Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৩ কার্তিক ১৪২৮, ১১ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

চাকরি করা হলো না জবি শিক্ষার্থীর

মাদারীপুরের ট্র্যাজেডি

স্টাফ রিপোর্টার, মাদারীপুর থেকে : | প্রকাশের সময় : ৬ মে, ২০২১, ১২:০১ এএম

মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়ায় গত সোমবার সকাল পৌনে ৭টায় স্পিডবোট দুর্ঘটনায় নিহত হন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী শাহাদাত হোসেন মোল্লা (২৯)। মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ী বাংলাবাজার পুরনো ঘাটে থেমে থাকা বালুবোঝাই একটি বাল্কহেডে ধাক্কা দিয়ে ডুবে যায় স্পিডবোটটি। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পদ্মাপারে একা একা বসে কাঁদছিলেন নিহত শাহাদাত হোসেন মোল্লার বড়ভাই শহিদুল। তাকে সান্ত¡না দেয়ার কেউ নেই। স্বজন হারানোর কান্না থামছেই না। কাঁঠালবাড়ীর বাংলাবাজার পুরনো ঘাটে বালুবোঝাই একটি বাল্কহেডে ধাক্কা দিয়ে স্পিডবোট ডুবিতে তার ভাই শাহাদাত প্রাণ হারিয়েছেন। তার বাড়ি মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার নিয়ামতকান্দী গ্রামে। আদম আলী মোল্লা ও রিজিয়া বেগম দম্পতির ছয় ছেলে ও চার মেয়ের মধ্যে সবার ছোট ছিলেন শাহাদাত। তিনি এ বছর জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স পাস করেন। শাহাদাতের আরেক বড়ভাই সিরাজুল ইসলাম বলেন, এ বছর জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স পাস করেন শাহাদাত। চাকরির ইন্টারভিউ দিতে ঢাকা যান। ইন্টারভিউ শেষে বাড়ি ফিরছিলেন। লাশ হয়ে তাকে ফিরতে হলো। আর চাকরি করা হলো না শাহাদাতের। উল্লেখ্য, মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া থেকে সোমবার সকাল পৌনে ৭টায় ৩২ জন যাত্রী নিয়ে স্পিডবোটটি ছেড়ে আসে। এ সময় মাদারীপুর কাঁঠালবাড়ী বাংলাবাজার পুরনো ঘাটে থেমে থাকা বালুবোঝাই একটি বাল্কহেডে ধাক্কা দিয়ে ডুবে যায় স্পিডবোটটি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মাদারীপুর ট্র্যাজেডি
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ