Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

তৃণমূলের জয়ে খুশি মিমি, দেব, নুসরাত

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ মে, ২০২১, ১২:৫৯ পিএম

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ৩ বিশ্বস্ত সৈনিক দেব, মিমি, নুসরাত। বিধানসভা নির্বাচনে তারা নিজেরা প্রার্থী ছিলেন না বটে, কিন্তু দলকে জেতাতে ঝাঁপিয়েছিলেন। তাই তৃণমূলের জয়ে তিনজনেই খুব খুশি। পরিশ্রমের ফল ফলেছে, স্বাভাবিক ভাবেই একটা তৃপ্তির বোধ কাজ করেছে তিন তারকার মধ্যে।

দেব জানান, ‘২০১৯-এর লোকসভা ভোটের সময়ে এত জনসমাগম দেখিনি, যা এবারের বিধানসভায় দেখেছি। প্রচার চলাকালীন কোভিডের প্রকোপ বাড়ায় প্রকাশ্য সভায় দাঁড়িয়ে মানুষকে মাস্ক পড়তে বলেছি। এমনকি এটাও বলেছি যে, বাড়ি থেকে বেরোবেন না। যাকে খুশি ভোট দিন। আমাদের দলের এই অ্যাপ্রোচ মানুষের পছন্দ হয়েছে, তারা বুঝেছেন আমরা তাদের পাশে আছি’।

তৃণমূলের জয় ২০০ পার করা মাত্রই টুইট করলেন মিমি চক্রবর্তী, যাদবপুরের সাংসদ। লিখলেন ‘অপরাজিত’। উৎসাহিত মিমি আরো জানিয়েছেন, ‘বাংলা আজ যা করে, ভারত আগামিকাল তা ভাবে’। নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সুরে সুর মিলিয়েই মিমির এই উচ্ছ্বাস প্রকাশ।

নুসরাত রবিবার সকালে টুইটে লেখেন, ‘খেলা হয়েছে, জেতা হচ্ছে’। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের জেতার সম্ভাবনা স্পষ্ট হওয়া মাত্রই হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে লেখেন টিএমসি করবে ২০০ পার।

উল্লেখ্য বিধানসভা নির্বাচনের প্রচার প্ল্যানিংয়ে প্রথমদিনেই বড় দায়িত্ব দেওয়া হয় দলের ৩ তারকা প্রার্থী দেব, মিমি, নুসরাতকে। ৩ জনেই তড়িঘড়ি তাদের শুটিংয়ের কাজ সেরে মন দেন প্রচারের কাজে। টলিউডের অন্দরে কান পাতলে শোনা যেত, ৩ তারকার সম্পর্ক নাকি ততটা ভাল নয়।

এবারের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের প্রচারে ৩ তারকার পরিশ্রম এবং সব স্পেকুলেশন উড়িয়ে বিরাট ব্যবধানে তৃণমূলের জয় কি আবার পুরনো বন্ধুত্বে ফেরাবে দেব-মিমি-নুসরতকে?



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তৃণমূল


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ