Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮, ১৩ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

হাতিরও ‘মানবিকতা’!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ মে, ২০২১, ১২:০১ এএম

বিশাল শরীর নিয়ে যখন হাতির পাল কোনো ফল কিংবা ফসলের খেতে ঢুকে পড়ে, তখন চারপাশে ধ্বংসলীলা বয়ে যায়। দুমড়েুমুচড়ে, পুরো খেত সাফ করে একাকার। এ সময় কেউ সামনে পড়লে কারও রেহাই নেই। তবে দয়ালু হাতিও রয়েছে। সেসব হাতি পাখিদের প্রতি সহানুভূতিশীল।

ঘটনাটি ভারতের তামিলনাড়ুর একটি গ্রামের। সেখানে হঠাৎই উন্মত্ত হাতির একটি পাল হামলে পড়ে ওই গ্রামের একটি কলাবাগানে। কে না জানে, হাতির খুব পছন্দের খাবার কলাগাছ। সামনে পেলে মুহূর্তেই সাবাড় করে দেয় আস্ত কলাগাছ। সেখানে পুরো একটি বাগান পেলে তো কথাই নেই। চোখের পলকে ওই বাগানের সব কলাগাছ সাবাড় করে দেয় ক্ষুধার্ত হাতির দল। তবে বিস্ময়করভাবে হাতির পালের আকস্মিক আক্রমণ থেকে রক্ষা পায় বাগানের একটি মাত্র কলাগাছ। বাগানের সব গাছ খেয়ে সাবাড় করলেও ওই একটি গাছে শুঁড় ছোঁয়ায়নি হাতিরা। এর কারণ, ওই গাছটিতে ছিল পাখির বাসা। পাখির ছানাদের দেখে হয়তো হাতিদের মনে মায়া জন্মেছিল। উন্মত্ত হাতির পাল শুধু ওই গাছটি রেখে বাগানের বাকি সব কলাগাছ সাবাড় করেছে।

ক্ষুধার্ত হাতির পালের জীবে দয়ার এ ঘটনার ছোট্ট একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছেড়েছেন ইন্ডিয়ান ফরেস্ট সার্ভিসের (আইএফএস) কর্মকর্তা সুশান্ত নন্দা। মুহূর্তেই ভাইরাল হয়েছে ভিডিওটি। এতে দেখা যায়, উন্মত্ত বুনো হাতি চলে যাওয়ার পর গ্রামবাসী ক্ষতি পর্যবেক্ষণ করছেন। তখনই তারা দেখতে পান ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চালালেও বাগানে একটি কলাগাছ ঠায় দাঁড়িয়ে আছে। পাখির বাসা থাকায় ওই কলাগাছ ছুঁয়েও দেখেনি দয়ালু হাতির পাল। সূত্র : ইন্ডিয়া টুডে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ