Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৩ জুন ২০২১, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ০১ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

আরও এক সপ্তাহ বাড়লো লকডাউন প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ মে, ২০২১, ৪:১৩ পিএম

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ না কমা এবং ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের কারণে চলমান বিধিনিষেধ বা ‘লকডাউন’ আরও এক সপ্তাহ বাড়ানোর প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আগামীকাল প্রজ্ঞাপন জারি করবে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

আজ শনিবার জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন দৈনিক ইনকিলাবকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী চলমান বিধিনিষেধ শেষে আগামী ১৭-২৩ মে নতুন করে অনুমোদন দিয়েছেন।আগামীকাল রোববার এ নিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। এবার ১৭-২৩ মে আগের যে বিধিনিষেধ ছিল তা চলমান থাকবে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ জানিয়েছে ঈদের পর সংক্রমণ বাড়তে পারে। ফরহাদ হোসেন বলেন, ঈদের পর ২২ থেকে ৩০ মে পর্যন্ত সংক্রমণ বাড়তে পারে বলে আমাদের ধারণা। এজন্য বিধিনিষেধ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। ঈদের ছুটি শেষে আজ রোববার প্রথম কর্ম দিবস, সেই কর্মদিবসে লকডাউন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রজ্ঞাপন হবে। তবে সেখানে আগের বিধিনিষেধ রাখা হবে।
দেশে চলতি বছর করোনা সংক্রমণ বাড়ায় গত ৫ এপ্রিল থেকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়। ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত ঢিলেঢালা লকডাউন পালন হলেও সংক্রমণ আরও বেড়ে যাওয়ায় ১৪ এপ্রিল থেকে ‘কঠোর লকডাউন’ ঘোষণা করে সরকার। সবশেষ তা ১৬ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়। এবারের ঈদে লঞ্চ-ট্রেন এবং দূরপাল্লার বাস বন্ধ রাখা হয়েছে। কিন্তু মানুষ বাড়ি ফিরছেন ঝুঁকি নিয়ে। ফলে করোনা সংক্রমণেরও ঝুঁকি তৈরি হয়েছে।



 

Show all comments
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ১৫ মে, ২০২১, ৬:১০ পিএম says : 0
    অত্যন্ত সময় উপযোগী সিদ্ধান্ত। পাশ্ববর্তী পশ্চিমবঙ্গের লকডাউন ভারতের কঠিন পরিস্থিতি ভারতীয় ভ‍্যারিযেন্ট বাংলাদেশে পাওয়া ইত্যাদির কারণে লকডাইন জরুরী ছিল। মানুষের কষ্টের মাঝেও জীবন বাচানোর গুরুত্ব সরকারের নিকট বেশি। ভারতীয় ভ‍্যারিযেনটের উপর গভীর নজরদারী বাংলাদেশের স্বাস্থ্য বিভাগের জরুরী কাজ হবে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লকডাউন


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ