Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯, ১০ মুহাররম ১৪৪৪ হিজরী

ক’ মিনিটের জন্য রক্ষা পেলেন সাকিব

প্রকাশের সময় : ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা : বড় ধরনের দুঃসংবাদ শুনতে হয়নি। মাত্র ক’মিনিটের জন্য বেঁচে গেছেন সাকিব। একটি মোবাইল হ্যান্ডসেট প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন চিত্রের শুটিংয়ে অংশ নিতে ঢাকা থেকে গতকাল সস্ত্রীক হেলিকপ্টারে উড়ে নিরাপদে শুটিং স্পটে নেমেছেন অল রাউন্ডার সাকিব। তবে সকাল ১১টার দিকে সাকিব আল হাসান ও তার সফরসঙ্গীদের ইনানি বিচের একটি হোটেলের কাছে নামিয়ে দেয়ার পর যান্ত্রিক ত্রæটির কারণে বেসরকারি ওই একটি বেসরকারি হেলিকপ্টারটি ফেরার পথে কক্সবাজারের উখিয়ার রেজু খালে বিধ্বস্ত হয়। ওই হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন একজন। যে বিজ্ঞাপনী সংস্থার হয়ে শুটিংয়ে অংশ নিতে সাকিব কক্সাজারে গিয়েছিলেন, সেই সংস্থার হিসাব বিভাগের কর্মী শাহ আলম নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন হেলিকপ্টারের পাইলট ও ক্রুসহ চারজন।
বিজ্ঞাপন চিত্রের শুটিং শেষ করে আজ বিকেলে স্ত্রী শিশিরকে সঙ্গে নিয়ে ঢাকায় ফেরার কথা সাকিবের। সাকিবের সঙ্গে কক্সবাজারে শুটিং করতে যাওয়া নাফিজ আহমেদ মোমেন একটি অনলাইনকে জানিয়েছেনÑ‘আমরা নিরাপদেই অবতরণ করেছি। আমাদের নামিয়ে দিয়ে সঙ্গে সঙ্গেই আরো ক’জন যাত্রী নিয়ে হেলিকপ্টারটি ফিরে যাচ্ছিল। হেলিকপ্টারের পাখা তখনো বন্ধই হয়নি। শুধু আমাদের নামিয়েছে আর ওদের তুলে নিয়েছে। এরপর কিছু দূর গিয়ে ইনানি সৈকতেই হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হয়।’ ঘটনাকে দুঃখজনক বলেছেন সাকিব, ‘আমি সুস্থ থাকলেও হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের ঘটনা শুনে বিস্মিত হয়েছি। ব্যাপারটি সত্যিই দুঃখজনক।’
বিসিবি’র কেন্দ্রিয় চুক্তিতে থাকা ক্রিকেটারদের বাণিজ্যিকভাবে বিজ্ঞাপন চিত্রের শুটিংয়ে অংশ নিতে অনুমতি নেয়া বাধ্যতামুলক। আফগানিস্তান এবং ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজকে সামনে রেখে কক্সবাজারে বিজ্ঞাপন চিত্রের শুটিংয়ে অংশ নিতে সাকিব বিসিবি’র অনুমতি নেননি বলে একটি অনলাইনকে জানিয়েছেন বিসিবি’র সিইও নিজাম উদ্দীন চৌধুরী সুজনÑ ‘ক্রিকেটাররা ছুটিতে আছে, বোর্ড বন্ধ। তাই না জানানোটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। তবে এসব ব্যাপারে এখন নজর দেওয়ার সময় এসেছে।ক্রিকেটাররা যাতে এসব ব্যাপারে আরও সতর্ক হয়, বিশেষ করে বিজ্ঞাপন চিত্রের জন্য ভ্রমণ বিষয়ে সতর্ক হওয়ার ব্যাপারে তাদের সঙ্গে আলোচনা করবো। আজ (গতকাল) যদি সাকিবের কিছু হতো তাহলে বিসিবি হয়তো দায় এড়াতে পারতো না। ক্রিকেটারদের ভুলে গেলে চলবে না যে তারা দেশের প্রতিনিধি ও সম্পদ। সাধারণ নিয়ম হলো বিসিবির আওতাধীন একজন ক্রিকেটার তার নিজস্ব কোনও চুক্তির অধীনে বিজ্ঞাপন বা অন্য কোনও প্রমোশনাল কর্মকাÐে জড়িত হলে তা বিসিবিকে জানাতে হবে। বিসিবি এক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রকের ভূমিকায় নয় বরং পর্যবেক্ষকের ভূমিকায় থাকবে, দেখবে এটি কোন পণ্যের বিজ্ঞাপন বা বিসিবির সঙ্গে কোনও ভাবে সাংঘর্ষিক কিনা।’
এর আগে বিসিবি’র অনুমতি না নিয়ে ২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত টি-২০ বিশ্বকাপ চলাকালে একটি মোবাইল ফোন প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন চিত্রে সাকিব অংশ নেয়ায় অর্থদÐ দিতে হয়েছে বিসিবিকে ! তারপরও অনুমতিহীন চলছে একটার পর একটা বিজ্ঞাপন চিত্রে অংশগ্রহণ তার!


 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ক’ মিনিটের জন্য রক্ষা পেলেন সাকিব
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ