Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮, ১২ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ঈদের কেনা কাটার জন্য টাকা না পেয়ে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা

কুষ্টিয়া থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ মে, ২০২১, ১১:০২ পিএম

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে বাবার উপর অভিমান করে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা করেছে। বুধবার দুপুরে কুমারখালী উপজেলা শিলাইদহ ইউনিয়নের নাওথী গ্রামের আব্দুল রশিদ বিশ্বাস এর স্কুল পড়ুয়া মেয়ে মোছা: রত্না খাতুন (১৪) তার পিতার কাছে ঈদ উপলক্ষে কেনাকাটা করা বাবদ পাঁচ হাজার টাকা চায়। হতদরিদ্র পরিবারের আব্দুল রশিদ মেয়ের এই বায়নায় অপারগতা প্রকাশ করলে পিতার উপর অভিমান করে মেয়ে রত্না খাতুন তার ঘরের চাতালের সাথে রশি পেঁচিয়ে গলায় ফাঁশ দিয়ে আত্মহত্যা করে।

নিহতের ভাই সেলিম হোসেন জানান, আমার বোন ঈদের কেনাকাটা বাবদ ৫ হাজার টাকা দাবি করে বাবার কাছে। বাবা সেই টাকা না দেওয়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। বাড়ির লোকজন এসে দরজা ভেঙে রত্না র' দেহ নামিয়ে অচেতন অবস্থায় তাকে কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

রত্না খাতুন কুমারখালী উপজেলার আতিয়ার রহমান বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী।

কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মজিবুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ১৪ বছরের একটা মেয়ে গলায় ফাঁশ দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কুষ্টিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ