। আমরা প্রমাণ করে দিয়েছি, আমরা অনেকের থেকে অনেক গুণ এগিয়ে। জনপ্রিয় এই গায়ক আরও বলেন, হুইল চেয়ারে বসে এক জন ভদ্রমহিলা গোটা রাজ্য ঘুরলেন। সাধারণ মানুষের সুখ-দুঃখের পাশে থাকার চেষ্টা করলেন। উন্নয়নের কথা বললেন। আর ভারত-কব্জা করা একটা দল দিল্লি-বাংলা যাতায়াতেই প্রায় ৩০০ কোটি টাকা (রুপি) খরচ করে ফেলল।

তিনি বলেন, গোটা ভোটপর্বের জন্য খরচ শুনেছিলাম প্রায় ২৫ হাজার কোটি টাকা! এই টাকা দিয়ে বাঙালিকে কেনা যায় না। দু’চারটে গাধা কেনা যায় হয়তো। কারণ, শয়তান তো চিরকালই থাকে। ও সব গুনতিতে আসবে না। আসলে বাঙালিকে আহ্বান জানিয়েছে একটি বাঙালি মন। আর সেই আহ্বানে সাড়া দিয়ে আমরা প্রমাণ করলাম, আমরা বাঙালি। সদর্পে ওই দলকে জানিয়ে দেওয়া গেল— বাংলাটা এখনও গুজরাট হয়ে যায়নি।



 

Show all comments
  • প্রবাসী-একজন ২ মে, ২০২১, ১০:৫৫ পিএম says : 0
    ভারতের বাঙালিরা মোদির গুষ্টিকে নির্বাচনে লাথি মারলো, আর বাংলাদেশের কিছু বাঙালি মোদিকে আপ্পায়ন করে ধন্য হলো। নচিকেতাকে ধন্যবাদ ; তার বক্তব্যে মোদির পদলেহনকারীদের পরিচয় সুস্পষ্ট হয়ে উঠেছে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পশ্চিম বঙ্গ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ