Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১২ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৬ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

ব্রাদার্সের বিপক্ষে বড় জয় আবাহনীর

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৪ মে, ২০২১, ৭:৫৯ পিএম

আগের ম্যাচে বাংলাদেশ পুলিশ ফুটবল ক্লাবের বিপক্ষে ড্র করে হতাশায় পুড়লেও পরের ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়িয়েছে ঢাকা আবাহনী লিমিটেড। ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দ্বিতীয় লেগে ব্রাদার্স ইউনিয়ন ক্লাবের বিপক্ষে বড় জয় পেয়েছে আবাহনী।

মঙ্গলবার বিকালে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে দিনের প্রথম ম্যাচে তারা ৫-২ গোলে বিধ্বস্ত করে গোপীবাগের দলকে। এ ম্যাচে মাঠে ফিরেই চমক দেখালেন আবাহনীর নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড সানডে সিজোবা। মধ্যবর্তী দলবদলে পুরনো নাইজেরিয়ান এই গোল মেশিনকে দলে টেনেছে আবাহনী। আগের ম্যাচে পুলিশের বিপক্ষে এক গোল করলেও দলকে জেতাতে পারেননি সানডে। তবে মঙ্গলবার ব্রাদার্সের বিপক্ষে বেশ আগ্রাসীই মনে হলো তাকে। ম্যাচের ২২ মিনিটে সানডের গোলেই এগিয়ে যায় আবাহনী। এসময় ব্রাদার্সের সীমানায় জটলার মধ্যে বল পেয়ে ব্যাক হেড করেন আবাহনীর হাইতিয়ান ফরোয়ার্ড বেলফোর্ট কারভেন্স। তার হেডের বল বক্সের ভেতরে আনমার্কডে থাকা সানডে চিজোবার পায়ে পড়লে তিনি দারুণ শটে গোল করেন (১-০)।

৪০ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে আবাহনী। রায়হানের লম্বা থ্রোয়ে বল পড়ে ব্রাদার্সের বক্সে। আফগান ডিফেন্ডার মাসিহ সাইঘানি লাফিয়ে ওঠে ব্যাক হেড করেন। পেছন থেকে দৌড়ে এসে ফের জোরালো হেড করে বল জালে জড়ান আরেক ডিফেন্ডার নাসির উদ্দিন চৌধুরী (২-০)। মিনিট চারেক পর ব্রাদার্সের জালে তৃতীয়বার বল জড়ান আবাহনীর মিডফিল্ডার জুয়েল রানা। ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার রাফায়েল অগাস্তো দা সিলভা কর্নার কিক নেন। বক্সের ভেতরে দাড়ানো বেলফোর্ট হেড করেন। জালে প্রবেশের মুহূর্তে বলে হাত লাগিয়ে রুখে দেন ব্রাদার্সের গোলরক্ষক জাফর সরদার। কিন্তু তাতেও শেষরক্ষা হয়নি। বল ফস্কে যায় তার হাত থেকে। সেই বল আলতো করে বাঁ পায়ে ঠেলে জালে জড়ান জুয়েল রানা (৩-০)। সতীর্থদের দিয়ে গোল করানোর পর এবার নিজেই গোলের দেখা পান হাইতিয়ান ফরোয়ার্ড বেলফোর্ট। ৬২ মিনিটে সানডের বাড়ানো বলে দুর্দান্ত এক শটে গোল করেন তিনি (৪-০)।

৭৭ মিনিটে একটি গোল শোধ দেয় ব্রাদার্স। বক্সের ভেতরে প্রবেশ করেই জোড়ালো শটে আবাহনীর গোলরক্ষক সুলতান আহমেদ শাকিলকে পরাস্ত করেন নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড আওয়ালা মাগালান (১-৪)। মিনিট চারেক পর একক প্রচেষ্টায় বল নিয়ে ব্রাদার্সের সীমানায় ঢুকে গোল করে ব্যবধান বাড়ান আবাহনীর রুবেল মিয়া (৫-১)। ম্যাচের অন্তিম সময়ে পেনাল্টি থেকে নিজের ও দলের দ্বিতীয় গোলটি করেন ব্রাদার্সের নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড আওয়ালা মাগালা (২-৫)। এই গোলের সঙ্গে সঙ্গে ম্যাচের শেষ বাশি বাজান রেফারি জিএম চৌধুরী নয়ন। ম্যাচ জিতে ১৪ খেলায় আট জয়, পাঁচ ড্র ও এক হারে ২৯ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার তৃতীয়স্থানে আবাহনী। সমান ম্যাচে মাত্র এক জয়, দুই ড্র ও এগারো হারে ৫ পয়েন্ট পাওয়া ব্রাদার্সের অবস্থান ১২তমস্থানে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফুটবল

১৫ জুলাই, ২০২১
১৩ জুলাই, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন