Inqilab Logo

শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

স্বস্তির বৃষ্টিতে সিক্ত দেশ

বিশেষ প্রতিনিধি, চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১২ মে, ২০২১, ১২:০১ এএম

অবশেষে স্বস্তির বৃষ্টিপাতে সিক্ত হয়েছে সারা দেশ। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ বর্ষণের রেকর্ড টাঙ্গাইলে ৭৮ মি.মি.। বজ্রবৃষ্টি, কালবৈশাখী ঝড় হয়েছে দেশের বিভিন্ন স্থানে। আজ-কালও দেশের অধিকাংশ জেলায় বৃষ্টি-বজ্রবৃষ্টির পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে।

বৈশাখ মাস যাই যাই করছে। ২৯ তারিখ আজ বুধবার। মাত্র কয়েক দিন ব্যতিক্রম ও বিক্ষিপ্ত কিছু কিছু জায়গায় ছাড়া পুরো মাসজুড়ে দেশের বেশিরভাগ এলাকায় এবার কালবৈশাখী ঝড় বয়ে যায়নি। এরফলে কালবৈশাখীর সঙ্গে ‘স্বাভাবিক’ যে বৃষ্টিপাত এ মাসে হয়ে থাকে তাও হয়নি। বজ্রপাত-বজ্রঝড়, বজ্রবৃষ্টি-শিলাবৃষ্টিও তেমন হয়নি আগের বছরগুলোর তুলনায় । বঙ্গোপসাগরেও এখন পর্যন্ত কোন লঘুচাপ-নিম্নচাপের ঘনঘটা তৈরি হয়নি।
এসব ক্ষেত্রে দেয়া আবহাওয়া পূর্বাভাস বাস্তবে ফলেনি তেমন। ডিসেম্বর থেকে টানা ছয় মাস ধরে দেশজুড়ে নজিরবিহীন খরা-অনাবৃষ্টি, তাপদাহের ধারাবাহিকতা চলেছে বৈশাখজুড়ে। দিন ও রাতের গড় তাপমাত্রার পারদ স্বাভাবিকের চেয়ে ঊর্ধ্বে অবস্থান করছে। এ কোন বিচিত্র অচেনা বৈশাখ!

এদিকে বৈশাখ মাস যখন প্রায় শেষ হয়ে আসছে, তখন খরতপ্ত আবহাওয়ায় গত দু’দিনে কিছুটা পরিবর্তনের সূচনা হয়েছে। বৃষ্টিপাত হচ্ছে দেশের অনেক জেলায়। ইতোমধ্যে কমেছে ভ্যাপসা গরমের দাপট। গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দেশের বেশিরভাগ জেলায় হালকা থেকে মাঝারি বর্ষণ, কোথাও কোথাও ভারী বৃষ্টিও হয়েছে। এ সময়ে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয় টাঙ্গাইলে ৭৮ মিলিমিটার।

এছাড়া ঢাকায় ৩৪, ফরিদপুরে ৪৯, ময়মনসিংহে ৭৫, সন্দ্বীপে ৩৭, সীতাকুণ্ডে ১২, কুমিল্লায় ২৩, ফেনীতে ১১, সিলেটে ৩, শ্রীমঙ্গলে ২২, রাজশাহীতে ২৪, পাবনায় ৩৬, বগুড়ায় ২০, বদলগাছীতে ২১, দিনাজপুরে ৬৯, কুড়িগ্রামে ৯, খুলনায় ১৫, মংলায় ৬৫, সাতক্ষীরায় ৩২, চুয়াডাঙ্গায় ৪২, কুষ্টিয়ায় ২৯, বরিশালে ৫, পটুয়াখালীতে ১৯, খেপুপাড়ায় ৯ মি.মি. বৃষ্টিপাত হয়েছে। বৃষ্টিতে স্বস্তি ফিরেছে। সিক্ত হয়েছে খরতপ্ত মাটি, মাঠ-ঘাট। সতেজ হয়েছে কিছুটা প্রকৃতি।

গতকাল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা নেমে আসে কক্সবাজারে ৩৪.১ এবং সর্বনিম্ন ডিমলায় ১৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকার সর্বোচ্চ তামপাত্রা ৩২ এবং সর্বনিম্ন ২০.৭ ডিগ্রি সে.।
আজ সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুক জানান, দেশের সবক’টি বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা থেকে ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ এবং কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টায় বৃষ্টি-বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে। এরপরের ৫ দিনে বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের প্রবণতা হ্রাস পেতে পারে।
আবহাওয়া বিভাগ জানায়, পশ্চিমা লঘুচাপের একটি বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের এলাকায় অবস্থান করছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: স্বস্তির বৃষ্টিতে সিক্ত দেশ
আরও পড়ুন