Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮, ১২ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ইসরাইল আর কতো অপরাধ করলে ওআইসির বৈঠক হবে : ইরান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ মে, ২০২১, ৪:০৫ পিএম

ইরানের বিচারবিভাগের মানবাধিকার বিষয়ক দফতরের মহাসচিব আলী বাকেরি কানি বলেছেন, ইহুদিবাদী ইসরাইল আর কত অপরাধ করলে মুসলিম দেশগুলোকে নিয়ে গঠিত ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা ওআইসি’র জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। অধিকৃত ফিলিস্তিন বিশেষ করে অবরুদ্ধ গাজায় ইসরাইলি অপরাধযজ্ঞের বিষয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ কথা বলেছেন।

ইসরাইল গাজায় যে বর্বরোচিত আগ্রাসন চালাচ্ছে তা মানবতা বিরোধী যুদ্ধাপরাধ এবং বংশ নিধনযোগ্য ছাড়া আর কিছুই নয়। দখলদার ইসরাইল বর্তমান যুগের সবচেয়ে অত্যাধুনিক যুদ্ধাস্ত্র দিয়ে গাজার আবাসিক এলাকা একের পর এক ধ্বংস করে চলেছে। বড় বড় ভবনে বোমা হামলা চালিয়ে এক জায়গায় নারী, শিশু, বয়স্ক মানুষকে হত্যা করছে। গাজার পানি, বিদ্যুত ও যোগাযোগ ব্যবস্থার মতো গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামোগুলো মাটির সাথে মিশিয়ে দিচ্ছে।
ইসরাইলের মানবাধিকার লঙ্ঘনের মাত্রা এতটাই ছাড়িয়ে গেছে যে, মুসলিম দেশগুলোর পক্ষ থেকে এ বিষয়ে জরুরি পদক্ষেপ নেয়া দরকার হয়ে পড়েছে। তারা সর্বনিম্ন যে কাজ করতে পারে সেটা হচ্ছে মজলুম ফিলিস্তিনিদের সমর্থনে ওআইসির জরুরি বৈঠক ডাকা যাতে করে তারা গাজায় ইসরাইলের অপরাধযজ্ঞের বিষয়টি আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তুলে ধরতে পারে। বাস্তবতা হচ্ছে কয়েকটি আরব দেশের নতজানু নীতি এবং তাদের সমর্থনের কারণে দখলদার ইসরাইল ও আমেরিকা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। ফিলিস্তিন বিরোধী এ চক্রটি মুসলিম বিশ্বের প্রধান সমস্যা হিসেবে ফিলিস্তিন ইস্যুটিকে ম্লান করে দেয়ার চেষ্টা করছে। এ লক্ষ্যে তারা ‘ডিল অব দ্যা সেঞ্চুরি’ পরিকল্পনা তুলে ধরেছে এবং ইসরাইলের সঙ্গে আরব দেশগুলোর সম্পর্ক স্বাভাবিক করার চেষ্টা করছে। সুত্র: পার্সটুডে।

 

 

 

 



 

Show all comments
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ১৫ মে, ২০২১, ৫:৩৮ পিএম says : 0
    ফিলিস্তিনের মুসলমানদের বাচার অধিকার নেই? জাতীয় সংঘ আমেরিকার তাবেদারীত ব‍্যস্থ। বিশ্বের দুইশত কোটির অধিক মুসলিম জনগোষ্ঠী ফিলিস্তিনের জনসাধারণের পক্ষে গভীর মর্মাহত ব‍্যাথিত। মুসলিম শাসকগোষ্ঠী আমেরিকার ভয়ে শান্ত চুপচাপ নীতি গ্রহণকারী হিসাবে চিহ্নিত হচ্ছে। ব‍্যাতিক্ষম শিয়া মুসলিম ইরান। আমাদের আটার কোটি মুসলিম জনগোষ্ঠীর নেতা বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তীব্র প্রতিবাদমুখর আছে ইনশাআল্লাহ থাকবেন। ফিলিস্তিনের নির্যাতিত জনগণের পক্ষে। ইসরাইলের জঘন্যতম ঘৃণ্য বর্বরতা নিষ্ঠুর হত‍্যাকান্ড বিশ্বের মানুষের হ্নদয় ক্ষতবিক্ষত করে দিলেও কাফের ইহুদির আমেরিকার মদত পুষ্ট ইসরাইলীদের আক্রমণ হামলার পর হামলা বর্বরতা নিষ্টুরতা গনহত‍্যায় প্রমাণিত ইসরায়েলের বিরুদ্ধে বিশ্ব মুসলিম বিশ্ব বিবেক সব কিছুই পরাজিত। বিচারপতি বিচার ক্ষুদ্র ভাইরাস দিয়ে শুরু করেছে। লন্ডবন্ড আমেরিকা লক্ষ লক্ষ মৃত্যুর মিছিল কিভাবে কার নির্দেশে। কে অদৃশ্য ভাইরাসের সৃষ্টিকর্তা। দুনিয়াই মানুষ এবং জ্বীন আল্লাহর ইবাদতের জন্যে সৃষ্টি করেছেন। মানুষের আচরণ দেখুন পৃথিবীতে স্থায়ী আচরণ করছে। ক্ষুদ্র ক্ষন স্থায়ী জীবনের জন্যে শয়তানের তালে পড়ে মানুষ ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়ে যাচ্ছে। ফিলিস্তিন মুসলমানদের ঈমানী পরিক্ষার তীর্থস্থান মধ্যপ্রাচ্যের আরবরা বিশালাকার অর্থ সম্পদের নেশায় হুসনেই আল্লাহর কঠিন পরিক্ষা। আখেরি জমানায় সত‍্যবলা জেহাদের মত হবে। ইসলাম মুসলমানদের নৈতিকতা ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে মা বোন স্ত্রী পুত্র ইসলামের পবিত্র শৃংখলার মধ্য নেই। পবিত্র কোরান সুন্নাহ মধ্যে নেই। কোটি কোটি মুসলমান নামাজীর সংখ্যা নগন‍্য। এই কঠিন ভয়ংকর পরিস্থিতি জাহান্নামের ভয়ংকর শাস্তি আখেরাতের চুল পরিমাণ হিসাব নিকাশের কথা মৃত্যু অনিবার্য সত‍্য জেনেও ভুলে যাওয়া। আলেমদের কামড়া কামরী দিবা বিবক্তি এইসব ভয়াবহ সত‍্য জেনেও দুনিয়ার নেশায় মুসলমান ব‍্যস্থ কেন?? ইসলাম কে ইহুদীদের কাফেরদের যন্ত্রের দিয়ে প্রচন্ড প্রচারণা। লৌহ মাহফুজের পবিত্রকোরানকে নাপাক অপবিত্র জায়গাই বিতরে প্রচারণা। একেবারেই জঘন্যতম অপবিত্র কাজ। ইসলাম বুঝতে হলে পবিত্র কোরান পড়ুন প্রতিটি অক্ষরে অক্ষরে আল্লাহ রাসুল রাসুল(সাঃ) প্রদর্শীত পথও মতে চলুন গরিব হলেও শান্তি পাবেন। শিরোনাম আর কত অপরাধ করলেই ওআইসি বৈঠক করবে। দুঃখজনক ভাবে বলতেই হচ্ছে মুসলমানরা নিজের বিবেক বুদ্ধি জ্ঞান জানমাল ইজ্জত আমেরিকার নিকট ইজারা দিয়েছেন। এদের নিকট দুনিয়ার রাজত্ব বড়।আল্লাহর পক্ষে সাহায্য ছাড়া ফিলিস্তিনের মুসলমানদের শান্তি আসবে না। আল্লাহ্ আমাদের বিশ্বের মুসলমানদের হেদায়েতের মাধ্যমে সঠিক পথে আসার তৌফিক দিন। আমিন।
    Total Reply(0) Reply
  • Abdul Karim Kutubi Khukon ১৫ মে, ২০২১, ৫:২৮ পিএম says : 0
    ওআইসির বৈঠক ডেকে সবাইকে একটি দোয়াই করতে বলবেন। যাতে এই পৃথিবীতে আর একজন হিটলার জন্ম গ্রহণ করে।
    Total Reply(0) Reply
  • Tushar ১৫ মে, ২০২১, ৫:২৮ পিএম says : 0
    সব কিছু বিবেচনায় নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।যুদ্ধ কিন্তুু সব কিছুর সমাধান নয়।যুদ্ধ কখনো মানবজাতির জন্য কল্যান বয়ে আনবেনা।সাম্রাজ্যবাদিরা তাদের নিজেদের সার্থ হাসিলের জন্য সবকিছু করতে পারে।
    Total Reply(0) Reply
  • Dadhack ১৫ মে, ২০২১, ৪:৫৬ পিএম says : 0
    Why Iran is not attacking Israel??? They always talk but they never Aid Palestinian people against Barbarian Zionist Jew.
    Total Reply(1) Reply
    • Monjur Rashed ১৬ মে, ২০২১, ৩:১৪ পিএম says : 0
      At least Iranians are not sucking feet of Israelis like Saudis.
  • Saiful Alom Nazrul ১৫ মে, ২০২১, ৫:৩০ পিএম says : 0
    ওআইসি মুসলমানরুপি মুনাফেকদের সংগঠন ।
    Total Reply(0) Reply
  • Saidur Shohag rana ১৫ মে, ২০২১, ৫:৩০ পিএম says : 0
    OIC এখন ইসরায়েলের সহযোগী সংগঠন হিসেবে কাজ করে, কারন OIC এর অনেক প্রভাবশালী দেশ ইজরায়েল এর দোসর !
    Total Reply(0) Reply
  • Nazmus Sakib Moon ১৫ মে, ২০২১, ৫:৩১ পিএম says : 0
    এখনই ডাকুন বৈঠিক। যদিও এই সংগঠন থাকার থেকে না থাকাই শ্রেয়!
    Total Reply(0) Reply
  • Murtuza Chowdhury ১৫ মে, ২০২১, ৫:৩৬ পিএম says : 0
    ওআইসি'র চাবিকাঠি রয়েছে ইসরায়েল ও আমেরিকার পরম বন্ধু সৌদি আরব ও তার দোষরদের হাতে। এখন সেটা ও-আই সি তে আছে অর্থাৎ ও আমি দেখছি পর্যায়ে আছে।
    Total Reply(0) Reply
  • মোঃ সাব্বির ১৫ মে, ২০২১, ৫:৩৬ পিএম says : 0
    ওআইসির কোন দরকার নাই।
    Total Reply(0) Reply
  • Miron Khan ১৫ মে, ২০২১, ৫:৩৭ পিএম says : 0
    আমাদের মুসলিম জাতিসংঘ দরকার
    Total Reply(0) Reply
  • Md. Altaf Hossain ১৫ মে, ২০২১, ১০:১৩ পিএম says : 0
    ওআইসি একটা ভুয়া সংস্থা। তুরস্ক , ইরান, মালেশিয়া, পাকিস্তান বাদে বাকী মুসলিম দেশগুলোর নেতারা ইসরাইল ইহুদিদের সাথে সম্পর্কের কারনে ইসরাইলের বিরুদ্বে কোন ব্যবস্থা নিতে পারছেনা্। ধিক্কার জানাই ওইসব মুসলিম দেশের রাষ্ট্রপ্রধানদের ।
    Total Reply(0) Reply
  • মো জামিরহোসেন ১৫ মে, ২০২১, ৬:২৭ পিএম says : 0
    ইহুদি নাসারা মুসলমানদের চিরন্তন শত্রু। অতীতে এই জেরুজালেমে তারা বারবার মহা চক্রান্ত করে লক্ষ লক্ষ মুসলমান হত্যা করেও তারা বার-বার শোচনীয় পরাজয় বরন করেছে তাই আজ অর্থবিত্তে শক্তিশালী হয়ে মুসলমানদের কলিজায় নিষ্ঠুরতম আঘাত করে প্রতিশোধ নিচ্ছে!! আর মোনাফেক কিছু মুসলমান দেশ চোখ বুজে তা দেখছে গদীর লোভে।
    Total Reply(0) Reply
  • মো আবুল কালাম আজাদ ১৫ মে, ২০২১, ৯:১৮ পিএম says : 0
    ওআইসি চালায় ইস্রাইল,কিছু নামধারী মুসলমান- বলে- ইরান নাকি অমুসলমান, যতসব হারামির কথা-
    Total Reply(0) Reply
  • Mojahid ১৫ মে, ২০২১, ৯:৩৯ পিএম says : 0
    Sudhu montobbo kore kaj hobena.musolmander ek hoye juddhe namte hobe.
    Total Reply(0) Reply
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ১৫ মে, ২০২১, ৬:৪৩ পিএম says : 0
    ফিলিস্তিনের মুসলমানদের বাচার অধিকার নেই? জাতীয় সংঘ আমেরিকার তাবেদারীত ব‍্যস্থ। বিশ্বের দুইশত কোটির অধিক মুসলিম জনগোষ্ঠী ফিলিস্তিনের জনসাধারণের পক্ষে গভীর মর্মাহত ব‍্যাথিত। মুসলিম শাসকগোষ্ঠী আমেরিকার ভয়ে শান্ত চুপচাপ নীতি গ্রহণকারী হিসাবে চিহ্নিত হচ্ছে। ব‍্যাতিক্ষম শিয়া মুসলিম ইরান। আমাদের আটার কোটি মুসলিম জনগোষ্ঠীর নেতা বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তীব্র প্রতিবাদমুখর আছে ইনশাআল্লাহ থাকবেন। ফিলিস্তিনের নির্যাতিত জনগণের পক্ষে। ইসরাইলের জঘন্যতম ঘৃণ্য বর্বরতা নিষ্ঠুর হত‍্যাকান্ড বিশ্বের মানুষের হ্নদয় ক্ষতবিক্ষত করে দিলেও কাফের ইহুদির আমেরিকার মদত পুষ্ট ইসরাইলীদের আক্রমণ হামলার পর হামলা বর্বরতা নিষ্টুরতা গনহত‍্যায় প্রমাণিত ইসরায়েলের বিরুদ্ধে বিশ্ব মুসলিম বিশ্ব বিবেক সব কিছুই পরাজিত। বিচারপতি বিচার ক্ষুদ্র ভাইরাস দিয়ে শুরু করেছে। লন্ডবন্ড আমেরিকা লক্ষ লক্ষ মৃত্যুর মিছিল কিভাবে কার নির্দেশে। কে অদৃশ্য ভাইরাসের সৃষ্টিকর্তা। দুনিয়াই মানুষ এবং জ্বীন আল্লাহর ইবাদতের জন্যে সৃষ্টি করেছেন। মানুষের আচরণ দেখুন পৃথিবীতে স্থায়ী আচরণ করছে। ক্ষুদ্র ক্ষন স্থায়ী জীবনের জন্যে শয়তানের তালে পড়ে মানুষ ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়ে যাচ্ছে। ফিলিস্তিন মুসলমানদের ঈমানী পরিক্ষার তীর্থস্থান মধ্যপ্রাচ্যের আরবরা বিশালাকার অর্থ সম্পদের নেশায় হুসনেই আল্লাহর কঠিন পরিক্ষা। আখেরি জমানায় সত‍্যবলা জেহাদের মত হবে। ইসলাম মুসলমানদের নৈতিকতা ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে মা বোন স্ত্রী পুত্র ইসলামের পবিত্র শৃংখলার মধ্য নেই। পবিত্র কোরান সুন্নাহ মধ্যে নেই। কোটি কোটি মুসলমান নামাজীর সংখ্যা নগন‍্য। এই কঠিন ভয়ংকর পরিস্থিতি জাহান্নামের ভয়ংকর শাস্তি আখেরাতের চুল পরিমাণ হিসাব নিকাশের কথা মৃত্যু অনিবার্য সত‍্য জেনেও ভুলে যাওয়া। আলেমদের কামড়া কামরী দিবা বিবক্তি এইসব ভয়াবহ সত‍্য জেনেও দুনিয়ার নেশায় মুসলমান ব‍্যস্থ কেন?? ইসলাম কে ইহুদীদের কাফেরদের যন্ত্রের দিয়ে প্রচন্ড প্রচারণা। লৌহ মাহফুজের পবিত্রকোরানকে নাপাক অপবিত্র জায়গাই বিতরে প্রচারণা। একেবারেই জঘন্যতম অপবিত্র কাজ। ইসলাম বুঝতে হলে পবিত্র কোরান পড়ুন প্রতিটি অক্ষরে অক্ষরে আল্লাহ রাসুল রাসুল(সাঃ) প্রদর্শীত পথও মতে চলুন গরিব হলেও শান্তি পাবেন। শিরোনাম আর কত অপরাধ করলেই ওআইসি বৈঠক করবে। দুঃখজনক ভাবে বলতেই হচ্ছে মুসলমানরা নিজের বিবেক বুদ্ধি জ্ঞান জানমাল ইজ্জত আমেরিকার নিকট ইজারা দিয়েছেন। এদের নিকট দুনিয়ার রাজত্ব বড়।আল্লাহর পক্ষে সাহায্য ছাড়া ফিলিস্তিনের মুসলমানদের শান্তি আসবে না। আল্লাহ্ আমাদের বিশ্বের মুসলমানদের হেদায়েতের মাধ্যমে সঠিক পথে আসার তৌফিক দিন। আমিন।
    Total Reply(0) Reply
  • Md. Iqbal Hasan ১৫ মে, ২০২১, ৮:০৮ পিএম says : 0
    এখানে মূল সমস্য হচ্ছে সৌদি। বাদশা সালমানের পুত্র এমবিএস একজন ইহুদির ....। সে যত রকম কু কর্ম আছে সবকিছু করে থাকে। ইয়েমেনে দীর্ঘদিন হামলা চালিয়ে সৌদি অসংখ্য ছোট শিশু ও নিরীহ মুসলিম মারছে। ইসরাইলের সাথে সৌদ পরিবারের নিবীড় সম্পর্ক্ আছে। ইসরাইলী ইহুদি সন্ত্রাসীরা তাদের ভাই। বর্তমানে তুরস্ক,ইরান ,মালেশিয়া ছাড়া আর কোন দেশ এই ব্যপারে মন্তব্য করছে না। তুরস্ক চেষ্ঠা করলেও এই ব্যাপারে দেশটি সৌদিকে পাচ্ছেনা তাদের পাশে। ওআইসির সিংহাসন সৌদির দখলে,তাই তুরস্ক একক কোন সিদ্ধান্ত নিতে ভাবছে কারন ইসরাইলের লালনকারী আমেরিকার নিষধাজ্ঞার ভয় আছে এসব দালার দেশদের। এই মুহুর্তে মজলুম ফিলিস্তিনিদের বাচানোর মালিক আল্লাহ ছাড়া কেউ নাই। আসুন সবাই নামাজে,জিকিরে আল্লাহর দরবারে হাত তুলে ফিলিস্তিনি নিরীহ ভাইবোনদের জন্য দোয়া করি। আর যাদের ক্ষমতা থেকেও মুখে কুলুপ এঠে আছে সেই সমস্ত দেশের ধ্বংস কামনা করি। আমিন।
    Total Reply(0) Reply
  • EHSAN ELAHI JAHIR ১৫ মে, ২০২১, ৮:১৫ পিএম says : 0
    اللهم انك انت القوي القدير فانصر اخواننا المستظعفين في فلسطين وسائر بلاد المسلمين اللهم انهم ضعفاء فقوهم اللهم اشفي مريضهم وارحم شهيدهم وااطعم جائعهم واكسي عاريهم وأمن خوفهم و وحد كلمتهم وقوهم وثبتهم وفرج كربتهم اللهم احمهم من كيد اليهود الغابرين اللهم كن لهم ولاتكن عليهم وانصرهم ولاتنصر عليهم اللهم احرسهم بعينك التي لاتنام اللهم أصرف كيد اليهود عنهم واغشي عيون اليهود عنهم انك انت العزيز الجبار ذو القوه المتين
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইরান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ