Inqilab Logo

শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ আশ্বিন ১৪২৮, ১৭ সফর ১৪৪৩ হিজরী

নির্মাণ স্কুল ক্রিকেটের কে জেড ইসলাম আর নেই

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ মে, ২০২১, ৮:০৯ পিএম

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সাবেক সভাপতি, নির্মাণ স্কুল ক্রিকেটের প্রবর্তক ও নির্মাণ ইন্টারন্যাশনালের চেয়ারম্যান প্রখ্যাত ক্রিকেট সংগঠক কামাল জিয়াউল ইসলাম (কে জেড ইসলাম) আর নেই। সোমবার বিকাল ৩টা ৫৫ মিনিটে নিজ বাসভবনে বার্ধক্য জনিত কারণে ইন্তেকাল করেন তিনি। ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাহি রাজিউন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর।

পেশায় চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট কে জেড ইসলাম ১৯৭৮ সালে আজাদ বয়েজ ক্লাবের সভাপতির দায়িত্ব পান। ১৯৮১-৮২ মৌসুমে তিনি তৎকালীন বাংলাদেশ ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিবি) সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছিলেন। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থার সভাপতি হিসেবে কে জেড ইসলাম দায়িত্ব পান ১৯৮৩ সালের ৩০ জানুয়ারি। ১৯৮৭ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দীর্ঘ সাত বছর তিনি বিসিবির সভাপতি হিসেবে নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেন। কে জেড ইসলাম ছিলেন বিসিবির চতুর্থ সভাপতি। তার মেয়াদেই ১৯৮৬ সালের এশিয়া কাপের মাধ্যমে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচখেলার কৃতিত্ব অর্জন করে। ঘরোয়া সর্বোচ্চ আসর প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগের সূচনাও হয় তার হাত ধরেই। ক্রীড়াক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য ২০০১ সালে জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার পান মরহুম কে জেড ইসলাম। তার হাত ধরেই বাংলাদেশে প্রবর্তিত হয়েছে স্কুল ক্রিকেটের। নিজ ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠান ‘নির্মাণ’-এর পৃষ্ঠপোষকতায় স্কুল ক্রিকেট চালু করে পর্যায়ক্রমে তিনি তা ছড়িয়ে দিয়েছিলেন সারাদেশে। আমিনুল ইসলাম বুলবুল, খালেদ মাহমুদ সুজনসহ এক সময় দেশের প্রায় সব শীর্ষ ক্রিকেটারের প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে হাতেখড়ি ছিল নির্মাণ স্কুল ক্রিকেট দিয়ে। বাংলাদেশের ক্রিকেট উন্নয়নে কে জেড ইসলামের অবদান উল্লেখ করার মতো। তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি), বাংলাদেশ স্পোর্টস জার্নালিস্টস কমিউনিটি (বিএসজেসি), বাংলাদেশ স্পোর্টস জার্নালিস্টস অ্যাসোসিয়েশন (বিএসজেএ) ও বাংলাদেশ স্পোর্টস প্রেস অ্যাসোসিয়েশন (বিএসপিএ)সহ বিভিন্ন ক্রীড়া সংগঠন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন