Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ০২ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

ইজরাইলে সরকার গঠনের দায়িত্ব পেলেন বিরোধী নেতা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ মে, ২০২১, ৩:০৩ পিএম | আপডেট : ৫:০৫ পিএম, ৭ মে, ২০২১

বুধবারই স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল, এ বারের মতো সরকার গঠনে ব্যর্থ ইজরাইলের সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ী প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। এই পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার বিরোধী নেতা ইয়ের লাপিডের হাতে নতুন সুযোগ তুলে দিলেন ইজরাইলের প্রেসিডেন্ট রিউভেন রিভলিন। নেতানিয়াহুর মতোই জোট সরকার গড়তে ২৮ দিন সময় দেয়া হয়েছে ৫৭ বছরের সাবেক টিভি অ্যাঙ্কর লাপিডকে। কারণ, নেতানিয়াহুর ‘লিকুড পার্টি’র পরে লাপিডের দলই পার্লামেন্টে সবচেয়ে বেশি আসন পেয়েছে।

১২০ আসনের ইজরাইলি পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে গেলে ৬১টি আসন পেতে হত নেতানিয়াহুর দল ‘লিকুড পার্টি’কে। কিন্তু গত মার্চের ভোটে ৩০টি আসন পেয়েছে নেতানিয়াহুর দল। এ দিন সকালে নিজের বাসভবনে লাপিড ও আর এক বিরোধী নেতা নাফতালি বেনেটের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রেসিডেন্ট। পরে তিনি জানান, লাপিডের নেতৃত্বেই জোট সরকার গঠনের সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি বলে মনে করেন তিনি। বিকেলে বাকি রাজনৈতিক দলগুলির সঙ্গেও আলোচনায় বসেন প্রেসিডেন্ট।

প্রেসিডেন্ট আরও জানিয়েছেন, একগুচ্ছ দুর্নীতিতে অভিযুক্ত নেতানিয়াহুকে প্রথমে সরকার গঠনের দায়িত্ব দেয়ার কোনও ইচ্ছে তার ছিল না। কিন্তু সেই সময়ে পার্লামেন্টের ৫৬ জন সদস্য নেতানিয়াহুর পক্ষে সওয়াল করেন। লাপিড তখন পেয়েছিলেন ৪৫টি ভোট। তাই সবার আগে সরকার গঠনের দায়িত্ব পড়েছিল নেতানিয়াহুর কাঁধেই। তবে গোটা ব্যর্থতাই বেনেটের উপরে ঠেলেছেন ‘লিকুড পার্টি’র সদস্যেরা। তাদের দাবি, বেনেট বেঁকে না-বসলে এত দিনে নেতানিয়াহুর নেতৃত্বে জোট সরকার গঠন হয়ে যেত ইজরাইলে।

লাপিডের দল ‘ইয়েশ আতিড পার্টি’র ৫৬ জন সদস্য ও বেনেটের দল ‘ইয়ামিনা পার্টি’র সাত জন সদস্য দ্বিতীয় বারের জন্য নিজেদের সুপারিশ প্রেসিডেন্টের কাছে জমা করেছেন। দেশের প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর ‘দ্য ব্লু অ্যান্ড হোয়াইট পার্টি’ ইতিমধ্যেই লাপিডকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মেনে নিয়েছে। আগামী ২৮ দিনে এই বিরোধী নেতা জোট সরকার গড়তে বাকি দলগুলিকে রাজি করাতে পারেন কি না, সেটাই দেখার। তত দিন পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেশের কার্যভার সামলাবেন নেতানিয়াহু। সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইসরাইল


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ