Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ০১ আষাঢ় ১৪২৮, ০৩ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর আরেক ঘাঁটির দখল নিল কারেন বিদ্রোহীরা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ মে, ২০২১, ১:১০ পিএম

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর আরেক ঘাঁটির দখল নিয়েছে কারেন বিদ্রোহীরা। এরপর সেটি জ্বালিয়ে দিয়েছে তারা। দুই সপ্তাহ আগে বার্মিজ সেনার একটি ঘাঁটি দখলে নেয়ার খবর প্রকাশিত হয়েছিল।

জানা গিয়েছে, শুক্রবার মায়ানমার-থাইল্যান্ড সীমান্তে সালউইন নদীর কাছে টাটমাদাও বা বার্মিজ সেনাবাহিনীর একটি ঘাঁটিতে হামলা চালায় বিদ্রোহী সংগঠন ‘কারেন ন্যাশনাল ইউনিয়ন’ এর সামরিক শাখা ‘কারেন ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মি’। কয়েক রাউন্ড গুলি চলার পর প্রায় বিনাযুদ্ধে সেনা শিবিরটি দখল করে জ্বালিয়ে দেয় তারা। খবর ইয়াহু নিউজের
ফেব্রুয়ারি মাসে সেনা অভ্যুত্থানের পর থেকেই মায়ানমারের পরিস্থিতি ক্রমশ জটিল হয়ে উঠছে। গণতন্ত্রকামীদের প্রবল বিক্ষোভের পর আরও সক্রিয় হয়েছে বিদ্রোহীরা। সামরিক জান্তার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ লড়াইয়ের ডাক দিয়েছে বেশ কয়েকটি বিদ্রোহী সংগঠন।
মায়ানমারের কারেন প্রদেশে দীর্ঘদিন ধরেই স্বশাসনের দাবি জোরাল হচ্ছে। গততান্ত্রিক পদ্ধতিতে আং সান সু চির সরকার ক্ষমতায় আসার পর আলোচনার টেবিলে এসেছিল সংগঠনটি। কিন্তু সেনা অভ্যুত্থাননের পর আলোচনা ভেস্তে যায়। কারেন বিদ্রোহীদের ওপর লাগাতার বিমান হামলা চালাচ্ছে বার্মিজ সেনা। গত ১লা ফেব্রুয়ারি নির্বাচিত সরকারকে হটিয়ে ক্ষমতা দখল করে সেনাবাহিনী। শীর্ষ রাজনীতিকদের আটক করা হয়। এরপরই দেশজুড়ে প্রবল বিক্ষোভ শুরু করেছে গণতন্ত্রপন্থীরা। এখন পর্যন্ত নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে প্রায় আট শত বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন। গ্রেপ্তার হয়েছে হাজার হাজার গণতন্ত্রপন্থী। মিয়ানমারে গৃহযুদ্ধের আশঙ্কা করছেন বিশ্লেষকরা।



 

Show all comments
  • Jahangir Alam ৮ মে, ২০২১, ৬:১০ পিএম says : 0
    কারেন বিদ্রোহী কারা
    Total Reply(0) Reply
  • Zia Uddin ৮ মে, ২০২১, ৬:১০ পিএম says : 0
    মনে হয় মিয়ানমার আরেকটি সিরিয়া হতে যাচ্ছে
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammad Ali Rifae ৮ মে, ২০২১, ৬:১১ পিএম says : 0
    অনেকেই এই খবরে উল্লেসিত হলেও আমি তা হতে পারছি না বাস্তবিক কারনেই। কারন কারেন বিদ্রোহীরা যতো হামলায় করুক না কেন সেনাবাহিনীর সাথে তারা পেরে উঠবেনা কেননা মিয়ানমার পূর্ণ সামরিক সহযোগিতা পাবে চীনের কাছ থেকে। আদতে সামরিক জান্তাকে হটাতে পারে এক এবং এক মাত্র মিয়ানমারের সাধারণ জনগণই । যদি না তাদের অনমনীয় আন্দোলন অব্যাহত থাকে।
    Total Reply(0) Reply
  • Dadhack ৮ মে, ২০২১, ৪:২১ পিএম says : 0
    May Allah help Karen and Arakan Army to capture whole Mayanmar so that people will be able to live in peace and also Rohingya Muslim will go back to their mother land. Ameen
    Total Reply(0) Reply
  • Dorpone Mukh ৮ মে, ২০২১, ৬:১২ পিএম says : 0
    কারেনদের সাথে রোহিঙ্গারা যোগদিয়ে রোহিঙ্গারা তাদের ভূমি উদ্ধার করতে পারে। পরাজিত করতে বৃহত্তর শক্তির প্রয়োজন।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Nur Alam ৮ মে, ২০২১, ৬:১৩ পিএম says : 0
    একসময় এই সেনাবাহিনীর সাথে এক জোট হয়ে রোহিঙ্গা মুসলিম নিধনে নেমেছিলো বার্মিসরা আর এখন সেই একই কায়দায় পেদানি খাচ্ছে । অন্যায় কে পশ্রয় দিলে একদিন নিজেকেও অত্যাচারিত হতে হয়
    Total Reply(0) Reply
  • Iqbal Al Shafi ৮ মে, ২০২১, ৬:১৩ পিএম says : 0
    আল্লাহ মজলুম আরাকানিদের জুলুমের অবশ্যই বদলা নিবেন।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ