Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ০২ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

আলফাজে মোহামেডানের হ্যাটট্রিক

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ মে, ২০২১, ১২:০৩ এএম

ঘরোয়া ফুটবলের মর্যাদার আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দ্বিতীয় লেগে টানা তৃতীয় জয়ের দেখা পেল ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড। গতকাল বিকালে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত দিনের প্রথম ম্যাচে মোহামেডান ১-০ গোলে হারায় শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রকে। বিজয়ী দলের হয়ে একমাত্র জয়সূচক গোলটি করেন বুরকিনাফাসোর ডিফেন্ডার মনজির কুলদিয়াতি।

বিপিএলের দ্বিতীয় পর্বে দারুণ ছন্দে রয়েছে সাদাকালোরা। এই পর্বের প্রথম ম্যাচে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘকে হারানোর পর দ্বিতীয় ম্যাচে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে জয় তুলে নিয়েছিল মোহামেডান। তৃতীয় ম্যাচে এবার শেখ রাসেলকে কুপোকাত করলো তারা। দলে তারকা ফুটবলার নেই বললেই চলে। ডাগ আউটে নেই দলের প্রধান কোচ ব্রিটিশ বংশোদ্ভুত অস্ট্রেলিয়ান শন লেন। তারপরও লিগের দ্বিতীয় পর্বে সাবেক ফুটবলার ও কোচ আলফাজ আহমেদের তত্বাবধানে দারুণভাবে এগিয়ে চলেছে মোহামেডান। একে একে তারা জিতে নিলো তিন ম্যাচ। গতকাল বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে রাসেলের বিপক্ষে ছিল মোহামেডানেরই আধিপত্য। শুরু থেকেই তারা গোলের জন্য মরিয়া হয়ে লড়ে। তবে খেলায় ধারার বিপরীতে ম্যাচের ১৬ মিনিটে গোলের সুযোগ পায় রাসেলই। এসময় বক্সের প্রায় দশ গজ দূর থেকে শেখ রাসেলের বখতিয়ার দুশভেকবের ফ্রি কিক বক্সে ক্লিয়ার করেন মোহামেডানের গোলরক্ষক মো. হোসেন সুজান। মিনিট দুয়েক পর ডান প্রান্ত দিয়ে কর্ণার করেন বখতিয়ার। কিন্তু এবারও সুযোগ কাজে লাগাতে পারেনি সাইফুল বারি টিটুর শিষ্যরা। ২১মিনিটে ডান প্রান্ত থেকে হাবিবুর রহমান সোহাগের ফ্রি কিক জটলার মধ্যে ক্লিয়ার করেন রাসেলের ডিফেন্ডাররা। ৩৭ মিনিটে এগিয়ে যায় মোহামেডান। হাবিবুর রহমান সোহাগের নিখুত কর্ণারে বল বক্সে পেয়ে দুর্দান্ত হেডে গোল করেন বুরকিনাফাসোর ডিফেন্ডার মনজির কুলদিয়াতি (১-০)। তবে ৩৯ মিনিটে ম্যাচে ফেরার সুযোগ হাতছাড়া হয় শেখ রাসেলের। এসময় বক্সের ডান প্রান্ত দিয়ে জোড়ালো আক্রমণ করেন অবি মনেকে। কিন্তু তার শট ফিরিয়ে দেন সাদাকালোদের গোলরক্ষক। ফিরতি বলে পোস্ট লক্ষ্য করে শট নিতে যান বখতিয়ার। কিন্তু শট নেয়ার আগেই তাকে ফেলে দেন মোহামেডান অধিনায়ক জাপানী ওরিও নাগাতা। যে কারণে স্বাভাবিক শট নিতে পারেননি বখতিয়ার। এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় মোহামেডান।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ব্যবধান দ্বিগুণ করার সুযোগ হাতছাড়া করে মতিঝিলের দলটি। ম্যাচের ৪৬ মিনিটে বক্সের ডান প্রান্তে বল বাড়িয়ে দেন মোহামেডানের মালির ফরোয়ার্ড সুলেমানে দিয়াবাতে। পোস্ট ফাঁকা, বল জালে ঠেলে দিলেই হত। কিন্তু এমন একটা সুযোগও হেলায় হারালেন মোহামেডানের মিডফিল্ডার জাফর ইকবাল। তার বল মারে মাঠের বাইরে। ম্যাচের বাকি সময় আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে খেলা চললেও আর গোল হয়নি। ফলে শেষ পর্যন্ত একমাত্র গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে মোহামেডান।
১৫ ম্যাচে আট জয়, চার ড্র ও তিন হারে ২৮ পয়েন্ট নিয়ে তালিকায় চতুর্থস্থানে উঠে এলো মোহামেডান। সমান ম্যাচে আট জয়, দুই ড্র ও পাঁচ হারে ২৬ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চমস্থানে নেমে গেল শেখ রাসেল।
এক নজরে ফল
মোহামেডান ১-০ শেখ রাসেল



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মোহামেডানের হ্যাটট্রিক
আরও পড়ুন