Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৪ আষাঢ় ১৪২৮, ০৬ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

ইসরায়েলের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করতে হবে

বিভিন্ন ইসলামী দলের নেতৃবৃন্দ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ মে, ২০২১, ৯:২০ পিএম

জুলুমবাদ ইহুদিবাদী ইসরায়েলের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক ও সামরিক অবরোধ আরোপ করতে হবে। আল-আসকা মসজিদের নিরীহ নামাজরত মুসল্লিদের উপর বর্বরোচিত হামলা চালিয়ে ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ করছে ইসরায়েলী বাহিনী। মুসলমানদের প্রথম কেবলা আল-আকসায় নামাজরত মুসল্লিদের উপর ইসরায়েলী বাহিনীর বর্বরোচিত হামলার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়ে বিভিন্ন ইসলামী দলের নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন।

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ : মসজিদে আকসায় তারাবির নামাজরত মুসল্লিদের উপর জুলুমবাজ ইসরায়েলের অন্যায়ভাবে হামলা ও গুলিবর্ষণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ।

আজ বিবৃতিতে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শায়খুল হাদিস মাওলানা মনসুরুল হাসান রায়পুরী, নির্বাহী সভাপতি মাওলানা আব্দুর রহিম ইসলামাবাদী, সিনিয়র সহ-সভাপতি মাওলানা শেখ মুজিবুর রহমান, সহ-সভাপতি মাওলানা মাসউদ আহমদ, মহাসচিব শায়খুল হাদিস মাওলানা ড. গোলাম মহিউদ্দিন ইকরাম, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা আব্দুল মালিক চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা আব্দুল হক কাওছারী, সহকারী মহাসচিব মাওলানা রশিদ ওয়াক্কাস, সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি রেজাউল করিম, মাওলানা শামসুল আলম, মাওলানা আবু বকর সরকার, যুব জমিয়ত বাংলাদেশের সভাপতি মুফতি রেদওয়ানুল বারী সিরাজী, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আব্দুল হালিম বিন হারুন, ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশের সভাপতি সুহাইল আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন আল আদনান এই নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, মুসলিম বিশ্বের নীরবতার কারণে ইহুদিবাদী ইসরায়েলের আস্ফালন দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে। মুসলিমবিশ্বকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জুলুমবাজ ইসরায়েলকে শক্ত হাতে প্রতিরোধ করতে হবে।

বাংলাদেশ ইসলামিক পার্টি: পবিত্র আল আকসা মসজিদে মুসল্লিদের উপর ইসরাইলি বাহিনীর বর্বরোচিত হামলার নিন্দা জানিয়ে বাংলাদেশ ইসলামিক পার্টির চেয়ারম্যান আবু তাহের চৌধুরী, মহাসচিব মো. আবুল কাশেম এবং সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান মো. এজাজ হোসেন এক যৌথ বিবৃতিতে বলেন, পবিত্র জুমাতুল বিদার রাতে নামাজরত মুসল্লিদের উপর হামলা একটা নেক্কারজনক ঘটনা। এ হামলা বাংলাদেশসহ বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর হৃদয়ে আঘাত হেনেছে। প্রায় ২৯৫ জন মুসল্লি আহতের ঘটনায় প্রতিবাদ জানিয়ে নেতৃবৃন্দ অনতিবিলম্বে ফিলিস্তনিদের উপর ইসরায়েলী নির্যাতন বন্ধ ও দখলদারিত্বের অবসানের দাবি জানান।

এছাড়া এঘটনার জন্য ইসরায়েলের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের কার্যকরী পদক্ষেপ নেয়া দাবি জানান ইসলামিক পার্টির নেতৃবৃন্দ। মজলিসে ইত্তেহাদুল মুসলিমীন বাংলাদেশ: আল-আকসা মসজিদে নামাজরত মুসল্লিদের উপর ইহুদীবাদী ইসরায়েলী বাহিনীহর বর্বরোচিত হামলায় রক্তাক্ত ও আহত করার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে ফিলিস্তিনীদের উপর ইসরাইলী নির্যাতন বন্ধ ও দখলদারিত্ব অবসানের দাবি জানিয়েছে মজলিসে ইত্তেহাদুল মুসলিমীন বাংলাদেশ।আজ সোমবার এক বিবৃতিতে মজলিসে ইত্তেহাদুল মুসলিমীন বাংলাদেশর আমীর মাওলানা আব্দুল হামীদ পীর সাহেব মধুপুর বলেন, অবৈধ ইহুদীবাদী রাষ্ট্র ইসরায়েলের পুলিশবাহিনী গত শুক্রবার রাতে আল-আকসা মসজিদে নামাজরত মুসল্লিদের উপর গুলি, টিয়ারসেল, গ্রেনেড হামলা চালিয়ে প্রায় ২০০ মুসল্লিকে রক্তাক্ত ও আহত করেছে। রমজান মাসে আল-আকসা মসজিদে নামাজরত মুসল্লিদের উপর বর্বরোচিত হামলার ঘটনায় বিশ্ব মুসলিম চরমভাবে ব্যথিত ও ক্ষুব্ধ। অবিলম্বে ফিলিস্তিনী জনগনের উপর পরিচালিত ইসরায়েলী নৃশংসতা বন্ধ করতে হবে। আল-আকসা মসজিদকে মুসলমানদের ইবাদত বন্দেগীর জন্য উন্মুক্ত রাখতে হবে।

সম্মিলিত ইসলামী ঐক্যজোট : সম্মিলিত ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা জাফরুল্লাহ খান ও মহাসচিব অ্যাডভোকেট খায়রুল আহসান এক যুক্ত বিবৃতিতে বলেন, আল আকসা মুসলমানদের প্রথম কেবলা এবং মুসলিম উম্মাহর প্রাণ। ইহুদিবাদী ইসরায়েলী বাহিনী গত শুক্রবার মুসুল্লিদের উপর হামলা করে মুসলিম উম্মাহর হৃদয়ে চরম আঘাত করেছে। তারা আরো বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের আসকারা পেয়ে ইসরায়েল যুগ যুগ ধরে ফিলিস্তিনের মুসলমানদের উপর অত্যাচার, নির্যাতন ও গণহত্যা চালিয়ে যাচ্ছে। জাতিসংঘ ইসরায়েলের বিরুদ্ধে প্রস্তাব পাশ করলেও বাস্তবায়নের কোন উদ্যোগ গ্রহণ করেনি ।

নেতৃদ্বয় আরো বলেন, ইসরাইলের বিরুদ্ধে অতি সত্বর আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা দায়ের করে গণহত্যার দায়ে বিচারের মুখোমুখি করতে হবে। বিশ্বের প্রভাবশালী দেশগুলোকে ইসরায়েলের উপর অর্থনৈতিক ও সামরিক অবরোধ দিয়ে মুসলিম নির্যাতন বন্ধে আরো দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে।



 

Show all comments
  • Dadhack ১০ মে, ২০২১, ১০:৩০ পিএম says : 0
    If we muslim unite again when 4 rightly guided Caliph then wipe out cancerous Israel from Palestinian Land.. Sallaudding Aubi conquered Palestine from crusader, now all the so called muslim country are divided into 57 countries and all the countries are ruled by Taghut as such we will suffer until we come under one umbrella.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ